শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

রাজাকার-জঙ্গিদের গণতন্ত্র নয়, মানুষের গণতন্ত্র চাই : তথ্যমন্ত্রী

image_165816.enu (3)

 

জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, রাজাকার-জঙ্গিদের গণতন্ত্র নয়, মানুষের গণতন্ত্র চাই আজ সকালে রাজধানীর বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সংগীত ও নৃত্যকলা মিলনায়তনে টেলিভিশন রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ট্র্যাব) আয়োজিত বিজয় দিবস সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। তথ্যমন্ত্রী বলেন, গণতন্ত্র আমরা সবাই চাই, গণতন্ত্র চাই মানুষের । খালেদা জিয়া ও রাজাকারের গণতন্ত্র আমরা বাংলাদেশে হতে দেব না। বাংলাদেশে আর কোনোদিন রাজাকার, জঙ্গিবাদের সমর্থন নিয়ে কোনো সরকার হতে দেওয়া হবে না। যদি সমৃদ্ধ বাংলাদেশ চান, উন্নত গণমাধ্যম চান, সামরিক সরকার আর নয়, রাজাকার-জঙ্গি সমর্থক সরকার আর নয়।ইনু বলেন, খালেদা জিয়া আবার গণতন্ত্রের জন্য হুঙ্কার দিচ্ছেন, তিনি জনসভা করবেন ৫ তারিখে। জনসভা আর সরকার পতনের হুঙ্কার যদি একসঙ্গে দেন, তাহলে আমরা একটু শঙ্কিত হই। কারণ খালেদা জিয়ার রেকর্ড খারাপ। সেটা হলো তিনি জঙ্গিবাদ লেলিয়ে দেন, চলন্ত বাসে আগুন ধরিয়ে দেন, চলন্ত ট্রেন থেকে মানুষ ফেলে দেন, পুলিশের মাথা থেতলে দেন, শিশুকে হত্যা করেন।মেহের আফরোজ চুমকি বলেন, বাংলাদেশের প্রতিটি গণতান্ত্রিক সংগ্রামে সাংবাদিকরা ভূমিকা রেখেছেন। তাই সাংবাদিকদের রাষ্ট্রের অনেক বিষয়ই নজরে রাখতে হবে।সম্প্রতি পাকিস্তানে জঙ্গি হামলায় শিশু হত্যা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বাংলাদেশও এ অবস্থার পথে গিয়েছিল, শেখ হাসিনা সে পথ থেকে জাতিকে বাঁচিয়েছেন। যার নমুনা ২১ গ্রেনেড হামলা, রমনা বটমূলের বোমা হামলা, উদীচীর অনুষ্ঠানে হামলা ও সিনেমা হলে হামলা এখন এসব বন্ধ হয়েছে। জঙ্গিদের উত্থানের পথ রুদ্ধ হয়েছে। সাংবাদিকরা সরকারের ভুলের সমালোচনা করবে, পাশাপাশি সরকারের নেতৃত্বে দেশের অগ্রগতি ও উন্নয়নের খবর তুলে ধরতে হবে। সুন্দর একটি দেশ চাই আমরা। যেখানে নারীর নিরাপত্তা ও শিশুর সুন্দর ভবিষ্যৎ রচনা করা হবে।