মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

কে হচ্ছেন বিএনপির মহাসচিব?

2016_01_30_08_51_53_Vz5C2BhxoJYDh1kRjPIQ5TGon2RYba_original

 

বএিনপরি ষষ্ঠ জাতীয় কাউন্সলিকে ঘরিে নানা মরেুকরণ শুরু হয়ছে।ে নতো-র্কমীদরে মাঝে উৎসবরে আমজে বরিাজ করলওে বাদ পড়ার আশঙ্কায়ও রয়ছেনে অনকে।ে বগেম খালদো জয়িা বনিা প্রতদ্বিন্দ্বতিায় পুনরায় দলরে চয়োরপারসন নর্বিাচতি হচ্ছনে, এটা নয়িে নতো-র্কমীরা নশ্চিতি। তারকে রহমানও সনিয়ির ভাইস চয়োরম্যান থাকছনে। তবে নানা সমীকরণ চলছে দলরে ‍দ্বতিীয় গুরুত্বর্পূণ মহাসচবি পদ নয়ি।ে

সূত্র মত,ে বএিনপরি র্সবোচ্চ নীত-িনর্ধিারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমটিতিে সংযোজন-বয়িোজন ঘটব।ে পাশাপাশি দলে অত্যন্ত গুরুত্বর্পূণ হসিবেে ববিচেতি সনিয়ির যুগ্ম মহাসচবি পদ নয়িে হতে পারে তীব্র প্রতদ্বিন্দ্বতিা। তবে ছোট হতে পারে নর্বিাহী কমটিরি কলবের। র্বতমানে আলোচতি ‘এক নতোর এক পদ’র বষিয়টি বাস্তবায়তি হলে অনকেরে ঝরে পড়ার আশঙ্কা রয়ছে।ে এছাড়া নষ্ক্রিয়িতার কারণওে বাদ পড়তে পারনে অনকে।ে দুটি উপদষ্টো পরষিদ গঠনরে বষিয়ে আলোচনা থাকলওে শষে র্পযন্ত তা বাস্তবায়তি হচ্ছে না। গঠনতন্ত্র সংশোধনরে মাধ্যমে চয়োরপারসনরে উপদষ্টো পরষিদ দলরে উপদষ্টো পরষিদে রূপান্তরতি হতে পার।ে স্থায়ী কমটিি থকেে বাদ পড়া সদস্যদরে অর্ন্তভুক্ত করা হতে পারে ওই উপদষ্টো পরষিদ।ে সনিয়ির ভাইস চয়োরম্যানরে পদ বাতলি করে ‘কো-চয়োরম্যানরে পদ’ সৃষ্টরি আলোচনা হলওে বাস্তবায়তি হচ্ছে না তা-ও।

এদকি,ে বএিনপরি স্থায়ী কমটিরি র্সবশষে বঠৈকে আলোচতি ‘এক নতোর এক পদ’র প্রস্তাব নয়িে নতো-র্কমীদরে মধ্যে নতুন আশার সঞ্চার হয়ছে।ে দলীয় র্স্বাথইে চয়োরপারসন এ বষিয়টি বাস্তবায়ন করবনে, এমন প্রত্যাশা তাদরে। দলরে বশেরিভাগ নতোই কন্দ্রেীয় ও স্থানীয় র্পযায়ে একাধকি পদরে অধকিারী।

এ প্রসঙ্গে বএিনপরি স্থায়ী কমটিরি সদস্য ল.ে জনোরলে (অব.) মাহবুবুর রহমান বাংলামইেলকে বলনে, ‘‘এক নতো একাধকি পদে থাকলে সব কুক্ষগিত হয়ে যায়। ফলে অন্যদরে জন্য তমেন সুযোগ থাকে না। তাই ‘এক নতোর এক পদ’র ব্যাপারটকিে অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে দখো হচ্ছ।ে এ ব্যাপারে কাউন্সলিে ‘ইতবিাচক’ সদ্ধিান্ত আসতে পার।ে’’

কমটিরি কলবের প্রসঙ্গে তনিি বলনে, ‘আশা করছ,ি কাজ করার সুবধর্িাথে বএিনপরি আগামী কমটিরি কলবের ছোট হব।ে কারণ, বড় কলবেররে কমটিতিে অধকিাংশ নতোই নষ্ক্রিয়ি হয়ে যান।’

বএিনপরি স্থায়ী কমটিরি শূন্যপদ, বয়সজনতি কারণ ও নষ্ক্রিয়িতার অভযিোগে কছিু নতোর স্থায়ী কমটিি থকেে বাদ পড়ার আশঙ্কা এবং শূন্যপদে অর্ন্তভুক্তি নয়িওে চলছে নানা সমীকরণ। খন্দকার দলেোয়ার হোসনে ও ড. আর এ গণরি মৃত্যু এবং সালাহউদ্দনি কাদরে চৌধুরীর ফাঁসি হওয়ায় ১৮ সদস্যবশিষ্টি স্থায়ী কমটিতিে তনিটি পদ শূন্য হয়ছে।ে বয়সজনতি কারণে কমটিি থকেে বাদ পড়তে পারনে এম শামসুল ইসলাম ও বগেম সারোয়ারি রহমান। এছাড়া গত প্রায় এক বছর দলরে কোনো র্কমসূচতিে না থাকা ব্যারস্টিার রফকিুল ইসলাম ময়িাও বাদ পড়তে পারনে স্থায়ী কমটিি থকে।ে

স্থায়ী কমটিরি এসব শূন্যস্থান পূরণে র্সবাধকি আলোচনায় রয়ছেনে-র্বতমান ভাইস চয়োরম্যান শাহ মোয়াজ্জমে হোসনে, আব্দুল্লাহ আল নোমান, বগেম সলেমিা রহমান ও সাদকে হোসনে খোকা; চয়োরপারসনরে উপদষ্টো আমরি খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ড. ওসমান ফারুক ও অ্যাডভোকটে খন্দকার মাহবুব হোসনে।

এছাড়া স্থায়ী কমটিতিে দলরে ভাইস চয়োরম্যান মজের (অব.) হাফজিউদ্দনি আহমদে বীরবক্রিম ও এয়ার ভাইস র্মাশাল (অব.) আলতাফ হোসনে চৌধুরী; চয়োরপারসনরে উপদষ্টো আব্দুল আউয়াল মন্টিু ও শামসুজ্জামান দুদুর নামও আলোচতি হচ্ছ।ে

বএিনপকিে গতশিীল করতে দলরে একটি অংশ চাচ্ছ,ে র্সবোচ্চ নীত-িনর্ধিারণী ফোরামে তরুণ নতেৃত্ব আসুক। সক্ষেত্রেে তরুণ নতোদরে মধ্যে স্থায়ী কমটিতিে র্সবাধকি আলোচনায় রয়ছেনে র্বতমান দপ্তররে দায়ত্বিপ্রাপ্ত যুগ্ম মহাসচবি অ্যাডভোকটে রুহুল কবরি রজিভী আহমদে। এছাড়া যুগ্ম মহাসচবি আমান উল্লাহ আমান, মো. শাহজাহান ও সালাহউদ্দনি আহমদেরে নামও আলোচতি হচ্ছ।ে তবে এদরেকে ‘সনিয়ির যুগ্ম মহাসচবি’ পদওে অধষ্ঠিতি করার কথা ভাবা হচ্ছ।ে

মহাসচবি পদে দলীয় প্রধানরে আনুগত্য ও জনপ্রয়িতার দৌঁড়ে সবচয়েে এগয়িে রয়ছেনে র্বতমান ভারপ্রাপ্ত মহাসচবি মর্জিা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এ কারণে কৌশলী অবস্থান নয়িছেনে বাকরিা। তাদরে কউে প্রকাশ্যে নজিদেরে র্প্রাথতিা ঘোষণা না করলওে চয়োরপারসন দায়ত্বি দলিে তা গ্রহণে প্রস্তুত।

২০১১ সালে বএিনপরি দুঃসময়রে কাণ্ডারখ্যিাত খোন্দকার দলেোয়ার হোসনেরে মৃত্যুর পর থকেইে সনিয়ির যুগ্ম মহাসচবি মর্জিা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ‘ভারপ্রাপ্ত মহাসচবি’ হসিবেে দায়ত্বি পালন করছনে। তবে ওই সময়টতিে ‘ভারপ্রাপ্ত মহাসচবি হসিবে’ে অনকে সনিয়ির নতোই তাকে মনেে ননেন,ি এমনকি তারা বাড়াননি সহযোগতিার হাতও।

রাজনীততিে স্বচ্ছ, পরচ্ছিন্ন ও সুবক্তা হসিবেে পরচিতি মর্জিা ফখরুলরে বরিুদ্ধে এ র্পযন্ত ৮৪টি মামলা দায়রে করছেে সরকার। এসব মামলায় তনিি কারাগারে গয়িছেনে সাতবার। বএিনপতিে খালদো জয়িা ও তারকে রহমানরে পরই জনপ্রয়িতার র্শীষে ভারপ্রাপ্ত মহাসচবি। এছাড়া দলরে নতো-র্কমীদরে বাইরওে দশে-িবদিশেি কূটনীতকি, গণমাধ্যম, সুশীল সমাজ, অন্যান্য রাজনতৈকি দলসহ বভিন্নি শ্রণে-িপশোর মানুষরে কাছওে মর্জিা ফখরুলরে গ্রহণযোগ্যতা রয়ছে।ে বএিনপরি দ্বতিীয় র্সবোচ্চ নতো তারকে রহমানরে গুডবুকওে তনিি রয়ছেনে বলে জানা যায়।

সদ্য কারামুক্ত বএিনপরি স্থায়ী কমটিরি সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসনেরেও র্দীঘদনিরে স্বপ্ন দলরে মহাসচবি হওয়ার। বএিনপরি বহষ্কিৃত প্রয়াত মহাসচবি আব্দুল মান্নান ভুইয়ার সময় থকেইে মহাসচবি পদে শক্তশিালী র্প্রাথী তনি।ি তবে মোশাররফরে পক্ষে তার সর্মথকরা তমেন জোরালো যুক্তি উপস্থাপন করতে পারনে না।

