বুধবার, ১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

ক্ষমতায় টিকে থাকতেই গুম-নির্যাতন চালাচ্ছে সরকার

image-1_69397
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘জনমনে এখন এটা নিশ্চিত হয়ে গেছে যে, ৫ জানুয়ারি প্রহসনের নির্বাচনের মাধ্যমে জোর করে ক্ষমতা দখলকারী বর্তমান অবৈধ সরকার বাকশালী কায়দায় বিরোধী দল ও মতকে দমন করে একচ্ছত্র বর্বর শাসন কায়েম করতে চায়। আর এই শাসনের একমাত্র উদ্দেশ্য ক্ষমতার আসনে চিরস্থায়ীভাবে নিজেদের টিকিয়ে রাখা। উদ্দেশ্যকে বাস্তবায়ন করতে সরকার বিএনপি তথা বিরোধী দলের নেতাকর্মীদেরকে হত্যা, গুম, অপহরণ, হামলা, মামলা ও জুলুম নির্যাতনসহ নানাবিধ দমনমূলক কার্যক্রম সারাদেশে এক ভয়াবহ বিভিষিকাময় পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে।’শনিবার সন্ধ্যায় সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ কথা বলেন।তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘দেশব্যাপী প্রায় প্রতিদিনই বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদেরকে গুম করা হচ্ছে এবং পরবর্তীতে তাদের লাশ নদীর ধারে কিংবা ধানক্ষেতে অথবা রাস্তার ধারে ফেলে রাখা হচ্ছে। সিরাজগঞ্জের জাহাঙ্গীর হোসেন ছিলেন মালয়েশিয়ায় প্রবাসী শ্রমিক। মাত্র ছয় মাস আগে তিনি দেশে ফিরেছেন, অথচ তাকে লাশ হতে হলো।’
মির্জা ফখরুল সরকারের প্রতি কঠোর হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করে বলেন, ‘দলন-পীড়ন চালিয়ে বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করে এদেশে স্বৈরতন্ত্র প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন কোনোদিনই পূরণ হবে না। কোনো স্বৈরাচারের পক্ষেই জনগণের অধিকার অবদমিত করে শুধুমাত্র জুলুম নির্যাতনের মাধ্যমে বর্তমান অবৈধভাবে চেপেবসা ক্ষমতাসীনদের পক্ষেও কোনোদিন তা বাস্তবায়িত করা সম্ভব হবে না।’
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘জনমনে এখন এটা নিশ্চিত হয়ে গেছে যে, ৫ জানুয়ারি প্রহসনের নির্বাচনের মাধ্যমে জোর করে ক্ষমতা দখলকারী বর্তমান অবৈধ সরকার বাকশালী কায়দায় বিরোধী দল ও মতকে দমন করে একচ্ছত্র বর্বর শাসন কায়েম করতে চায়। আর এই শাসনের একমাত্র উদ্দেশ্য ক্ষমতার আসনে চিরস্থায়ীভাবে নিজেদের টিকিয়ে রাখা। উদ্দেশ্যকে বাস্তবায়ন করতে সরকার বিএনপি তথা বিরোধী দলের নেতাকর্মীদেরকে হত্যা, গুম, অপহরণ, হামলা, মামলা ও জুলুম নির্যাতনসহ নানাবিধ দমনমূলক কার্যক্রম সারাদেশে এক ভয়াবহ বিভিষিকাময় পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে।’
শনিবার সন্ধ্যায় সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ কথা বলেন।
তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘দেশব্যাপী প্রায় প্রতিদিনই বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদেরকে গুম করা হচ্ছে এবং পরবর্তীতে তাদের লাশ নদীর ধারে কিংবা ধানক্ষেতে অথবা রাস্তার ধারে ফেলে রাখা হচ্ছে। সিরাজগঞ্জের জাহাঙ্গীর হোসেন ছিলেন মালয়েশিয়ায় প্রবাসী শ্রমিক। মাত্র ছয় মাস আগে তিনি দেশে ফিরেছেন, অথচ তাকে লাশ হতে হলো।’
মির্জা ফখরুল সরকারের প্রতি কঠোর হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করে বলেন, ‘দলন-পীড়ন চালিয়ে বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করে এদেশে স্বৈরতন্ত্র প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন কোনোদিনই পূরণ হবে না। কোনো স্বৈরাচারের পক্ষেই জনগণের অধিকার অবদমিত করে শুধুমাত্র জুলুম নির্যাতনের মাধ্যমে বর্তমান অবৈধভাবে চেপেবসা ক্ষমতাসীনদের পক্ষেও কোনোদিন তা বাস্তবায়িত করা সম্ভব হবে না।’ – See more at: http://www.jugantor.com/current-news/2014/02/15/69397#sthash.lqHuRW3E.dpuf