রবিবার, ১৬ মে ২০২১, ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

ভেদরগঞ্জে আওয়ামী লীগ কর্মীদের হামলায় পুলিশ কর্মকর্তা আহত

image_54976.shoriotpur-map

 

শরীয়পুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার রামভদ্রপুর বাজারে স্থানীয় আওয়ামী লীগের কর্মীরা পুলিশের উপর হামলা চালায়। তাদের লাঠির আঘাতে ভেদরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক রজ্জব আলী ও কনস্টেবল আব্দুল্লাহ আহত হয়। আওয়ামী লীগ কর্মীরা এ সময় পুলিশের একটি পিকআপ ভ্যান ভাঙচুর করে।ভেদরগঞ্জ থানা সূত্র জানায়, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে শনিবার বেলা ১২টার দিকে ভেদরগঞ্জ পৌরসভারমেয়র আব্দুল মান্নান হাওলাদারের ভাই আবুল কালাম রাম ভদ্রপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হক সরদারকে মারধর করে। এর প্রতিবাদে রামভদ্রপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা বাজারে বিক্ষোভ মিছিল করে। দুপুর ১টা হতে ৩টা পর্যন্ত বিক্ষোভকারীরা ভেদরগঞ্জ নড়িয়া সড়কের রামভদ্রপুর রেবতি মোহন উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে সড়ক অবরোধ করে রাখে। এ সময় পুলিশ অবরোধকারীদের রাস্তা থেকে সরাতে চাইলে তারা পুলিশের একটি পিকআপ ভ্যান ভাঙচুর করে। অবরোধকারীদের লাঠির আঘাতে ভেদরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক রজ্জব আলীর মাথা ফেটে যায়। তাকে ভেদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ রামভদ্রপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হক সরদারকে গ্রেপ্তার করেছে। ভেদরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আব্দুল মান্নান হাওলাদার বলেন, রামভদ্রপুরের জামাল নামক এক ব্যক্তি শুক্রবার আমার ভাইকে মারধর করেছে। শনিবার উপজেলা সদরে ওই জামালকে আমার ভাই আটক করলে আব্দুল হক সরদারের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। বিষয়টি আমরা আওয়ামী লীগ অফিসে বসে মিমাংসা করে দিতে চেয়েছিলাম। কিন্তু তারা এলাকায় গিয়ে সড়ক অবরোধ করে পুলিশের উপর হামলা চালায়। ভেদরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম বলেন, রামভদ্রপুরের স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা সড়ক অবরোধ করেছে এমন খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে যায়। পুলিশ সড়ক থেকে তাদের সরে যেতে বললে তারা পুলিশের উপর হামলা চালিয়ে গাড়ি ভাঙচুর করে। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

 

উৎস- কালেরকন্ঠ