Thursday, November 15Welcome khabarica24 Online

২২ বছর আগে এই দিনেই…

ঢাকাই চলচ্চিত্রের তারকা দম্পতি ওমর সানি-মৌসুমী। আজ তাদের বিবাহবার্ষিকী। ২২ বছর আগে ১৯৯৫ সালের এই দিনেই ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন তারা। বর্তমানে তাদের একমাত্র পুত্র ফারদিন ও কন্যা ফাইজাকে নিয়ে সুখের সংসার।

অনেকের ধারণা, তারকাদের সংসার টিকে না। তাদের সংসারে ডিভোর্স বাধ্যতামূলক। এমন চিন্তাধারার মানুষদের জন্য ওমর সানি-মৌসুমী এক জলন্ত উদাহরণ। বিয়ের পর এক এক করে তারা আজ ২২ বছর পার করেছেন। একসাথে তাদের এই পথচলা নতুনদের জন্য অনুপ্রেরণা।

অভিনয়ে মৌসুমী যেমন প্রেমিকা, স্ত্রী, বোন কিংবা মায়ের চরিত্রে নিজেকে ফুটিয়ে তুলেন, তেমনি বাস্তব জীবনেও তিনি ওমর সানির প্রিয়তমা। সেটা মৌসুমীকে নিয়ে ওমর সানির বিভিন্ন মতবাদ কিংবা ফেসবুক স্ট্যাটাস দেখলেই বুঝা যায়। শুধু প্রিয়তমা নয়, মৌসুমী তার সন্তানদের আদর্শ মা’ও বটে। স্বামী, সন্তান, সংসার নিয়ে মৌসুমীর সুখের স্বর্গ।

বিবাহবার্ষিকী উপলক্ষে ওমর সানী তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেছেন, ‘আজ আমাদের বিবাহবার্ষিকী। আপনাদের সবার কাছে মহামূল্যবান একটি উপহার আশা করছি, সেটি হলো দোয়া। আপনারা সবাই আমাদের ও আমার পরিবারের সবার জন্য মহান আল্লাহর কাছে দোয়া করবেন। মহান আল্লাহ যেন আমাদের সুখে, শান্তিতে ও সুস্থ রাখে।’

তিনি আরো লিখেছেন, ‘আমার দুটি সন্তান ফারদিন ও ফাইজা ওদের জন্য দোয়া চাই আপনাদের কাছে, মহান আল্লাহ যেন ওদের মানুষের মতো মানুষ করে ও সুস্থ রাখে। আপনারা সবাই ভালো থাকবেন। মহান আল্লাহ যেন আপনাদের সবাইকে সুস্থ ও শান্তিতে রাখে।’

অন্যদিকে মৌসুমী বলেন, ‘আমার জীবনে সানীর ভূমিকা কী এটা যদি অল্প কথায় বলতে হয়, তাহলে খুব অবিচার করা হয়ে যায়। তারপরও বলতে হয়, আমার সুন্দর এই জীবনের জন্য কৃতজ্ঞ আল্লাহর কাছে, আমার বাবা-মায়ের কাছে, তারপরই সানীর কাছে। বিশেষ করে আমার বাবার মৃত্যুর পর সানী আমাদের পুরো পরিবারে যে ভূমিকা রেখে আসছে তার কোনো তুলনাই হয় না। আমাদের ভাই নেই, ভাইয়ের অভাবও পূরণ করেছে সানী। সংসার জীবনে ঝগড়া হওয়াটা স্বাভাবিক। এটাই সংসারের নিয়ম। আমরা যেন আমৃত্যু দুজন দু’জনার হয়ে থাকতে পারি এই দোয়া চাই। আমার সন্তানদের জন্য দোয়া করবেন সবাই।’