শনিবার, ১৩ আগস্ট ২০২২, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

সংবিধান অনুযায়ীই নির্বাচন-সংলাপ হবে: নাসিম

khulna pic- 7 ( 3-3-15 )_229214
স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোঃ নাসিম বলেছেন, সংবিধান অনুসারেই নির্বাচন হবে। সংলাপও হবে। তা হবে নির্বাচন কমিশনের সাথে। কোন খুনীর সাথে নয়। মঙ্গলবার খুলনার শহীদ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালে পরিদর্শন এবং চিকিৎসকদের সাথে মতবিনিময় শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।নাসিম বলেন, আওয়ামী লীগকে পরাজিত করার শক্তি দুনিয়ায় কারও নেই। ২০১৯ সালে বিশ্বাকাপের খেলার মতই আবার নির্বাচন হবে। খালেদা জিয়াকে সে সময়ের জন্য তৈরী হতে হবে। সাহস থাকলে নির্বাচনে আসতে হবে।জনগণের সমর্থন নিয়ে দেশের জঙ্গি দমন করা হবে জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া আইন আদালত কিছুই মানেন না। বিশ্ব এজতেমা, শিশুদের পরীক্ষা তাঁর কাছে গুরুত্ব পায় না। এই নেত্রীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া এখন জনগনের দাবি।

 বুধবার খালেদা জিয়া দুর্নীতি মামলায় আদালতে হাজির না হলে তাঁকে গ্রেফতারে সরকারের কোনো পরিকল্পনা আছে-কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, এটা আদালত ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিষয়, তারা সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবে।তিনি বলেন, দেশের মানুষ হরতাল-অবরোধ প্রত্যাখ্যান করেছে। হরতাল আর অবরোধে ঢাকা, খুলনাসহ সব জায়গায় যানজট আগের চেয়ে বেড়ে গেছে। চুড়ান্ত বিচারে সহিংস আন্দোলনকারীরা পরাজিত হবে এবং জনগনের শান্তির জয় প্রতিষ্ঠিত হবে।এর পর মন্ত্রী খুলনা মেডিকেল কলেজ চত্তরে অনুষ্ঠিত স্বাচিব মানোনিত পরিষদের পরিচিতি সভায় ও খুলনা বিভাগীয় চিকিৎসক সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন। তিনি বলেন, নির্বাচনে না এসে বেগম খালেদা জিয়া ভুল করেছেন। আর সে জন্যই তিনি একের পর এক আঘাত করছেন। খালেদা আন্দোলন করে গণতন্ত্রের বারটা বাজিয়েছেন বলেও মন্তব্য করেন তিনি।মন্ত্রী বলেন, দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের জটিল রোগের চিকিৎসায় শহীদ শেখ আবু নাসের হাসপাতাল আস্থার জায়গায় পরিণত হয়েছে। এ হাসপাতালে অন্যান্য বিভাগ চালুর মধ্য দিয়ে একটি পূর্ণাঙ্গ হাসপাতালে পরিণত করার পরিকল্পনা রয়েছে। খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের লিনিয়ার থেরাপি মেশিনটি সেনাবাহিনীর বিশেষজ্ঞদের দ্বারা পরীক্ষা নিরিক্ষা করে চালুর ব্যবস্থা করা হবে বলেও জানান তিনি।
 স্বাচিব খুলনার সভাপতি ডাঃ শেখ বাহারুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তৃতা করেন স্বাচিব কেন্দ্রীয় সভাপতি সাবেক স্বাস্থ্য মন্ত্রী আফম রুহুল হক, বিএমএর সাবেক মহাসচিব ডাঃ মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হারুনুর রশীদ ও সাধারণ সম্পাদক এস এম মোস্তফা রশিদী সুজা প্রমুখ।