শনিবার, ৪ জুলাই ২০২০, ২০ আষাঢ় ১৪২৭খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

রাতের আঁধারে অসহায়দের ঘরে খাবার পৌঁছে দিচ্ছে আনন্দ সংঘ

 

নিজস্ব প্রতিনিধি ঃ বাড়ি বাড়ি গিয়ে অসহায়, দরিদ্র ও কর্মহীন মানুষগুলোর কাছে রাতের আঁধারে খাবার পৌঁছে দিচ্ছে মীরসরাই উপজেলার একটি সেচ্ছাসেবী ও সামাজিক সংগঠন। আনন্দ সংঘ নামের ওই সংগঠনের কর্মীরা কর্মহীন হয়ে পড়া এবং খেটে খাওয়া এসব মানুষগুলো খাবার দিয়ে আসছেন।

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে কার্যত লকডাউনে রয়েছে মীরসরাই সহ তথা পুরো দেশ। চলছে সাধারণ ছুটি। ফলে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন খেটে খাওয়া মানুষগুলো। মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য এই মন্ত্রে ব্রত হয়ে তাদের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন অনেকেই। সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগেও দেয়া হচ্ছে ত্রাণ।

তবে একেকজনের সহায়তা করার ধরণ একেক রকম। কেউ দিচ্ছেন প্রকাশ্যে আবার কেউ গোপনে। এরই ধারাবাহিকতায় মীরসরাই উপজেলার ১৩নং মায়ানী ইউনিয়েনের আনন্দ সংঘ নামে একটি সেচ্ছাসেবী ও সামাজিক সংগঠনের উদ্যোগে রাতের আঁধারে নিরবে ত্রাণ বিতরণ করছেন অসহায়, দরিদ্র ও কর্মহীন মানুষদের। রাতের আঁধারে তাদের ঘরে ঘরে খাদ্য সামগ্রি যেমন চাল,ডাল, আলু,পেয়াজ, তেল, লবণ,নাপা এবং সাবানের প্যাকেট নিয়ে রাতের আঁধারে খোঁজ খবর নিয়েই তারা এই প্যাকেটগুলো অসহায়, দরিদ্র ও কর্মহীন মানুষের বাড়িতে রেখে আসেন।

আনন্দ সংঘের সভাপতি ইয়াছিনুল কিবরিয়া ও সাধারণ সম্পাদক আব্বাস উদ্দিন মুন্না জানান, আমাদের আনন্দ সংঘ একটি অরাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন। শুধুু মায়ানী না পুরো মীরসরাইতে অসহায় মানুষদের সহযোগিতা করা এই সংগঠনের মূল উদ্দেশ্য। তাছাড়াও করোনার ভাইরাসের ভয়াবহতা নিয়ে সচেতন করার জন্য প্রজেক্টর এর মাধ্যমে বড় পর্দা ভিডিও দেখিয়ে মানুষে সচেনত করার চেষ্টা করছি

আনন্দ সংঘের সিনিয়র সদস্য তোফায়েল আহম্মেদ বলেন, অসহায়, দরিদ্র ও কর্মহীন মানুষের অবস্থা খুব সংকটে। এই মুহুর্তে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি সংগঠন, ব্যক্তিদের এগিয়ে আসা দরকার। অনেকে ত্রাণ দিতে দেখা যায় কিন্তু আমরা আমাদের সংগঠনের সকল সদস্য সন্মতিক্রমে দিনের বেলা অসহায়, দরিদ্র ও কর্মহীন মানুষের লিষ্ট করে সেটা রাতের আঁধারে বাড়ি বাড়ি গিয়ে রেখে আসি।