Friday, September 21Welcome khabarica24 Online

মীরসরাইয়ে বৃদ্ধকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিনিধি ঃ
মীরসরাইয়ে জমি সংকান্ত বিরোধের জেরধরে প্রতিপক্ষের হামলায় এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার ১৪ নভেম্বর সকাল সাড়ে ৯টার সময় উপজেলা জোরারগঞ্জ থানাধীন ৬নং ইছাখালী ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের চুনি মিঝির টেক গ্রামের জহুর মাঝি বাড়ীতে এঘটনা ঘটে। নিহত ফকির আহমদ (৬৫) ওই বাড়ীর মৃত খলিলুর রহমানের ছেলে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকালে নিহত ফকির আহমদ একটি খুন্তি নিয়ে বাড়ীর উঠানে শীতের কারণে কম্বল রোদে শুকানোর জন্য বাশেঁর খুঁটি স্থাপনে মাটির গর্ত করছিলেন। এ সময় একই বাড়ীর জনৈক হালিমা (৪৫) এ নিয়ে তারসাথে বাকবিতন্ডা লিপ্ত হয়। এসময় প্রতিপক্ষ একই বাড়ীর রওশনের জামানের ছেলে শামীম (৩৫) ঘটনাস্থলে এসে বৃদ্ধ ফকিরের সাথে তর্ক এবং হাতাহাতিতে লিপ্ত হয়। এর একপর্যায়ে ফকিরের হাতে থাকা খুন্তি দিয়ে তাকে বুকে সজোরে আঘাত করে শামীম। এতে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। ঘটনার পর পর তিনি পাশবর্তি দোকানে গিয়ে তাকে আঘাত করায় জন্য তার বুকে প্রচন্ত ব্যাথা করছে মর্মে বিষয়টি স্থানীয়দের জানান। এরপর ঘরে ফেরার সময় রাস্তার উপর পড়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হন। খবর পেয়ে জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এবিষয়ে জোরারগঞ্জ থানার ওসি (অপারেশন) আনোয়ার উল্লাহ জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হচ্ছে। এতে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। নিহত ব্যক্তির ছেলে বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছে। এঘটনার নেপথ্যে থাকা হালিমাকে আটক করা হলেও শামীম পালিয়ে গেছে। এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য সাব মিয়া বলেন, স্থানীয় ভাবে খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে ফকিরকে মৃত দেখতে পাই। যতটুকু জানি উভয়ের মধ্যে দীর্ঘদিন যাবত বাড়ীর জমি-জমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছে।