Thursday, November 15Welcome khabarica24 Online

অর্থ-বাণিজ্য

অর্থ চুরির ঘটনায় বাংলাদেশ ব্যাংকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

রিজার্ভের অর্থ চুরির ঘটনায় বাংলাদেশ ব্যাংকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। আজ সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন। ভারতের হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলার সঙ্গে বৈঠকের পর অর্থমন্ত্রী বলেন, বিষয়টা দুই মাস আগে ঘটলেও আমাকে জানানো হয়নি। এটি বাংলাদেশ ব্যাংকের এক ধরনের ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ। পুরো বিষয়টি নিয়ে আমি খুবই অখুশি। তিনি বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা অদক্ষ ব্যবস্থাপনার পরিচয় দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করে শিগগিরই একটি বিবৃতি দেব। এদিকে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব ড. এম আসলাম আলম আজ বাংলাদেশ ব্যাংক পরিদর্শন করেন। এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আজই অর্থচুরির বিষয়ে অর্থ মন্ত্রণালয় আনুষ্ঠানিকভাবে জেনেছে। এ ঘটনায় এখনও আনুষ্ঠানিক কোন তদন্ত কমিটি করা হয়নি বলে জানান তিনি। এসময় বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্ণর আবু হ

এক জোড়া মুরগির দাম ২ লাখ টাকা

একটা মুরগির নাম ড্রাগন। ভাতেই অবাক লাগে একটা মুরগি তাও আবার নাম ড্রাগন। শরীরে লোমও তুলণামূলক কম, দেখলে মনে হবে পায়ে যেন গোদ রোগ, অনেকটা বয়সকাতুরে ভাব ভারী পায়ের কারণে নিজের ডিম থেকে ঠিকমতো বাচ্চা ফোটাতেও অপারগ। কথা হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে দামি ও কুৎসিত চেহারার মুরগিকে নিয়ে। ভিয়েতনামের ড্রাগন মুরগিকে এখন বলা হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে দামি মুরগি। এর আগে ইন্দোনেশিয়ার আয়াম চেমানি নোমের এক জাতের কালো রঙের মুরগিকে বলা হতো সবচেয়ে দামি। এক জোড়া ড্রাগন মুরগির দাম ১,৬০০ পাউন্ড অর্থাৎ, বাংলাদেশের হিসাবে ১ লাখ ৯৬ হাজার ৮৬৫.৮৫ টাকা। এত দাম হওয়ার আরেকটা কারণ হলো ড্রাগন মুরগির বংশ বিস্তার খুবই কঠিন ব্যাপার, ফলে মাংসের সরবরাহও কম। আর মাংস সুস্বাদুও বটে। হ্যানয় থেকে প্রায় ২০ মাইল দূরে হাং ইয়েন প্রদেশের খোয়াই শাউ জেলা থেকে ড্রাগন মুরগি নিয়ে সাধারণত বিভিন্ন রেস্তোরাঁতে ধনীদের জন্য রান্না করা হয়। এদের ওজন
জুলাই মাসে রেমিটেন্স আয় ১৩৮ কোটি টাকা

জুলাই মাসে রেমিটেন্স আয় ১৩৮ কোটি টাকা

চলতি ২০১৫-১৬ অর্থবছরের প্রথম এক মাসে (জুলাই) প্রবাসীরা ১৩৮ কোটি ৭০ লাখ মার্কিন ডলারের রেমিটেন্স দেশে পাঠিয়েছেন। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।বাংলাদেশ ব্যাংকের হিসাব মতে, একক মাস হিসেবে গত জুলাই মাসে প্রবাসীরা ব্যাংকিং চ্যানেলে ১৩৮ কোটি ৭০ লাখ ডলারের সমপরিমাণ অর্থ দেশে পাঠিয়েছেন। ২০১৪ সালের জুলাইয়ে এর পরিমাণ ছিল ১৪৯ কোটি ২৪ লাখ ডলার।জুলাই মাসে রাষ্ট্রীয় মালিকানার বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে রেমিটেন্স এসেছে ৪১ কোটি ৩৬ লাখ ডলার। বিশেষায়িত খাতের বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের মাধ্যমে আসা রেমিটেন্সের পরিমাণ এক কোটি ৭৪ লাখ ডলার। দেশীয় মালিকানাধীন বেসরকারি খাতের ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ৯৪ কোটি ডলার। আর বিদেশী মালিকানার মাধ্যমে আসা রেমিটেন্সের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে এক কোটি ৫০ লাখ ডলার। -বাসস চলতি ২০১৫-১৬ অর্থবছরের প্রথম এক মাসে (জুলাই) প্রবাসীরা ১৩৮ কোটি ৭০ লাখ মার্কি
লেনদেন বাড়লেও সূচক কমেছে পুঁজিবাজারে

লেনদেন বাড়লেও সূচক কমেছে পুঁজিবাজারে

সপ্তাহের চতুর্থ দিনে বাংলাদেশের দুই পুঁজিবাজারে সূচক বাড়লেও কমেছে লেনদেন,বুধবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সার্বিক সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের চেয়ে ৪৮ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ১৭ পয়েন্ট হয়েছে।ডিএসইতে এদিন হাতবদল হয়েছে ৭৪৪ কোটি টাকার শেয়ার, যা আগের দিনের চেয়ে ৬৩ কোটি টাকা বেশি।চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএসইএক্স এদিন ৭৮ পয়েন্ট কমে হয়েছে ৯ হাজার ৪২৭ পয়েন্ট।এ বাজারে লেনদেন  বেড়েছে ৪ কেটি টাকা; হাতবদল হয়েছে ৫৯ কোটি টাকার শেয়ার।বুধবার ডিএসইতে লেনদেন হওয়া বিভিন্ন কোম্পানির শেয়ারের মধ্যে ১১১টির দাম বেড়েছে; কমেছে ১৫৯টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৮টি কোম্পানির শেয়ারের দাম।গত সপ্তাহ শেষে ডিএসইতে সূচক বেড়েছিল ১৯ পয়েন্ট, দৈনিক গড়ে লেনদেন হয়েছিল ৫৫৪ কোটি টাকা। আর সিএসইতে সূচক বেড়েছিল ২৩ পয়েন্ট ও দৈনিক গড়ে লেনদেন হয়েছিল ৪১ কোটি টাকা
রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণের উদ্যোগ

রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণের উদ্যোগ

আওয়ামী লীগের এম আবদুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ সংসদে জানিয়েছেন, আগামী রমজানের আগে দ্রব্যমূল্য জনসাধারণের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রাখার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। টিসিবির মাধ্যমে ইতিমধ্যে কিছু পণ্য মজুদ করা হয়েছে। কিছু পণ্য সংগ্রহের অপেক্ষায় আছে। ওই সব পণ্যের মধ্যে রয়েছে চিনি, মসুর ডাল, ভোজ্যতেল, ছোলা ও খেজুর।আওয়ামী লীগের খন্দকার আজিজুল হক আরজুর প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, বিদেশ থেকে (পরিশোধিত-অপরিশোধিত) চিনি আমদানি করা হয়। বর্তমানে চিনির বার্ষিক চাহিদা রয়েছে ১৪ লাখ মেট্রিক টন। এরমধ্যে নিজস্ব কাঁচামাল দ্বারা চিনির উৎপাদন হয় মাত্র ১ দশমিক ১৮ লাখ মেট্রিক টন।
পুঁজিবাজারে সূচক কমলেও বেড়েছে লেনদেন

পুঁজিবাজারে সূচক কমলেও বেড়েছে লেনদেন

সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবস বুধবার ডিএসই ও সিএসইতে সূচক কমলেও বেড়েছে লেনদেন। এদিন ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের চেয়ে ৩৫ পয়েন্ট কমে চার হাজার ৫১৯ পয়েন্টে অবস্থান করছে।ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩৩৮ কোটি চার লাখ ৭৯ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট, যা আগের কার্যদিবসের চেয়ে ১৬ কোটি টাকা বেশি।ডিএসইতে লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে দাম বেড়েছে ৬১টির, কমেছে ২০৮টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৯টি কোম্পানির শেয়ারের দাম।ডিএসইর ওয়েবসাইট সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়। বুধবার লেনদেনের ভিত্তিতে (টাকায়) শীর্ষ ১০টি কোম্পানি হলো এমারেল্ড অয়েল, স্কয়ার ফার্মা, বিএসসি, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, পদ্মা অয়েল, অলিম্পিক ইন্ডা., মেঘনা পেট্রোলিয়াম, গ্রামীণফোন, বিএসসিসিএল ও ইউসিবিএল।অন্যদিকে বুধবার সিএসইতে সাধারণ সূচক ৬৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে আট হাজার ৭৮৫ পয়েন্টে। লেনদেন হয়েছে ৩৭ কোটি ৮৭ লাখ ৫০ হাজার টাকার শেয়ার
দেশের বাজারে সোনার দাম বাড়িয়েছে বাজুস

দেশের বাজারে সোনার দাম বাড়িয়েছে বাজুস

  দেশের বাজারে সোনার দাম বাড়িয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। প্রতি ভরি ভালো মানের সোনার দাম সর্বোচ্চ এক হাজার ৪৫৮ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। এতে প্রতি ভরির দাম দাঁড়িয়েছে ৪৮ হাজার ৪০৫ টাকা। এ ছাড়া রুপার দাম ভরিতে ৫৯ টাকা বেড়ে হয়েছে এক হাজার ২৮৩ টাকা। সোনার দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্তটি রবিবার থেকে কার্যকর হয়েছে। বাজুসের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যদের সম্মতিক্রমে এ সিদ্ধান্ত হয়। সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান আমিনুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিষয়টি জানায় জুয়েলার্স সমিতি।নতুন দর অনুযায়ী, প্রতি ভরি (১১.৬৬৪ গ্রাম) ভালো মানের অর্থাৎ ২২ ক্যারেট সোনা ৪৮ হাজার ৪০৫ টাকা, ২১ ক্যারেট ৪৬ হাজার ২৪৭ টাকা এবং ১৮ ক্যারেটের দাম হয়েছে ৩৯ হাজার ৬৫৭ টাকা। এ ছাড়া সনাতন পদ্ধতির সোনার দাম বেড়ে ২৭ হাজার ৪১০ টাকা ভরি হয়েছে। পাশাপাশি প্রতি ভরি ২১ ক্যারেট (ক্যাডমিয়াম) রুপার দাম ৫৯ টাকা বৃদ্ধি পেয়ে হয়ে
প্রাইজবন্ড ড্র: প্রথম পুরস্কার ০৭৭০৬৩২ নম্বরের সিরিজ

প্রাইজবন্ড ড্র: প্রথম পুরস্কার ০৭৭০৬৩২ নম্বরের সিরিজ

১০০ টাকা মূল্যমানের প্রাইজবন্ডের ৭৪তম ড্র অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার প্রাইজবন্ড ড্র কমিটি সচিব ও মহাব্যবস্থাপক মো.সাইফুল ইসলাম স্বাক্ষরিত  প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।ঢাকা বিভাগের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) সৌরেন্দ্র নাথ চক্রবর্তী সভাপতিত্বে কমিশন অফিসের সম্মেলন কক্ষে এ ড্র অনুষ্ঠিত হয়। এতে ছয় লাখ টাকার প্রথম পুরস্কার পেয়েছে ০৭৭০৬৩২ নম্বরের সিরিজ, তিন লাখ ২৫ হাজার টাকার দ্বিতীয় পুরস্কার পেয়েছে ০০৭১১৬৬ নম্বরের সিরিজ এবং এক লাখ টাকার তৃতীয় পুরস্কার পেয়েছে ০৯৩৩২৩১ ও ০৯৫৩৯৮৯ নম্বর।একক সাধারণ পদ্ধতিতে (প্রত্যেক সিরিজের জন্য একই নম্বর) এ ‘ড্র’ পরিচালিত হয়। ১০০ টাকা মূল্যমানের ৩৯টি সিরিজ যথা: কক, কখ, কগ, কঘ, কঙ, কচ, কছ, কজ, কঝ, কঞ, কট, কঠ, কড, কঢ, কথ, কদ, কন, কপ, কফ, কব, কম, কল, কশ, কষ, কস, কহ, খক, খখ, খগ, খঘ, খঙ, খচ, খছ, খজ, খঝ, খঞ , খট  খঠ এবং খড এ ড্রয়ের আওতাভুক্ত। এ সিরিজগুল