মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ৮ আষাঢ় ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

আন্দোলনের মাধ্যমে ফ্যাসিস্ট সরকারকে বিতাড়িত করতে হবে – এম.কে আনোয়ার

mirsarai pic (3)ইমাম হোসেন: বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য এম.কে আনোয়ার বলেছেন মানুষ হত্যার রাজনীতি করে কোন সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারেনি, এ সরকারও পারবেনা। তিনি বলেন সরকার নিজ মতাদর্শ বিরোধী সংবাদপত্র ও টিভি চ্যানেল বন্ধ করার মাধ্যমে গনমাধ্যমের কন্ঠরোধ করার চেষ্টা করছে। বিচারপতিদের অভিশংসন ক্ষমতা সংসদের হাতে বহাল করারও সমালোচনা করেন। সরকার পতনের আন্দোলনের জন্য বিএনপি’র নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানান। বৃহস্পতিবার (২৮শে আগষ্ট) সকাল ১০ টায় চট্টগ্রামের মীরসরাইয়ে উপজেলা বিএনপি কর্তৃক আয়োজিত সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বিএনপির উক্ত কর্মী সমাবেশে এসে মারামারি হামলা- পাল্টা হামলার ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে এর জন্য জেলাকে কঠোর পদক্ষেপ এর নির্দেশ প্রদান করেন।
উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক নুরুল আমিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম আকবর খন্দকার, তথ্য ও গবেষনা বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ ওয়াহিদুল ইসলাম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও উত্তরজেলা বিএনপি’র আহ্বায়ক লায়ন আসলাম চৌধুরী এফসিএ, জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য প্রফেসর কামাল উদ্দিন চৌধুরী, কেন্দ্রীয় সদস্য মাহবুবুল আলম শামীম, জাসাসের কেন্দ্রীয় নেতা ও উপজেলা বিএনপি’র যুগ্ন আহ্বায়ক শাহীদুল ইসলাম চৌধুরী। এছাড়া আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল আমিন, সদস্য সচিব সালাহ্ উদ্দিন চেয়ারম্যান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলমগীর, এডভোকেট খায়রুল ইসলাম বেলাল, গাজী নিজাম, মনিরুল ইসলাম ইউসুফ, আজিজ আহম্মেদ চৌধুরী, মাঈন উদ্দিন লিটন, দিদারুর আলম মিয়াজী প্রমুখ।
উল্লেখ্য যে, এমকে আনোয়ার অনুষ্ঠানস্থলে পৌছার পরই বিএনপির দিদারুল আলম মিয়াজীর নেতৃত্বে রেজাউল, কামাল, রফিক, আবছার, শাহজাহান, রানা সহ একটি গ্রুপ অনুষ্ঠানে দফায় দফায় নুরুল আমিন গ্রুপের উপর হামলা চালিয়ে ব্যাপক বিশৃংখলা সৃষ্টি করে এসময় নুরুল আমিন গ্রপের সাথে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত ৫০ টি চেয়ার ভাংচুর ও কয়েকজন আহত ও হয়। এক পর্যায়ে শীর্ষ নেতাদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসে।