Sunday, March 24Welcome khabarica24 Online

হাতে মেহেদির রং শুকানো আগে দুর্বৃত্তদের হাতে খুন হলো খৈয়াছড়া সাইফুল

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ মীরসরাই উপজেলার ১২ নং খৈয়াছড়া ইউনিয়ন দুয়ারু গ্রামের আব্দুল রশিদ মেস্ত্রী বাড়ির নুরুল আমিনের পুত্র সাইফুল ইসলাম(২৩) সাইফুল বাংলাদেশ বিজিবি সদস্য সে কুলাউড়া উপজেলার সীমান্তবর্তী শরীফপুর বিজিবি ক্যাম্পের সিপাহী- (সিপাহী নং- ৯০১৬২) ২৫ ডিসেম্বর মঙ্গলবার অফিসিয়াল কাজে বাহির হন অফিসের কাজ সেরে আসার পর থেকে নিখোঁজ হন সাইফুল।
২৯ ডিসেম্বর শনিবার কমলগঞ্জের শমসেরনগরের তানজিম আবাসিক হোটেল থেকে সাইফুলের পেট কাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার দুপুরে হোটেলের ৩য় তলার ২১১ নম্বর রুমের বাথরুম থেকে রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নিহতের পেট সহ শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ কাটা ছিল। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে- দুর্বৃত্তরা বিজিবি সদস্য সাইফুলকে পেটসহ শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ কেটে শ্বাসরোধ করে খুন করে। জানা যায়, গত ২৫শে ডিসেম্বর দুপুরে ব্যবসায়ী পরিচয়ে শমসেরনগরের চাতলাপুর রোডের তানজিমা আবাসিক হোটেলে উঠেন সিপাহী সাইফুল। হোটেলের ৩য় তলার ২১১ নম্বর রুম বুকিংয়ের সময় ঠিকানা দেন শ্রীমঙ্গল শহরের। ওইদিন সন্ধ্যার মধ্যে তিনি হোটেল ছেড়ে চলে যান বলে হোটেলের রেজিস্ট্রারে লিপিবদ্ধ রয়েছে। কিন্তু শনিবার দুপুরে হোটেলের পানি সরবরাহের লাইন মেরামত করা হয়।পরে হোটেল মালিক এ্যাডভোকেট মাহবুবুর রহমান ঘুরে ঘুরে হোটেলের সবকটি রুম চেকিংকালে ৩য় তলার ২১১ নম্বর রুমের বাথরুমে সাইফুলের রক্তাক্ত মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেন। খবর পেয়ে শমসেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিচয় নিশ্চিত হলে পুলিশ ঘটনাটি বিজিবি কর্তৃপক্ষকে জানায়। খবর পেয়ে শ্রীমঙ্গলস্থ ৪৬ ব্যাটালিয়ানের লে. কর্নেল আব্দুল্লাহ মুমেন ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। হোটেল ম্যানেজার কুরবান মিয়া জানান, ২৫শে ডিসেম্বর ব্যবসায়ী আলাপকালে কয়েক ঘণ্টার জন্য রুমটি ভাড়া নেন। সন্ধ্যার দিকে তিনি রুমটি ছেড়ে চলে যান। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে হোটেল ম্যানেজার বলেন, রুম ভাড়া নেয়ার দিন সন্ধ্যার দিকে আমার টেবিলের ওপর রুমের চাবি দেখে ভেবেছিলাম-সে চলেগেছে
সাইফুল গত ১১ নভেম্বর বিয়ে করেন বিয়ের দেড় মাস পার না হতে দুর্বৃত্তদের হাতে খুন হয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলো । সাফুলের স্ত্রীর নাম রাজিয়া সুলতান। আজ সকাল ১১ টায় মহুরুম সাইফুলে ইসলামের জানাযার নামজ দুয়ারু প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়ে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয়। সাইফুলের অকাল মৃত্যতে এলকায় এবং সাইফুলের পরিবার নেমে এসেছে শোকের ছায়া।