মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১১ কার্তিক ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

হাসিনা সরকার আমাদের দুশমন নয় : আল্লামা শফি

image_71925.shafi_32785

 

হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ্ আহমদ শফী বলেছেন, গণমাধ্যম, সাংস্কৃতিক অঙ্গন কিংবা সমাজে আল্লাহ ও রাসুলের শত্রু নাস্তিকদের অপতৎপরতা দেশের জনগণ বরদাশত করবে না।  নাস্তিক্যবাদী শক্তির বিরুদ্ধে হেফাজতে ইসলাম কিয়ামত পর্যন্ত লড়ে যাবে, ইনশাআল্লাহ। সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে আল্লাহ ও রাসুলের শত্রুদের তৎপরতা রুখে দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

শুক্রবার চট্টগ্রাম নগরীর ঐতিহাসিক লালদীঘি ময়দানে হেফাজতে ইসলামের উদ্যোগে আয়োজিত শানে রেসালত সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

হেফাজতের আমীর বলেন, সমাজ ও রাষ্ট্রে যেখানেই মহান আল্লাহ ও তাঁর প্রিয়নবীর মান মর্যাদায় আঘাত হানা হবে এ দেশের ইমানদার, নবীপ্রেমিক জনগণকে নিয়ে সেই অপতৎপরতা রুখে দিতে আমরা আজীবন শান্তিপূর্ণ ও নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন চালিয়ে যাবো। আমরা কারো বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করিনি কেবল আল্লাহ ও রাসূলের দুশমন ইসলামবিদ্বেষী নাস্তিকদের বিরুদ্ধে আমরা ময়দানে নেমেছি। কাউকে ক্ষমতায় আনা কিংবা ক্ষমতাচ্যুত করা আমাদের কাজ নয়, উদ্দেশ্যও নয়।

আহমেদ শফী বলেন, আমাদের ঘোষিত ১৩ দফা ইমানি দাবি বাস্তবায়িত হলে সমাজে অপরাধপ্রবণতা শূন্যে নেমে আসবে, মানবাধিকার প্রতিষ্ঠিত হবে, নারী তার মর্যাদা ও প্রাপ্য অধিকার ফিরে পাবে। ঘরে-বাইরে-কর্মস্থলে সর্বত্র পূর্ণ নিরাপত্তা ও সম্মানের সঙ্গে জীবনযাপন করতে পারবে। আপন-পর কারো দ্বারা নিগৃহীত হবে না।

তিনি বলেন, আমরা আগেই বলেছি, এখনো বলছি হেফাজতে ইসলামের দাবি ও ইমানি আন্দোলনকে বুঝতে চেষ্টা করুন, হৃদয় দিয়ে অনুধাবন করুন, অযথা মিথ্যাচার করবেন না; বিশেষ কোনো উদ্দেশ্যে নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াবেন না। আমরা রাজনীতি করছি না, আমাদের কোনো রাজনৈতিক কোনো লক্ষ্য নেই।

আহমদ শফী বলেছেন, হাসিনা সরকার, আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ সবাই আমাদের বন্ধু। এদের সঙ্গে কোনো আদাবত (শত্রুতা) নাই। কেউ যদি বলে হাসিনা সরকার, ছাত্রলীগ আমাদের দুশমন এটা বুঝাটা ভুল হবে। এদের কাউকে কোনো দিন আমি গালি দেই নাই।

তিনি সম্মেলনে আসা নেতা-কমীদের উদ্দেশে বলেন,  আসুন আমরা আল্লাহর দরবারে তওবা করি। আমরা খারাপ হয়ে গেছি। না হয়তো আমাদের এ দেশ সোনার বাংলা হবে না কেন। আমরা আল্লাহর দরবারে দোয়া প্রার্থনা করি, বাংলাদেশকে যেন সোনার বাংলা বানাতে পারি। যেসব ব্যবসায়ী ব্যবসা চালাতে পারছে না তাদের জন্য তিনি দোয়া করেন। যে সব গার্মেন্টস বন্ধ হয়ে গেছে সেগুলো যাতে আবার চালু হয়, রাস্তাঘাট ভালো হয় সে জন্য দোয়া করেন।