রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ৯ কার্তিক ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

রাজনীতি ছাড়ার ঘোষণা রওশন এরশাদের

rooson_81585
দশম জাতীয় সংসদে বিরোধী দলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির সিনিয়র প্রেসিডিয়াম সদস্য বেগম রওশন এরশাদ রাজনীতি থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, আগামীতে আর নির্বাচন করব না। পলিটিকস করব না বলে চিন্তা করছি। যতটুকু আমার করার প্রয়োজন ছিল, করে নিয়েছি। ধৈর্য্য ও সহনশীলতা না থাকলে নেতৃত্ব দেয়া যাবে না। সহনশীলতার অভাবে দেশ নেতৃত্ব শূন্য হচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া ১২টার দিকে রাজধানীর কাকরাইলস্থ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনসটিটিউশনে জাতীয় ছাত্র সমাজের কেন্দ্রীয় সম্মেলন ও ৩১তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন রওশন এরশাদ। সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন জাপা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।৫ জানুয়ারির দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর এই প্রথম দলীয় কোনো অনুষ্ঠানে দলের চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ ও রওশন এরশাদ একত্র হলেন।রওশন দলের চেয়াম্যান প্রসঙ্গে বলেন, আমাদের মধ্যে কোনো বিরোধ নেই। আমরা একসঙ্গে আছি। তিনি (এরশাদ) যখন জেলে ছিলেন, তখন আমি একাই দল পরিচালনা করেছি। অনেকের মনে প্রশ্ন, আমি দলের চেয়ারম্যান হতে চাই। কিন্তু আমি কেন চেয়ারম্যান হতে চাইব? আমার তো সে অভিজ্ঞতা নেই। নেতৃত্ব আল্লাহ লিপিবদ্ধ করে দেন।৫ জানুয়ারির নির্বাচন প্রসঙ্গে রওশন এরশাদ বলেন, আমরা তো নির্বাচন করবই না। কিন্তু পরিস্থিতি এমন হলো যে, নির্বাচন করতেই হলো। সেটাই হয়তো কপালের লিখন ছিল।ছাত্রসমাজের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য রওশন বলেন, তোমরা আমাদের ভবিষ্যত। তোমরা ভবিষ্যতের নেতা। তাই তোমাদের অনেক কিছু শিখতে হবে। এদেশের রাজনীতিতে তোমাদের অবদান রাখতে হবে। সারা জীবন তো আর তোমরা ছাত্র নেতা থাকবে না। দেশের নেতৃত্বে তোমাদের আসতে হবে। দক্ষতা, শিক্ষা ও সমাজ কল্যাণে অবদান রাখা তোমাদের শিখতে হবে। দেশের জন্য কাজ করতে হবে। মনের মধ্যে আবেগ থাকতে হবে। তিনি বলেন, আমাদের ছেলে মেয়েরা এখন বই পড়ে না। ইন্টারনেট, ফেসবুক এসবে ডুবে থাকে।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাপার চেয়ারম্যান এরশাদ বলেন, রওশন এরশাদের উপস্থিতি আমাকে অনুপ্রাণিত করেছে। তিনি বলেছেন, আমাদের মধ্যে কোনো বিরোধ নেই।ছাত্র সমাজের আহবায়ক সৈয়দ মিজানুর রহমান হিমুর সভাপতিত্বে সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জাপা মহাসচিব এবিএম রহুল আমিন হাওলাদার, পার্টির সাংগঠনিক সম্পাদক ও ছাত্র বিষয়ক সমন্বয়কারী শাহ্ -ই আজম, জাতীয় পার্টির ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক এড. আব্দুল হামিদ ভাষানী, যুগ্ম ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক মোঃ নোমান মিয়া প্রমুখ।