Saturday, September 22Welcome khabarica24 Online

খবরিকাকাগজ

করেরহাটে ‘প্রজন্ম-১২’ এর ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট উদ্বোধন

করেরহাটে ‘প্রজন্ম-১২’ এর ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট উদ্বোধন

নিজস্ব প্রতিনিধি :: মীরসরাই উপজেলার উদীয়মান সংগঠন উপজেলার ১নং করেরহাট ইউনিয়নস্থ ‘প্রজন্ম ১২’ এর উদ্যোগে শনিবার ( ১৬ ডিসেম্বর) এক ব্যাডমিন্টন টুর্ণামেন্ট এর উদ্বোধন করেন করেরহাটস্থ ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এনায়েত হোসেন নয়ন। বিশেষ অতিথী ছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি জসিম উদ্দিন ও সাধারন সম্পাদক শেখ সেলিম। সংগঠনের সভাপতি শাহীনুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে এবং কামরুল ইসলাম ও সুমন এর সঞ্চালনায় রবিবার ( ১৭ ডিসেম্বর) ২য় দিনের টুর্ণামেন্টে প্রধান অতিথী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক আজাদী প্রতিনিধি মীরসরাই প্রেস ক্লাব এর সভাপতি মাহবুবুর রহমান পলাশ, বিশেষ অতিথী হিসেবে উপাস্থত ছিলেন কমফোর্ট হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মানবাধিকার নেতা নিজাম উদ্দিন, বারইয়াহাটস্থ নির্বান সংঘের সভাপতি তানভীর আহমেদ। এছাড়া আরো বক্তব্য রাখেন বাবলু, নাজমুল হোসেন, মোহান, এমদাদ, মোমিন প্রমুখ। এসময় বক্ত
৫০০ উইকেট শিকারী অ্যান্ডারসন

৫০০ উইকেট শিকারী অ্যান্ডারসন

স্পোর্টস ডেস্ক :মাইলফলক স্পর্শ করতে প্রয়োজন আর মাত্র একটি উইকেট। সেই গৌরবময় উইকেটের শিকার কে হবেন? এমনই যখন জ্বল্পনা-কল্পনা চলছিল লর্ডসজুড়ে, তখনই আবির্ভুত হয়ে গেলেন জেমস অ্যান্ডারসন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের দ্বিতীয় ইনিংসে নিজের দ্বিতীয় ওভারের শেষ বলেই শিকারটা সেরে ফেললেন ইংলিশ এই পেসার। দারুণ এক ইন সুইংগারে ক্রেইগ ব্র্যাফেটের মিডল স্ট্যাম্প উপড়েই উল্লাসে মেতে ওঠেন অ্যান্ডারসন। গ্যালারিতে তখন যেন কোরাস চলছিল, ‘ওহ! জিমি, জিমি!!’ প্রথম ইংলিশ বোলার হিসেবে ৫০০তম উইকেটের মাইলফলক স্পর্শ করে ফেললেন ইংলিশ এই পেসার। শুধুমাত্র প্রথম ইংলিশই নয়, ৫০০ কিংবা এর বেশি উইকেট নেয়ার গৌরব লেখা হয়েছে অ্যান্ডারসনসহ শুধুমাত্র ৬ জনের নামের পাশে। অ্যান্ডারসন এই ক্লাবে নতুন সদস্য, ৬ষ্ঠতম। আবার পেস বোলার হিসেবে এই ক্লাবে তিনি তৃতীয়। নাম লেখালেন গ্লেন ম্যাকগ্রা, কোর্টনি ওয়ালশের সঙ্গে।  ৮০০ উইকেট নিয়ে সবার ওপরে ব
মিরসরাই পৌর বিএনপির ওয়ার্ড সম্মেলন

মিরসরাই পৌর বিএনপির ওয়ার্ড সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিনিধি :  বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল মীরসরাই পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ড কমিটি গঠন কল্পে আহবায়ক কমিটির প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয় । এতে  সভাপতিত্ব করেন পৌর বি.এন.পির আহবায়ক জনাব ফকির আহম্মদ। সভা পরিচালনা করেন সিনিয়র যুগ্ন আহবায়ক জনাব রফিকুল ইসলাম পারভেজ। এতে বক্তব্য রাখেন পৌরসভার নবগঠিত আহবায়ক কমিটির উপদেষ্ঠা জনাব অধ্যক্ষ আতিকুল ইসলাম লতিফি, জনাব আবুল হাসেম, নাছির উদ্দীন, মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আবছার এবং যুগ্ন আহবায়কবৃন্দ যথাক্রমে জনাব জামশেদ আলম , শেখ জসীম উদ্দীন, আবুল খায়ের, আলমগীর হোসেন, জাহেদুল ইসলাম। সভায় সর্বসস্মতিক্রমে পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ড নেতৃবৃন্দ সকলের বক্তব্যে গনতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় ভোটের মাধ্যমে কমিটির পক্ষে মত প্রকাশ করেন। সকলের নির্দেশন মোতাবেক আহবায়ক ফকির আহাম্মদ গনতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় কমিটি গঠনের বিষয়ে একমত প্রকাশ করেন।

