Sunday, September 23Welcome khabarica24 Online

মীরসরাইয়ের সম্পার শরীরে বাসা বেঁধেছে মরণব্যাধী ক্যান্সার, বাঁচতে পারে আপনাদের সহায়তায়

নিজস্ব প্রতিনিধি

স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্ক হলো ভূখন্ডের মাঝে অন্যতম মধুর সম্পর্ক। একটি গল্প দিয়ে শুরু করা যাক, অবশ্য গল্পটা সবার অজানা নয়। একজন শিক্ষক তার ছাত্রীকে তার প্রিয় মানুষের নামগুলো বোর্ডে লিখতে বললেন। ছাত্রী তার প্রিয় মানুষগুলোর নাম বোর্ডে লিখলেন। শিক্ষক একে একে কম প্রিয় মানুষগুলোর নাম মুছে দিতে বললেন, একে একে মুছা শেষ হলে শেষ পর্যন্ত তিনটা নামে এসে থেমে গেলেন। আর যে তিনটি নামে এসে থেমে গেলেন মা-বাবা, সন্তান ও স্বামী ! এক করুণ দৃশ্য ! শেষ পর্যন্ত যে নামটা রাখলেন তা হলো তার স্বামীর নাম। কারণ বিয়ের পর মা-বাবা সাথে থাকবেন না, ছেলে-মেয়ে বড় হয়ে গেলে জীবনের তাগিদে হয়তো দূরে চলে যাবে। কিন্তু যেকোন বিপদে আপদে যে মানুষটা ছেড়ে যাবেন না সে হল স্বামী !

জীবন সঙ্গী, সুখ-দুঃখের সাথী, সারা জীবন একসাথে পাশে থাকার, ভরসার নাম হলো স্বামী। সেই স্বামী যদি দূরে ঠেলে দেন, তাহলে যাওয়ার আর জায়গা থাকেনা! বলার আর ভাষা থাকেনা! স্ত্রী ক্যান্সার আক্রান্ত হওয়ার পর স্বামী তার স্ত্রীকে বাবার বাড়ি পাঠিয়ে দেয়, চিকিৎসা খরচ দিতে সম্পূর্ণভাবে অস্বীকার করে। তেমনই এক হতভাগী সম্পা রানী দাশ। সে মীরসরাই পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ তালবাড়ীয়া গ্রামের চন্দন কুমারের কন্যা। মরণব্যাধী ক্যান্সার বাস বেঁধেছে সম্পার শরীরে। বাবা হতদরিদ্র লন্ড্রী দোকানদার। অনেক আশা নিয়ে মেয়েকে বিয়ে দিয়েছিল পার্শ্ববর্তী সীতাকুণ্ড উপজেলায়। ক্যান্সারে আক্রান্ত হলে স্বামী সম্পাকে ফিরিয়ে দিলেও বাবাতো আর ফিরিয়ে দিতে পারেনা! বাবার যা আছে তা দিয়ে চিকিৎসা শুরু করে। সম্প্রতি ইন্ডিয়া নিয়ে যান স্বল্প সামর্থ্যে। কিন্তু অর্থের অভাবে মাঝপথে চিকিৎসা থেমে যায়, নিয়ে আসতে হয় দেশে। অথচ চিকিৎসা থেমে গেলেও ক্যান্সার যে আর থেমে নেই! কুড়ে কুড়ে খাচ্ছে তাকে, মাত্র ৩ লক্ষ টাকা হলে সম্পূর্ণ ভালো হয়ে যাবে স্বপ্না রাণী। চিকিৎসক বলেছেন ক্যান্সার এখনো প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে। এখন থেকে যদি রেড়িওথেরাপি ও কেমোথেরাপি শুরু করা যায় তাহলে সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে যাবে স্বপ্না।

আশা করি আপনারা সবাই পাশে থাকলে, স্বপ্না রাণী আবার তার নতুন জীবন ফিরে পাবে, পাবে বাঁচার নতুন স্বপ্ন। আমরা যার যার অবস্থান থেকে একটু একটু করে সহযোগিতা করি, তাহলে এটা বেশি কিছু নয়। আসুন, আমরা প্রত্যেকে স্বপ্নার পাশে দাঁড়াই। বেশি না ৩০০০ জন প্রত্যেকে ১০০ টাকা করে দিলেও ৩ লক্ষ টাকা হয়ে যায়।

আসুন না আমরা আবারও প্রমাণ করি, মানুষ মানুষের জন্য

বিকাশ নাম্বারঃ 01859378990 (পার্সোনাল)
যোগাযোগঃ 01818141493

ব্যাংক একাউন্ট নাম্বারঃ
ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড
মীরসরাই শাখা, চট্টগ্রাম।
সঞ্চয়ী হিসাব নংঃ 10578
হিসাব নামঃ সম্পা রানী দাশ (রুগীর নিজের একাউন্ট)