বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ১৫ আষাঢ় ১৪২৯খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

অবরোধ অব্যাহত রাখার আহ্বান খালেদার

khaleda1_204106
নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত অবরোধ কর্মসূচি অব্যাহত রাখার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দলের যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে খালেদা জিয়া এ আহবান জানান।অপরদিকে কাঙ্ক্ষিত ও যৌক্তিক পরিণতিতে না পৌঁছা পর্যন্ত সাময়িক কষ্ট স্বীকার করে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে পৃথক বিবৃতি দিয়েছে স্থায়ী কমিটি। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি বলা হয়, অবৈধ আওয়ামী সরকারের সীমাহীন নির্যাতন সত্ত্বেও সারাদেশে অবরোধ আন্দোলন সফল করার জন্য সকল স্তরের নেতাকর্মীদের অভিনন্দন জানানো হচ্ছে।

এতে বলা হয়, বিগত ২৪ ঘণ্টায় পুলিশ এবং সরকারের নিজস্ব গুন্ডাবাহিনী ২০ দলীয় জোটের ২জন কর্মীকে হত্যা করেছে। প্রায় আড়াই হাজার নেতাকর্মী আহত হয়েছে। অসংখ্য নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, ১২ জানুয়ারি সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আয়োজিত জনসভায় আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এবং বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে ব্যক্তিগতভাবে আক্রমণ করে নানা মিথ্যাচার করেছেন, তার এরূপ বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ এবং ভবিষ্যতে এ ধরনের বক্তব্য প্রদানে বিরত থাকার জন্য আহবান জানানো হচ্ছে।
 অপরদিকে সেলিমা রহমান স্বাক্ষরিত স্থায়ী কমিটির বিবৃতিতে বলা হয়, ‘ক্ষমতাসীনরা যেভাবে রক্ত ঝরিয়েছে, গুম করেছে, জাতীয় অর্থনীতির বিনাশ করেছে, সব প্রথা-প্রতিষ্ঠান ধ্বংস করেছে, লুণ্ঠন করেছে, মানুষকে নির্যাতন ও অপমান করেছে, তার অবসানকল্পে ধৈর্য ধরে সাময়িক কষ্ট স্বীকারের জন্য আমরা দেশবাসীর প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি। শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের মাধ্যমে উদ্ধত শাসকদের অস্ত্রের ভাষা ও ষড়যন্ত্র মোকাবিলায় দেশবাসী যত দ্রুত ঐক্যবদ্ধ হয়ে রাজপথে নামবেন, জনগণের বিজয় ততই ত্বরান্বিত হবে বলে আমরা দৃঢ়ভাবে আস্থাশীল।’বিবৃতিতে বলা হয়, পরবর্তী ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত অবরোধ চলবে।