মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১১ কার্তিক ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

কীটনাশক থাকায় সৌদি আরবে ভারতীয় কাঁচামরিচ নিষিদ্ধ

মোহাম্মদ আলী রাশেদ, সৌদি আরব থেকে :

ok

অতিমাত্রায় কীটনাশক থাকায় সৌদি আরবে ভারতীয় কাঁচা মরিচ আমদানী নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ভারতীয় মরিচ এর একটি শিপমেন্টএ ক্যামিকেল টেষ্টে মাত্রাতিরিক্ত কীটনাশকের উপস্থিতি ধরা পড়ায় সৌদি কৃষি মন্ত্রনালয় এ নির্দেশ জারী করে। ভারতীয় দূতাবাসের ব্যাবসা ও রাজনৈতিক সচিব (২য়) সুরিন্দর ভগত বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।সৌদি কৃষি মন্ত্রনালয় থেকে ইন্ডিয়ান এগ্রিকালচারাল এন্ড প্রসেসড ফুড প্রোডাক্টস এক্সপোর্ট ডেভেলপমেন্ট অথরিটি (এপিইডিএ) কে মরিচে কীটনাশক পাওয়ার বিষয়টি একটি প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে জানিয়ে আমদানী নিষিদ্ধ করা হয়েছে।প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়, “সম্প্রতি ভারত থেকে আমাদনীকৃত সব্জির মধ্যে সহনীয় মাত্রার অধিক কীটনাশক পাওয়া গিয়েছে। তাই সৌদি সরকার এই বিষয়ে খুব শীঘ্রই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে।” এই তথ্য জানার পর এপিইডিএ রপ্তানীকারকদের সৌদি আরবে সব্জি রপ্তানীর পূর্বে ভালভাবে পরীক্ষা করে পাঠাবার উপর জোর দেয়।এপিইডিএ এর এক মুখপাত্র বলেন, পশ্চিম এশিয়া আমাদের ব্যাবসায়িক একটি গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চল। আর এই কারণে শুধু সৌদি আরব নয় এই অঞ্চলে অবস্থিত সকল দেশের কাছ থেকেই আমরা কোন বিরূপ প্রতিক্রিয়া আশা করি না। আমরা আমাদের রপ্তানীকারকদের সব্জি রপ্তানীর পূর্বে ভালভাবে পরীক্ষা করে নেবার উপর জোর দিয়েছি।ভারতীয় মসলা বোর্ডের হিসাব মতে, মরিচ ভারতের বৈদেশিক মূদ্রা অর্জনের একটি অন্যতম পন্য। ২০১৩ সালের এপ্রিল থেকে নভেম্বরের মধ্যে ১ লাখ ৮১ হাজার ৫শত টন মরিচ ভারত থেকে রপ্তানী হয়েছে। যার বাজার মূল্য ৩ মিলিয়ন ইউ এস ডলার।ইতিপূর্বে গত ১ মে হতে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ভারতে উৎপাদিত আলফনসো আম এবং আরো চার প্রকারের সব্জি আমদানী সাময়িক ভাবে নিষিদ্ধ করেছে। ভারত থেকে রপ্তানীকৃত বিভিন্ন ফল এবং সব্জির মধ্যে ফলের মাছি ও অন্যান্য পোকামাকড়ের উপস্থিতির কারণে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।