সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

যুক্তরাজ্যের পর্যটন শিল্পে মন্দাভাবের আশঙ্কা

UK-Tourism

 

সপ্তাহজুড়ে চলা বন্যায় স্থবির হয়ে পড়েছে যুক্তরাজ্যে জনজীবন। এতে ভ্রমণসূচি রদবদল করতে বাধ্য হচ্ছেন পর্যটকরা। চলমান খারাপ আবহাওয়ার কারণে, পর্যটন শিল্পে মন্দাভাব দেখা দিতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা। আর এই খবর জানিয়ে শেষ করবো এখনকার সংবাদ।যুক্তরাজ্যে এখন পর্যটন মৌসুম। স্কুলগুলিতে চলছে বার্ষিক ছুটি। তবে, জানুয়ারি থেকে চলা ভারী বৃষ্টিতে টেমস নদীর দুকূলজুড়ে বন্যায় থিতু হয়ে পড়ছে পর্যটন শিল্প।সেন্ট্রাল লন্ডনের উইন্ডসর বরাবরই থাকে পর্যটন আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে। টেমস তীরবর্তী এই শহরে জলোচ্ছ্বাস আঁচড় না কাটলেও, পর্যটকরা ভাবছে, বিপদ তো আর বলে-কয়ে আসবে না। একজন নাগরিক বলেন,”যখন আমরা পর্যটকদের বলছি, হ্যাঁ, আমরা নিরাপদেই আছি, এবং হোটেলটির ভিত্তিও যথেষ্ট উঁচু। তখন তারা বলছে, ‘বন্যা বা জলোচ্ছ্বাসে হোটেল ভেসে যাবে না, আপনি এটার গ্যারান্টি কীভাবে দিচ্ছেন।” তবে ব্যবসার এই ধীরগতিতে শঙ্কিত নন অনেকেই। একজন বলেন,”আমার মনে হয় না, বন্যার প্রভাব ভয়াবহ কিছু হবে। মৌসুমের তো কেবল শুরু। আর শুরুর সময়টায় লোকজনের আনাগোনা একটু কমই থাকে। দুহাজার বারোয় পর্যটন খাত থেকে ১৭৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করেছে যুক্তরাজ্য। আর এর সঙ্গে পরোক্ষ এবং প্রতক্ষ্যভাবে জড়িত প্রায় ২৬ লাখ মানুষ।

সপ্তাহজুড়ে চলা বন্যায় স্থবির হয়ে পড়েছে যুক্তরাজ্যে জনজীবন। এতে ভ্রমণসূচি রদবদল করতে বাধ্য হচ্ছেন পর্যটকরা। চলমান খারাপ আবহাওয়ার কারণে, পর্যটন শিল্পে মন্দাভাব দেখা দিতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা। আর এই খবর জানিয়ে শেষ করবো এখনকার সংবাদ।

যুক্তরাজ্যে এখন পর্যটন মৌসুম। স্কুলগুলিতে চলছে বার্ষিক ছুটি। তবে, জানুয়ারি থেকে চলা ভারী বৃষ্টিতে টেমস নদীর দুকূলজুড়ে বন্যায় থিতু হয়ে পড়ছে পর্যটন শিল্প।

সেন্ট্রাল লন্ডনের উইন্ডসর বরাবরই থাকে পর্যটন আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে। টেমস তীরবর্তী এই শহরে জলোচ্ছ্বাস আঁচড় না কাটলেও, পর্যটকরা ভাবছে, বিপদ তো আর বলে-কয়ে আসবে না।

একজন নাগরিক বলেন,”যখন আমরা পর্যটকদের বলছি, হ্যাঁ, আমরা নিরাপদেই আছি, এবং হোটেলটির ভিত্তিও যথেষ্ট উঁচু। তখন তারা বলছে, ‘বন্যা বা জলোচ্ছ্বাসে হোটেল ভেসে যাবে না, আপনি এটার গ্যারান্টি কীভাবে দিচ্ছেন।”

তবে ব্যবসার এই ধীরগতিতে শঙ্কিত নন অনেকেই।

একজন বলেন,”আমার মনে হয় না, বন্যার প্রভাব ভয়াবহ কিছু হবে। মৌসুমের তো কেবল শুরু। আর শুরুর সময়টায় লোকজনের আনাগোনা একটু কমই থাকে।

দুহাজার বারোয় পর্যটন খাত থেকে ১৭৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করেছে যুক্তরাজ্য। আর এর সঙ্গে পরোক্ষ এবং প্রতক্ষ্যভাবে জড়িত প্রায় ২৬ লাখ মানুষ।

– See more at: http://independent24.tv/?p=126962#sthash.KAA0LHcD.dpuf