শনিবার, ৪ জুলাই ২০২০, ২০ আষাঢ় ১৪২৭খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

মীরসরাইয়ে জেলা পুলিশ সুপারের দেওয়া ত্রাণ ৫০ দুস্থ পরিবারের মাঝে পৌঁছে দিলেন ওসি মজিবুর

কামরুল হাসান : দেশব্যাপী করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রাদূর্ভাব ঠেকাতে বাংলাদেশ সরকার কতৃক সারাদেশের জন্য সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে(যাহা ইতিমধ্যে আজই হতে চলেছে)। সরকারী নির্দেশনা মোতাবেক এই সময়ের মধ্য সকল প্রকারের দোকান নিদিষ্ট সময়ের মধ্যে বন্ধ রাখার ও নিদেশনা রয়েছে। এছাড়াও অহেতুক কোন মানুষ যত্রতত্র অহেতুক চলাফেরা ও একান্ত জরুরী প্রয়োজন ছাড়া বের না হতে নির্দেশনা ও রয়েছে।
বিভিন্নস্থানে জনসমাগম ঠেকাতে এবং যানবাহন নিয়ন্ত্রণে ও অসহায় হতদরিদ্রের মাঝে এাণ সামগ্রী বিতরণের জন্যে মাঠে নিরলস কাজ করছে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনী। টানা লকডাউনে সমাজের নিম্নবিত্ত হতদরিদ্র মানুষগুলো খাদ্যসংকটে অত্যন্ত কষ্টে দিনযাপন করছে। মানবিক সেবায় চট্টগ্রাম জেলার মানবিক পুলিশ সুপার এস এম রশিদুল হক পিপিএম থেকে প্রদত্ত খাদ্য সামগ্রী অসহায়দের মাঝে আবারোও পৌঁছে দিচ্ছেন মীরসরাই থানার অফিসার ইনচার্জ মুজিবুর রহমান।
ঈদ পরবর্তী এই সময়ে চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপারের পক্ষ থেকে এমন মানবিক খাদ্যে সহায়তা পেয়ে খুশি সমাজের নিম্নবিত্ত অসহায় এবং হতদরিদ্র খেটে খাওয়া মানুষগুলো। (৩০ মে) শনিবার চট্টগ্রাম জেলার মীরসরাই থানা এলাকার মীরসরাই পৌরসভার ৫০ অসহায় হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার এস এম রশিদুল হক থেকে প্রদত্ত ঈদ পরর্বতী খাদ্যসামগ্রী সহায়তা করেন মীরসরাই থানার অফিসার ইনচার্জ মুজিবুর রহমান। খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কালে ওসি মুজিবুর রহমান বলেন,বাংলাদেশ পুলিশ বাংলাদেশের গণমানুষের আস্থার ঠিকানা। করোনা দুর্যোগে বাংলাদেশ পুলিশ নিজেদের সবটুকু দিয়ে জনগনের সেবায় কাজ করে যাচ্ছে। জীবন ঝুঁকি নিয়ে কখনো খাদ্য সহায়তা কখনো মহাসড়কে যানজট নিয়ন্ত্রণ, বাজার মনিটরিং ইত্যাদি সেবায় নিয়োজিত রয়েছে এই বাহিনী। আমরা চাই করোনা কালীন এই দুর্যোগের সময় পুলিশি সেবার মাধ্যমে জনগণের আস্থা ও বিশ্বাস ভালোবাসা অর্জন করতে। সেই ধারাবাহিকতায় চট্টগ্রাম জেলার পুলিশ সুপার এস এম রশিদুল হক স্যারের নির্দেশনা অনুযায়ী সব সময় আমরা মীরসরাই থানা পুলিশ কাজ করে যাচ্ছি।ভবিষ্যতে যে কোন দুর্যোগে জেলা পুলিশের তত্ত্বাবধানে জনগনের সেবায় নিয়োজিত থাকবো ইনশাআল্লাহ।