Friday, December 6Welcome khabarica24 Online

সম্পাদকীয়

আগামী এমপি নির্বাচনে রুহেল ভাইকে রেকর্ড পরিমানে ভোটে বিজয়ী করবো ইনশাআল্লাহ : আলহাজ্ব মাষ্টার রেজাউল করিম

আগামী এমপি নির্বাচনে রুহেল ভাইকে রেকর্ড পরিমানে ভোটে বিজয়ী করবো ইনশাআল্লাহ : আলহাজ্ব মাষ্টার রেজাউল করিম

নিজস্ব প্রতিবেদক :: জোরারগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আসন্ন সম্মেলনে সাধারন সম্পাদক পদে ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের বিশ্বস্থ ও আস্থাভাজন একজন আলহাজ্ব মাষ্টার রেজাউল করিম । রেজাউল করিম মাষ্টার ছাত্রজীবন থেকে আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত রয়েছেন। বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারণ করে ও মীরসরাইয়ের মাটি-মানুষে র অকৃত্রিম বন্ধু বর্ষিয়ান রাজনীতিবিদ সাবেক সফল মন্ত্রী ইঞ্জিনি য়ার মোশাররফ হোসেনকে ভালোবেসে তাঁর নির্দেশনা অনুযায়ী রাজনীতি করে যাচ্ছেন। পদ পদবীর জন্য রাজনীতি করেননি। শুধু ভালোবেসে নিজেকে দলের জন্য উজাড় করে দিয়েছেন। ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের একান্ত আস্থাভাজন আলহাজ্ব করিম মাষ্টার এলাকার গরীব, অসহায়, দরিদ্র ও সমাজের অবহেলিত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন সব সময়। করিম মাষ্টারের কাছে গিয়ে কেউ খালি হাতে ফেরেনি। তাঁর সামথ্য অনুযায়ী সবাইকে সহযোগীতা করে যাচ্ছেন। এলাকার মানুষের কল্যানের জন্য পিতার নামে
রুহেল ভাই ও তৃণমূলের নেতাকর্মীদের জন্য বুকের রক্ত দিতে প্রস্তুত সদা :: বারইয়াহাটের সেক্রেটারী প্রার্থী মোশাররফ

রুহেল ভাই ও তৃণমূলের নেতাকর্মীদের জন্য বুকের রক্ত দিতে প্রস্তুত সদা :: বারইয়াহাটের সেক্রেটারী প্রার্থী মোশাররফ

  নিজস্ব প্রতিনিধি :: মীরসরাই উপজেলার বারইয়াহাট পৌরসভা আওয়ামীলীগের আসন্ন কাউন্সিলে সাধারন সম্পাদক প্রার্থী মোশাররফ হোসেন খবরিকাকে এক সাক্ষাৎকার প্রদানকালে বলেন তৃণমূলের সকল নেতাকর্মীর সুখে দুখে পাশে ছিলাম, আগামীতে ও সকলের পাশে থাকতে চাই।   চট্টগ্রামের সিটি কলেজ ছাত্রলীগ থেকে শুরু করে বারইয়াহাটের রাজপথে সবসময় প্রিয় নেতা ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের পরিক্ষিত সৈনিক হিসেবে লড়াই সংগ্রামে ছিলাম, আছি ও থাকবো। আগামীর নেতা মাহবুবুর রহমান রুহেলই এই মীরসরাই এর অভিবাবক তাঁর পাশে রাজপথে রক্ত দিতে আমরাই প্রস্তুত ছিলাম এবং থাকবো সবসময়। জনাব মোশাররফ বলেন আমার স্বপ্ন একটিই, ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের স্বপ্নের মীরসরাই গড়তে এই প্রিয় ব্যক্তিত্ব ও প্রিয় মানুষ রুহেল ভাই এর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে তৃণমূলের সবাইকে নিয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করা। মোশাররফ হোসেন বর্তমানে বারইয়াহাট পৌর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক
মীরসরাইয়ে চেয়ারম্যান ও নির্বাহী কর্মকর্তার সহযোগিতায় জ্বীনের হাত থেকে নিরাপদে পরিবারে ফিরে গেল সানজিদা

মীরসরাইয়ে চেয়ারম্যান ও নির্বাহী কর্মকর্তার সহযোগিতায় জ্বীনের হাত থেকে নিরাপদে পরিবারে ফিরে গেল সানজিদা

মাহবুব পলাশ :: মীরসরাই উপজেলায় জ্বীনের হাতে সকাল থেকে নিখোঁজ হয়ে পার্শ্বের ইউনিয়নে নিয়ে যাওয়া কোমলমতি ফুটফুটে কিশোরীটি অবশেষে ইউপি চেয়ারম্যান ও পরে নির্বাহী কর্মকর্তার   কাছে পৌছে সার্বিকভাবে নিরাপদভাবে অবশেষে রবিবার ( ১৩ অক্টোবর) রাত অবধি পরিবারের কাছে ফিরলো নিরাপদে। উপজেলার মায়ানী ইউপি চেয়ারম্যান কবির আহমদ নিজামী পেশাগত ভিন্ন কাজে গিয়েছিলাম আমি ও । তখন সময় বিকেল ৪টা। দিনের প্রচন্ত ব্যস্ততা কাটিয়ে মাত্র দুপুরের খাবার খাচ্ছিলেন চেয়ারম্যান সাহেব। এসময় পশ্চিম মায়ানির ইউপি সদস্য জানে আলম ১৪ বছরের এক কিশোরীকে চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে নিয়ে আসে। পশ্চিম মায়ানী গ্রামের শাহ আলম হুজুর তার বাড়ি থেকে উক্ত মেম্বারের কাছে কিশোরিকে হস্তান্তর করে। চেয়ারম্যান কবির নিজামী তার কার্যালয়ে গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে উক্ত কিশোরীর নাম পরিচয় জানতে চাইলে কিশোরী তার নাম জান্নাতুল ফেরদাউস মরিয়ম বলে জানায়। সে
কবিতা আর শোকগাঁথা আলোচনায় মীরসরাই প্রেস ক্লাবের শোক দিবস পালন

কবিতা আর শোকগাঁথা আলোচনায় মীরসরাই প্রেস ক্লাবের শোক দিবস পালন

নিজস্ব প্রতিনিধি :: কবিতা আর শোকগাঁথা আলোচনায় মীরসরাই প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে ১৫ আগষ্ট বঙ্গবন্ধুর ৪৪তম মৃত্যু বার্ষিকী ও শোকদিবস পালন করা হয়। বিকাল ৪টায় মীরসরাই পৌরসভা মার্কেটের ২য় তলায় প্রেস ক্লাব কার্যালয়ে উক্ত আলোচনা সভা প্রেস ক্লাবের সভাপতি কবি ও সাংবাদিক মাহবুবুর রহমান পলাশ এর সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সম্পাদক কবি ও সাংবাদিক রাজিব মজুমদারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয়। প্রতাপ বণিক রানা ও মাহবুব পলাশ এর শোকের পংক্তিমালা দিয়ে শুরু হওয়া উক্ত বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে আলোকপাত করেন অতিথী আলোচক বারইয়াহাট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাষ্টার এনামুল হক, মীরসরাই পৌরসভা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক জাফর ইকবাল, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আনোয়ার হোসেন সুজন। কবিতা আবৃত্তি সহ আলোচনা করেন যথাক্রমে কবি ও লেখক শাহাদাত হোসেন লিটন, আবুতোরাব প্রফেসর কামাল উদ্দিন চৌধুরী কলেজের প্র

৩০ ডিসেম্বরের মধ্যে কাজ করা না হলে জানুয়ারীতে বসুধার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা: দোকান মালিক সমিতি

খবরিকা রিপোর্ট :বসুধা বিল্ডার্স দোকান মালিক সমিতির ১৮তম সাধারণ সভা ২৩ নভেম্বর বিকালে ১৬ নং ষ্টেশন রোড বসুধা বিল্ডার্সে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন সমিতির সভাপতি রনজিত সরকার। তিনি বলেন, ৩০ ডিসেম্বরের মধ্যে সন্তোষজনক কাজ করা না হলে জানুয়ারীর প্রথম সপ্তাহে ৬৪ জেলায় বসুধার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা। তখন বসুধা বিল্ডার্স এর এমডিকে আর ঘুমাতে দেয়া হবে না। তিনি আরো বলেন, ‘২০০৯ সালে দোকান বুঝিয়ে দেয়ার কথা বললেও এখনো পর্যন্ত বসুধা বিল্ডার্স দোকান বুঝে না দেওয়ায় আমরা হতাশার মধ্যে দিনযাপন করছি।’ আপনি আমাদেরকে দোকান বুঝিয়ে দিতে না পারার কারণে সরকার রাজস্ব হারিয়েছে ৭ কোটি টাকা। তিনি আরো বলেন, বসুধা বিল্ডার্সের মালিক জব্বার বলেছিলেন রেলওয়ে সিটি সেন্টার আমার সন্তনের মত। আমি বলেছিলাম আপনি এ ধরনের সন্তানের জন্ম দেবেন না। আমরা সংগ্রাম করার জন্য দোকান ক্রয় করি নাই। আমরা দোকান ক্রয় করেছিলাম ব্যবসা করার জন্
ধর্ষণের বিরুদ্ধে জনতা রুখে দাঁড়াও

