রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ৯ কার্তিক ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

ক্ষমতার অপব্যাবহার, কাঠগড়ায় থাই প্রধানমন্ত্রী

image_81006.shinawatra-320x200

 

ক্ষমতা অপব্যবহারের অভিযোগে মঙ্গলবার কাঠগড়ায় উঠতে হল থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী ইংলাক সিনাওয়াত্রা। আত্মপক্ষ সমর্থনে এদিন রাজধানী ব্যাংককের সাংবিধানিক আদালতে হাজির হন তিনি।২০১১ সালে জাতীয় নিরাপত্তা প্রধান পদে নিয়োগ ঘিরে স্বজন-পোষণের অভিযোগ উঠেছে থাই প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে। রাজনীতিক স্বার্থে তৎকালীন নিরাপত্তা বাহিনীর প্রধানকে অপসারণ করে তিনি গুরুত্বপূর্ণ এই পদে নিজের পরিবারের লোককে বসিয়েছিলেন বলে অভিযোগ। প্রধানমন্ত্রী সিনাওয়াত্রার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা অপব্যবহারের অভিযোগ করে আদালতে মামলা করেন এক সেনেটর। এই মামলাতেই আত্মপক্ষ সমর্থনে মঙ্গলবার আদালতে উপস্থিত হয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী।অভিযোগ প্রমাণিত হলে প্রধানমন্ত্রীত্ব খোয়াতে পারেন ইংলাক সিনাওয়াত্রা। এ ছাড়া থাই প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের উপরে পাঁচ বছরের জন্য নিষেধাজ্ঞা জারি করতে পারেন আদালত।যদিও ২০১১ সালে জাতীয় নিরাপত্তা প্রধান পদে নিয়োগ ঘিরে স্বজন-পোষণের অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছেন অভিযুক্ত প্রধানমন্ত্রী। দেশের ভালোর জন্য তিনি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বলে এ দিন আদালতে দাবি করেন তিনি। চলতি সপ্তাহেই সাংবিধানিক আদালত এই মামলার রায় ঘোষণা করতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে।এদিকে, প্রধানমন্ত্রী ইংলাক সিনাওয়াত্রার বিরুদ্ধে চলা ক্ষমতার অপব্যবহারের মামলার রায় ঘোষণার আগেই উত্তপ্ত হতে শুরু করেছে থাইল্যান্ডের জাতীয় রাজনীতি। চলতি সপ্তাহে দেশের শাসক ও বিরোধী উভয় দলেরই রাজধানীর বুকে সভা করার কর্মসূচি আছে। যার ফলে দুই পক্ষের মধ্যে ফের সংঘর্ষের আশঙ্কা করা হচ্ছে।