সাংবাদিক নুরুল ইসলাম ও রিয়াজের স্মরণসভা অনুষ্ঠিত

শরিফ উদ্দিন শিবলু ঃ দৈনিক জনকন্ঠ মীরসরাই প্রতিনিধি ফখরুল ইসলাম রিয়াজ এর ২য় মৃত্যুবার্ষিকী ও সদ্য প্রয়াত চট্টগ্রাম প্রেসকাবের সাবেক প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, ভাষা সৈনিক ও সাপ্তহিক প্রহর সম্পাদক প্রবীণ সাংবাদিক নুরুল ইসলামের স্মরণে ১৫ আগষ্ট বিকাল ৪টায় মীরসরাই সাংবাদিক সমিতি ও স্থানীয় পাকি খবরিকার উদ্যোগে খবরিকার কার্যালয়ে সাংবাদিক সমিতির সভাপতি নীরদ বরণ মন্ডলের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান পলাশের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয়। স্মরণ সভায় বক্তব্য প্রদান করেন দৈনিক সংবাদ প্রতিনিধি রণজিত ধর, দৈনিক ইনকিলাব প্রতিনিধি আমিনুল হক, দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিনের মধ্যপ্রাচ্য প্রতিনিধি কামরুল হাসান জনি, দৈনিক জনকণ্ঠ প্রতিনিধি রাজিব মজুমদার , দৈনিক কর্ণফুলি প্রতিনিধি আনোয়ারুল হক নিজামী , দৈনিক জনতা প্রতিনিধি শরীফ উদ্দিন শিবলু , দৈনিক মানবকণ্ঠ প্রতিনিধি নাসির উদ্দিন , পাকি খবরিকার সহ-সম্পাদক ওমর ফারুক ইমন ও
খবরিকা ১৬৯ তম সংখ্যার সকল কবিতা সমূহ

খবরিকা ১৬৯ তম সংখ্যার সকল কবিতা সমূহ

  মর্ত্য প্রাচ্য দিবা খুব কমই উন্মুক্ত হয় স্বর্গ সিংহদ্বার! চব্বিশ ঘন্টাই থাকে নরকে প্রবেশাধিকার! কোনো এক মহাপ্রলয়ে- হল স্বর্গনরক একাকার! দেখা দিলো জন্ম-মৃত্যু-ভালোবাসা, দুঃখ-জ্বরা এবং তাদের বংশধরেরা- মহাকাল ঘনীভূত মুহূর্তড়্গণে, দ্বি-অসিত্মত্ব, শানিত্মতে রণে- মানুষই পারে করতে আলাদা; নরক সয়েও স্বর্গ ভ্রমনে! এ পৃথ্বিীই আজ স্বর্গভূমি নারকীয়তার নকশী জমি; দেব-দানবে লড়ে একই দেহমাঝে- সুর-অসুরেরা রাষ্ট্রে-সমাজে! মানুষই পারে মিলিতে-মেলাতে বস'-শক্তি যেমন একসাথে; একটু যদি দেখো আঁখি মেলে যে হৃদয়ে ভলোবাসা খেলে; সবাই তেমনি চায় ভালোবাসা, যেমনি তুমিও করো পাবার আশা; তুমিও যদি আজ সবারে, ভালোবাসো ভুলে এ সংসারে- পৃথিবীই হবে আজ এখুনি- মর্ত্যেই সেরা স্বর্গভূমি!!   বিদ্যালয়ের রীতি মোমেনা আক্তার আবুতোরাব উচ্চ বিদ্যালয় দশম শ্রেণি বিদ্যালয়ে যাই আমরা সকাল ১০টায়। ছুটি হ
একমাত্র সনত্মান

একমাত্র সনত্মান

॥ মনির হোসেন সাগর ॥ রাসেল, শুভ, রিয়াজ এবং রনি। ওরা চারজন অনেক ভালো বন্ধু। ওরা একই সাথে পড়াশুনা করে। যদিও সবাই পড়ালেখায় ভালো, তবুও রনি সবচেয়ে ভালো। ও ক্লাসে সবসময় আসে এবং পড়াশুনাও ঠিকভাবে শেষ করে। রাসেল, শুভ ও রিয়াজ ঠিকভাবে স্কুলে আসেনা। তারপরও পড়াশুনায় ওরা ভালো। ওরা ঠিক মতো ক্লাস না করলেও রনি কখনোই ক্লাস ফাঁকি দিত না। কারণ তার বাবা-মা সবসময় তার খেয়াল রাখে। কারণ তাঁদের একটি মাত্র সন-ান রনি। সেজন্য তাঁদের ইচ্ছা ছেলেকে ডাক্তার বানাবেন। মা-বাবার স্বপ্ন পূরণ করতে রনি বিজ্ঞান বিভাগ নিয়ে পড়াশুনা করতে থাকে। তার বাবার স্বপ্ন রনি ডাক্তার হয়ে গরীব-দুঃখী মানুষের সেবা করবে। সেজন্য তার বাবা তাকে ভালোভাবে পড়াশুনা করতে উপদেশ দেন। সেও বাবা-মার স্বপ্ন বাস-বায়ন করতে ভালোভাবে পড়াশুনা করতে থাকে। একদিন তারা চার বন্ধুসহ আরো কয়েকজন ক্রিকেট খেলছে। হঠাৎ সবাই খেলা বন্ধ করে রাসেলের কথা শুনতে ওর কাছাকাছি চলে
বঞ্চিত জনতার বাঞ্চিত করণীয়

বঞ্চিত জনতার বাঞ্চিত করণীয়

মঈন উদ্দিন আহমদ চৌধুরী (সেলিম) শোষিত-বঞ্চিত মানুষ অপ্রাপ্তির যন্ত্রনায় কাতর, অভাব অনটন এর নির্মম কষাঘাতে ধরাশায়ী, মানবতা এবং মানবিক মূল্যবোধ ও মনুষ্যত্ব জীবনালয়কে চরম দূর্বিসহ করে ফেলে ঠিক তখনও মানুষ আশার বাণী শুনতে চান। নিরাশার অন্ধকার থেকে পরিত্রানের উপায় সন্ধানের নিরন-র চেষ্টায় অবিচল থাকে। শত যাতনা সহ্য করেও ঘুরে দাঁড়ানোর মহাপ্রয়াসে মানুষ নামীয় ভাগ্য বিধাতাদের উপর আস'া-বিশ্বাস রাখেন মানবেতর জীবন যাপনকারী মানুষেরা। দুঃখ-কষ্টে ভারাক্রান- অথচ স্বপ্নচারী মানুষেরা ভাগ্য পরিবর্তনের স্বপ্ন থেকে কখনও বিচ্যুত হয় না। এটাই বাঙ্গালীপনার চিরন-ন রীতি ও কাঙ্ক্ষিত প্রত্যাশা। শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনে অবহেলিত আত্মপ্রত্যয়ী মানুষেরা সঙ্গত যৌক্তিকতায় বরাবরই বিশ্বাস স'াপন করেন ক্ষমতাসীনদের উপর। এমনতর ধারাবাহিকতায় স্বাধীন জাতির অংশ বিশেষ হিসেবে সর্বস-রের বঞ্চিত মীরসরাইবাসীও হতাশায় বিপন্ন শেষ ভরসাটুকু জাগিয়ে রাখতে
রিয়াজকে নিয়ে কিছু কথা

রিয়াজকে নিয়ে কিছু কথা

॥ রণজিত ধর ॥ ‘ফখরুল ইসলাম রিয়াজ’ মীরসরাইয়ের একটি দুখের নাম, একটি শোকের নাম। একটি হৃদয় নিংড়ানো বেদনা বিধুর নাম। এ নামটি মীরসরাই সাংবাদিক মহল সর্বস-রের সাধারণ মানুষ তার সহকর্মী ও সহপাঠীদের বহুদিন পর্যন- শোকের নাম হিসেবে হৃদয়ে একটি স'ান করে নিয়েছে। এ নামটি কিছুতেই ভোলার নয়। গত ২০১২ সালে ১৫ আগস্ট একটি ঘাতক ট্রাক তাকে চাপা দিয়ে অকালে ঝরিয়ে দিয়েছে সম্ভাবনাময় একজন সংবাদকর্মীর জীবন। অল্পবয়সেই তিনি মিরসরাইয়ের সর্বমহলে একটি ভালো অবস'ানে পৌঁছে গিয়েছিলেন। এখনো তার চেহারা সবার চোখে জ্বলজ্বল করে ভাসছে। কিছু কিছু মৃত্যু মেনে নেওয়া যায়। কিন' রিয়াজের মতো মৃত্যুাগুলো কিছুতেই মেনে নেয়া যায় না। যদিও বলা হয়-‘জন্মিলে মরিতে হবে, অমর কে কোথা রবে’ কিন' এর মাঝেও একটি কথা থাকে পৃথিবীতে। তবুও মনে পড়ে যায়। পৃথিবীতে সবচাইতে বেদনার বিষয় হলো প্রিয়জনকে হারানো। যেদিন পৃথিবীতে কোন জীব জন্ম নিয়ে থাকে সেদিন থেকে মৃত্যু