দলরে একটি শক্তশিালী অংশ মনে কর,ে র্বতমান আর্ন্তজাতকি ও আভ্যন্তরীণ রাজনতৈকি প্রক্ষোপট ববিচেনায় একজন পোড়খাওয়া ও অভজ্ঞি নতোকইে মহাসচবিরে দায়ত্বি দয়ো প্রয়ােজন, যনিি দলরে ‘টপ টু বটম’ সবার কাছে গ্রহণযোগ্য হওয়ার পাশাপাশি দলীয় প্রয়োজনে তাদরেকে নয়িন্ত্রণও করতে পারবনে। আর সক্ষেত্রেে দলরে র্সবমহলে গ্রহণযোগ্য ও আলোচতি নাম হচ্ছে তরকিুল ইসলাম। বএিনপরি নানা সঙ্কটময় মুর্হূতে তনিি দলীয় প্রধানরে প্রদত্ত দায়ত্বি সফলতার সঙ্গে পালন করছেনে। তবে তনিি কখনােই নজি থকেে দলরে মহাসচবিরে দায়ত্বি নতিে আগ্রহ দখোনন।ি দলরে চয়োরপারসন বভিন্নি সময় ‘দায়ত্বি’ দতিে চাইলওে বনিয়রে সঙ্গে তা এড়য়িে গছেনে। দলরে জন্য অন্তঃপ্রাণ প্রবীণ এই রাজনীতবিদিরে বরিুদ্ধওে রয়ছেে বশে কয়কেটি মামলা। উচ্চ আদালত থকেে জামনি নয়িে এখন কছিুটা প্রকাশ্যে তনি।ি র্বতমান সঙ্কটময় মুর্হূতে দলকে সংগঠতি করতে চয়োরপারসন দায়ত্বি দলিে তা গ্রহণে তরকিুল প্রস্তুত বলে তার ঘনষ্ঠি সূত্রে জানা যায়।

মহাসচবি পদে স্থায়ী কমটিরি আরকে সদস্য গয়শ্বের চন্দ্র রায়কে ঘরিওে তরৈি হয়ছেে আরকেটি বলয়। দলরে প্রতি আনুগত্য, জলে-জুলুম ও র্সবশষে তার সভাপতত্বিে মহাসমাবশে সফল হওয়ায় গয়শ্বেরও খালদো জয়িার গুডবুকে রয়ছেনে বলে জানা যায়। চয়োরপারসন দায়ত্বি দলিে তা পালনে প্রস্তুত গয়শ্বেরও।

এ প্রসঙ্গে গয়শ্বের চন্দ্র রায় বাংলামইেলকে বলনে, ‘মহাসচবি হসিবেে নত্রেী (খালদো) যাকে উপযুক্ত মনে করবনে তাকইে দায়ত্বি দবিনে। আমি এখন যখোনে (স্থায়ী কমটি)ি আছ,ি সটোও তো অনকে গুরুত্বর্পূণ। তবে মহাসচবিরে দায়ত্বি দলিে আমি তা পালন করতে পারব না, বষিয়টি মোটইে এমন নয়।’

বএিনপরি যুগ্ম মহাসচবি পদওে আসতে পারে নানা পরর্বিতন, অর্ন্তভুক্ত হতে পারে এক ঝাঁক তরুণ। এর মধ্যে আলোচতি নামগুলো হচ্ছ-েড. আসাদুজ্জামান রপিন, অ্যাডভোকটে সয়ৈদ মোয়াজ্জমে হোসনে আলাল, হাববিুর রহমান হাববি, গোলাম আকবর খন্দকার, রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, খায়রুল কবরি খোকন ও হাববি-উন-নবী খান সোহলে।

জানতে চাইলে ল.ে জনোরলে (অব.) মাহবুবুর রহমান বলনে, ‘দলে র্দীঘদনি ধরে অনকেইে নষ্ক্রিয়ি রয়ছেনে, আগামী কমটিতিে তারা ঝরে পড়বনে-এটইি স্বাভাবকি। একইসঙ্গে আমি আশা করছ-ি সক্রয়ি, ত্যাগী, প্রজ্ঞাবান ও দলরে প্রতি অনুগতদরে কমটিতিে অর্ন্তভুক্ত করা হব।ে’

প্রসঙ্গত, ২০০৯ সালরে ৮ ডসিম্বের অনুষ্ঠতি হয় বএিনপরি পঞ্চম জাতীয় কাউন্সলি। র্সবশষে ওই কাউন্সলিে দলটরি গঠনতন্ত্রে বশেকছিু পরর্বিতন আনা হয়। নর্বিাহী কমটিরি সদস্য ২৫১ থকেে বাড়য়িে ৩৮৬ করা হয়। এছাড়া ‘সনিয়ির ভাইস চয়োরম্যান’ নামে নতুন পদ সৃষ্টি করা হয়। বএিনপরি গঠনতন্ত্রে প্রতি তনি বছর পরপর কাউন্সলি করার বধিান রয়ছে।ে