Friday, November 15Welcome khabarica24 Online

সি আর বি তে ৯/১১ ব্যাচের বন্ধুদের মিলন মেলা

“শেকড়ের টানে পাশে আনে”।বন্ধু” শব্দটা ছোট হলেও এর পরিধি এতটায় বিস্তৃত যে পরিমাপ করার সাধ্য কারো নেই। তারপর ও ছোট পরিসরে বলতে গেলে বন্ধু মানেই আত্নার টান, ভালবাসার বন্ধন, হৃদয়ের সংস্পর্শ, একে অন্যের ছায়া, বড় রকমের ভরসার জায়গা।
হাতে লাটিম নাটাই নিয়ে মাঠ-ঘাট, বই খাতা কাঁধে চেপে সেই প্রাইমারী স্কুল,দুষ্টমির সেই স্কুলের বারান্দা,স্যারদের হাতে ইচ্ছে করে মাইর খাওয়ানো আবার সেই হাতে ভাগ করে একই বক্সের টিফিন খাওয়া,বন্ধুত্বের সূচনা টা এভাবে হলেও সম্পর্কের দৃঢ়তা বেড়েছে, অন্যভাবেও।
প্রাইমারির গন্ডি পেরিয়ে মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক, স্নাতক, স্নাতকোত্তর শেষ করতে ও অনেক নাম না জানা মানুষের সাথে বন্ধুত্বের আর্বিভাব হয় আমাদের।কেউবা জীবনের তাগিদে, কেউবা উচ্চতর ডিগ্রির জন্য দেশ ছেড়ে ভিনদেশে। এভাবে আমরা ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকলে ও মনের সেই টান টা রয়েই গেছে।সবার ব্যস্ততার মধ্যেও যেন একই প্লাটফর্মে থাকতে পারি, একে অন্যের পাশে দাড়াতে পারি, সেই উদ্যোগে ৭-০৭-১৯ তারিখে গড়ে ওঠে ০৯/১১ ব্যাচের বন্ধু-বান্ধবদের নিয়ে SSC 2009 & HSC 2011, Students Of Bangladesh.যেখানে এখন বন্ধু-বান্ধবের সংখ্যা তিন হাজার একশো ছাড়িয়েছে।দেশের সব ০৯/১১ ব্যাচের ছড়ানো ছিটানো বন্ধু-বান্ধব একি প্লাটফর্মে থাকার জন্য এই পরিকল্পনা।
দূর দুরন্ত থেকে ছূটে আশা বন্ধু-বান্ধবদের নিয়ে গেল ৮ই নভেম্বর ২০১৯ চট্টগ্রামের সুন্দর মনোরম পরিবেশ সি আর বি তে ব্যাচ ২০০৯(এস.এস.সি.) এর দশ বছর পূর্তি উৎযাপন উপলক্ষে গ্রুপের একটি গেট টুগেদার প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হয়।যেখানে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম সরকারি কমার্স কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর সাগর কান্তি দে স্যার। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন “বাংলাদেশকে এগিয়ে নিতে তরুণ সমাজকে সততার সহিত এগিয়ে যেতে হবে”।

উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরোও উপস্থিত ছিলেন একই প্রতিষ্ঠানের হিসাববিজ্ঞানের সহযোগী অধ্যাপক সুসেন কুমার বড়ুয়া এবং কোতয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মহসীন, পিপিএম। উপস্থিত ছিলেন ০৯/১১ এর শতাধিক ব্যাচমেটসহ গ্রুপ পরিচালনার জন্য যারা সার্বিক ভাবে সহায়তা করে আসছে মোঃ জাহেদ,মাসুম আল মাহাদী,তামান্না সরকার,শিফারা রুবি,মাহফুজ,সাগুপ্তা, সুমি,রোকসানা প্রমুখ।

লোগো উন্মোচন এর মাধ্যম দিয়ে প্রোগ্রাম শুরু হয় শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে। যার বিবেচ্য বিষয় হিসেবে ছিল শুভেচ্ছা বক্তব্য, কেক কাটা,ফটোসেশন,খেলাধুলা,দুপুরের খাবার,সাংস্কৃতিক পরিবেশনা,পুরস্কার বিতরণ, র‍্যাফেল ড্র এছাড়া ও নিজেদের সুখ-দুঃখের গল্প।ভবিষ্যৎ এ ভালো কোনো পরিকল্পনা,কাউকে স্বপ্ন দেখানো বা নিজে স্বপ্ন দেখা আর অজস্র স্মৃতিচারন, সব মিলিয়ে ৮ই নভেম্বর আকাশে বাতাসে প্রানের সঞ্চালন যেন চট্টগ্রামের সি আর বি তে।মহামিলনের এই সন্ধিক্ষণের সময় উৎযাপন কমিটির আহবায়ক মোঃ জাহেদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা হয় বিকাল ৫ টায়।তাদের মূল মন্ত্র “দেশব্যাপী ছড়ানো ছিটানো ব্যাচমেট করব সংঘবদ্ধ ব্যাচের জাগরণ সৃষ্টিতে হব মোরা ঐক্যবদ্ধ”।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি