Saturday, November 25Welcome khabarica24 Online

মীরসরাইয়ে গৃহবধুর রহস্যজনক আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিনিধি ॥  চট্টগ্রামের মীরসরাইয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে এক গৃহবধু। মঙ্গলবার (৩ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টার সময় জোরারগঞ্জ থানাধীন সোনাপাহাড় এলাকায় জনৈক মহিবুল চৌধুরীর ভাড়া বাসায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ফাতেমা আক্তার (২০) সে কুমিল্লা জেলার দেবীদ্বার থানার গোলাপ খানের মেয়ে এবং চান্দিনা থানার আহমদ আলীর ছেলে বিল্লাল হোসেন (২৮)। বিল্লাল হোসেন পল্লী উন্নয়ন কর্মসূচী নামক একটি এনজিওর জোরারগঞ্জ থানা এলাকায় মাঠ সহকারী পদে চাকুরীতে কর্মরত। নিহতের স্বামী বেলাল জানায়, চাকুরীর সুবাধে স্ত্রীকে নিয়ে এই বাসায় চলতি মাসের ১ তারিখে উঠেছেন। প্রতিদিনের ন্যায় সকাল ৭ টার সময় নাস্তা সেরে তিনি কাজের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। এরপর তার সহকর্মীর মাধ্যমে জানতে পারেন তার স্ত্রী বাসার বারান্দায় গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলছে। পরে তিনি এসে দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেন। এদিকে ১১ টার সময় পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখতে পান কক্ষের ভেতর দিকে দরজা আটকানো। পরে তারা স্থানীয় জন-প্রতিনিধি এবং সাংবাদিকদের উপস্থিতে দরজা ভেঙ্গে দেখেন গলায় ওড়না পেছিয়ে বারন্দার সিলিংয়ের সাথে লাশটি ঝুলছে। পরে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। এসময় লাশের সুরতহাল প্রতিবেদনকারী জোরারগঞ্জ থানার এসআই এনায়েত উল্লাহ বলেন, লাশের শরীরে আঘাতের কোন চিহ্ন পাওয়া যায় নি। ময়নাতদন্তের পর আসল কারণ জানা যাবে। তবে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে কলহ নাকি অন্য কোনো কারণে আত্মহত্যা তা পরে জানা যাবে।
এবিষয়ে জোরারগঞ্জ থাানর সেকেন্ড অফিসার এসআই দীনেশ চন্দ্র দাস গুপ্ত বলেন, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। তবে কি কারণে আত্মহত্যা করেছে তা জানা যায়নি। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠানে হয়েছে। নিহতের স্বামীকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে এবং এ বিষয়ে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।