ধর্ষণের বিরুদ্ধে জনতা রুখে দাঁড়াও

বিশ্বের যাহা কিছুর সৃষ্টির চির কল্যানকর ,অর্ধেক তার আনিয়াছে নারী অর্ধেক তার নর। এতে বুঝা যায় মানব সভ্যতার ইতিহাস রচনা করতে গেলে পুরুষের পাশাপাশি নারীর অবধান কোন অংশে কম নয়। অথচ পুরুষতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থায় নারীরা হয়েছে নির্য়াতিত নিষ্পেষিত নিগৃহিত জিগাংসার বলি হয়েছে বার বার। তার সাম্প্রতিক প্রমাণ বগুড়ায় মা-মেয়ে নির্যাতনের ঘটনা মাথা ন্যাড়া করে দেয়ার উদাহরণ য়থেষ্ট। দেশে হঠাৎ ধর্ষণ বেড়ে গেছে। প্রতিদিনই অসংখ্য ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে। ক্লাসরুমে শিক্ষিকাকে ধর্ষণ,আর ধর্ষণ থেকে বাদ যাচ্ছে না ছোট বাচ্চারাও। গ্রামগঞ্জে, শহরে, রাস্তাঘাটে, ঘরেবাইরে, বাসে-লঞ্চে কোথাও নিরাপদ নয় নারীরা। ঘরে ঢুকে বাবা-মা কিংবা স্বামীকে বেঁধে রেখে ধর্ষণ, রাস্তা আটকিয়ে ভাইয়ের সঙ্গে পিঠমোড়া বেঁধে ধর্ষণ, বেড়াতে গেলে ফুঁসলিয়ে চকলেট দিয়ে বাচ্চাকে ধর্ষণ করা হচ্ছে। ধর্ষণের ঘটনা দিন দিন বেড়েই চলেছে। প্রতিকারের নেই কোনো উদ্যোগ।
করেরহাটে বিএনপির মাতৃভাষা দিবসের প্রভাতফেরী ও শ্রদ্ধাঞ্জলী

করেরহাটে বিএনপির মাতৃভাষা দিবসের প্রভাতফেরী ও শ্রদ্ধাঞ্জলী

নিজস্ব প্রতিনিধি :: মীরসরাই উপজেলার ১নং করেরহাট ইউনিয়ন বিএনপির উদ্যোগে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভা ও ফুলেল শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পন অনুষ্ঠান স্থানীয় বিএনপি যুবদল ও ছাত্রদলের যৌথ আয়োজনে সম্পন্ন হয়। ২১ ফেব্র“য়ারী মঙ্গলবার ভোরে প্রভাত ফেরী করে করেরহাট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠস্থ শহিদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পন শেষে শহীদ মিনার প্রাঙ্গনেরই এক স্মরণ সভা ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি সিরাজুল হক এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এসময় ভাষা শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে বক্তব্য রাখেন ইউনিয়ন বিএনপির সাধারন সম্পাদক বেলায়েত হোসেন সিরাজ, জাহাঙ্গির আলম, নাছির উদ্দিন, যুবদল সভাপতি আবু সাঈদ, রব্বানী, বাহার, তোবারক, খালেক ও শাহজাহান মাষ্টার প্রমুখ। আলোচনায় বক্তাগন দেশের স্বাধীন সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সরকারের প্রতি গনতন্ত্র চর্চার উদাত্ত আহ্বান জানান।
‘চাকরি খুঁজব না, চাকরি দেব’

‘চাকরি খুঁজব না, চাকরি দেব’

মুহম্মদ জাফর ইকবাল গত শনিবার আমাকে একটা অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। যিনি আমন্ত্রণ জানিয়েছেন তিনি বললেন, স্যার, আপনি নিশ্চিন্ত মনে আসতে পারেন। আপনাকে স্টেজে বসতে হবে না, বক্তৃতা শুনতে হবে না, বক্তৃতা দিতেও হবে না! যে অনুষ্ঠানে স্টেজে বসতে হয় না, বক্তৃতা শুনতে হয় না কিংবা বক্তৃতা দিতে হয় না সেটা দেখার আমার খুব আগ্রহ হলো। তাই শনিবার দিন সকাল বেলা আমি নির্দিষ্ট সময়ে নির্দিষ্ট জায়গায় গিয়ে হাজির হলাম। গিয়ে দেখি এটি একটি বৈশাখী হাট, তবে অন্য দশটা বৈশাখী হাট থেকে ভিন্ন, সেটে বড় বড় করে লেখা ‘বৈশাখী উদ্যোক্তা হাট’! আমি অনেক রকম হাট দেখেছি, আমাদের দেশে ছবির হাট আছে, গাড়ির হাটও আছে, আমস্টার্ডামে উল্কি (Tattoo) হাট দেখেছিলাম। কিন্তু কখনও উদ্যোক্তা হাট দেখিনি। এখানে দেখে আমি চমৎকৃত হলাম। আমি খুব আগ্রহ নিয়ে ভেতরে গেলাম। মনে পড়ল বছর খানেক আগে এই উৎসাহী কিছু তরুণ মিলেই উদ্যোক্তাদের একটা আন্দোলন