Saturday, December 7Welcome khabarica24 Online

বিনোদন

সামিনার তিন অ্যালবামের ব্যস্ততা

সামিনার তিন অ্যালবামের ব্যস্ততা

অনলাইন ডেস্ক : ঢাকা: কণ্ঠশিল্পী সামিনা চৌধুরীর শুরুটা ১৯৮৭ সালে।  ওই বছর সামিনার প্রথম একক অ্যালবাম ‘শৈশবের দিনগুলি’ বাজারে আসে। এরপর তাকে আর পেছনে তাকাতে হয়নি। প্লেব্যাকে যেমন নিজেকে উজাড় করে দিয়েছেন, তেমনি নিজের একক অ্যালবামেও ঢেলে দিয়েছেন নিজের সব কণ্ঠসুধা। গত ঈদে বাজারে আসে সামিনা চৌধুরীর ১৫তম একক অ্যালবাম ‘চলো বাঁচি’। জুলফিকার রাসেলের কথায় এ অ্যালবামে সুর ও সংগীতায়োজন করেছেন নকীব খান, পিলু খান, জয় সরকার, রূপঙ্কর বাগচী, ইন্দ্রজিৎ দে ও তমাল চক্রবর্তী। নিজের ১৫তম একক অ্যালবামের এই ব্যাপক সাফল্যে উচ্ছ্বসিত হয়ে সামিনা চৌধুরী খুব শিগগিরই নতুন তিনটি অ্যালবাম শ্রোতাদের হাতে তুলে দেয়ার ঘোষণা দিলেন। ভালোবাসা দিবসে শ্রোতাদের হাতে তুলে দেবেন মো. আবদুল বারীর কথা ও সুরে ভালোবাসার গানের অ্যালবাম ‘পুষ্প বৃষ্টি’। এই অ্যালবামে দশটি গান থাকবে। একটি গানে দ্বৈত কণ্ঠে গেয়েছেন বাপ্পা মজুমদার
আহনাফকে বাঁচনোর অসম্ভব লড়াইয়ে অনন্ত

আহনাফকে বাঁচনোর অসম্ভব লড়াইয়ে অনন্ত

অনলাইন ডেস্ক : ঢাকা: বিজ্ঞাপনের ভাষার মতো বাস্তবেও অসম্ভবকে সম্ভব করতে চান সময়ের আলোচিত অভিনেতা ও নিমার্তা অনন্ত। আর তাই ফেসবুকে কিছু ছেলেমেয়ে যখন ক্যান্সারে আক্রান্ত সহপাঠী আনহাফকে বাঁচানোর অসম্ভব চেষ্টায় ব্যস্ত, ঠিক তখনই তাদের পাশে গিয়ে দাড়াঁন অনন্ত জলিল। বাড়িয়ে দেন সহযোগীতার হাত। চলচ্চিত্রে আর্বিভাবের অনেক আগে থেকেই মানুষের পাশে দাঁড়ানো অভ্যাস অনন্তের। আর তাই নিজের পকেটের টাকায় চালান এতিমখানা আর বৃদ্ধাশ্রম। কিন্তু যখন বাংলা চলচ্চিত্রকে বাঁচানোর শপথ নিলেন, ঠিক তখনই অসুস্থ অভিনেতা আনোয়ার হোসেনের জন্য কেঁদে উঠে তার মন। পাশে দাড়াঁলেন আনোয়ার হোসেনের। কিন্তু শেষ রক্ষা হলো না। আর তাই এবার শুরু করলেন নতুন মিশন। ঘটনার সবটুকু জানতে হলে যেতে হবে আহনাফের কাছে। ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল মডেল কলেজের একাদশ শ্রেণীর মেধাবী ছাত্র নূর এ শাফি আহনাফ। ছোট বেলা থেকেই মেধাবী আহনাফ জেএসসি ও এসএসসিতে পেয়েছেন
মুশফিকের বিয়ে!

মুশফিকের বিয়ে!

নিজস্ব প্রতিনিধি বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহীমের বাগদান সম্পন্ন হয়েছে,  শনিবার ঢাকায় এই কাজটি সম্পন্ন করেছেন তিনি। শোনা গেছে, জাতীয় দলের সহ অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের শালী মুশফিকের হবু বধু। হবু স্ত্রীর নাম জান্নাতুল কিফায়েত মন্ডি।
‘যায় শপিংয়ে এসে বলে শো করে এসেছি!’

‘যায় শপিংয়ে এসে বলে শো করে এসেছি!’

মাহমুদ মানজুর: প্রথমবারের মতো পাশের দেশ ভারতে যাচ্ছেন আঁখি আলমগীর! কথাটা বিস্মিত হওয়ার মতোই। এটা কি করে সম্ভব? যেখানে আমাদের ছোট-বড় তারকা থেকে শুরু করে আমজনতারা এখন হাঁচি-কাশি দিতে হলেও ভারতে ভোঁ দৌড় দেন যখন-তখন। তার ওপর ইদানীং চলতি প্রজন্মের কণ্ঠশিল্পীরা তো কলকাতায় আসা-যাওয়া করছেন সপ্তাহান্তে। অনেকটা ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়ি যাওয়ার মতোই দাঁড়িয়েছে বিষয়টা। কেউ সেখান থেকে অ্যালবাম বের করছেন, কেউ গাঁটের পয়সা খরচ করে কলকাতার মনোরম (!) লোকেশনে মিউজিক ভিডিও বানাচ্ছেন, আবার কেউবা কলকাতার শিল্পীদের সঙ্গে দু-একটা গান করে-ছবি তুলে ফেসবুকে এ আর রাহমান কিংবা সনু নিগম-শ্রেয়া ঘোষালের ফিল নিচ্ছেন। আফসোসের বিষয় হচ্ছে, চলতি সময়ের সংগীত শিল্পীদের কথায়-কাজে এই কলকাতা প্রীতির পুরোটাই একপক্ষ। ঠোটকাটা আঁখি এ প্রসঙ্গে বলেন, ওরা আমাদের গান শুনতে পায় না। কারণ, শোনার মতো কোন স্বাভাবিক অপশন নেই। আমাদের টিভি চ্য