শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ১৬ কার্তিক ১৪২৭খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

বোর্ড অব ডাইরেক্টরসের সভায় হাসপাতাল প্রতিষ্ঠায় সকলের সহযোগিতা কামনা করেন ফখরুল ইসলাম সিআইপি


প্রেস বিজ্ঞপ্তি : মীরসরাইতে হবে বিশ্বমানের চিকিৎসা সেবা এফ,আই, কে,হাসপাতাল এর ম্যানেজিং ডাইরেক্টরগনদের নিয়ে বোর্ড অব ডিরেক্টর এর সভা উদ্বোধন করলেন হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা জনাব ফখরুল ইসলাম খান সি আই পি।
এসময় তিনি বলেন একদিকে পাহাড় আর অপরদিকে সমুদ্র নিকটবর্তী অরণ্য; সঙ্গে নদী, ঝরনা, বন্যপ্রাণী, প্রকৃতির রূপ বৈচিত্র্যময় সম্পদে সমৃদ্ধময় এক জনপদ বাংলাদেশে চট্টগ্রামের প্রবেশদ্বার মীরসরাই। মীরসরাই পাঁচ লাখ মানুষের চিকিৎসাসেবা নিশ্চয়তার লক্ষ্যে বিশ্বমানের সেবা নিয়ে মীরসরাই উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বারইয়ারহাট পৌরসভার জোরারগঞ্জ পুলিশ স্টেশন সংলগ্ন বিশ্বমানের স্পেশালিস্ট হাসপাতাল গড়ে উঠেছে বেসরকারিভাবে সর্ববৃহৎ বিশেষায়িত হাসপাতাল এফ,আই, কে, হাসপাতাল (F.I.K.HOSPITAL)। খুব শীঘ্রই উক্ত হাসপাতাল শুভ উদ্বোধন হবে। ইনশাআল্লাহ হাসপাতালটি উদ্বোধনের পরে রোগীদের আন্তর্জাতিক মানের সেবা দিয়ে যায়বে। ইতোমধ্যে মীরসরাইবাসী এফ,আই, কে হাসপাতালের ম্যানেজিং ডাইরেক্টর ও প্রধান নির্বাহী জনাব ফখরুল ইসলাম খান সি আই পি কে ধন্যবাদ জানান। চিকিৎসাসেবা রোগী সাধারণের কাছে সুনাম অর্জনে সক্ষম হবে। বিশেষায়িত হাসপাতালে থাকবে অত্যাধুনিক চিকিৎসা সরঞ্জামসহ জরুরি চিকিৎসা ব্যবস্থা। এছাড়া চিকিৎসাসেবার সংকট নিরসনে মীরসরাই বাসীর দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা পূরণে হাসপাতালটি অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। গ্রাউন্ড ফ্লোরে থাকবে রোগী এবং ডাক্তারদের তথ্য নেয়ার রিসিপশান, হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে রোগীদের জন্য থাকবে বিশ্বের নামি-দামি সব ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানির মেডিসিন সমৃদ্ধ আউটডোর ফার্মেসী, ডায়াগনস্টিক রোগীদের পরীক্ষা-নিরীক্ষার ফি নেয়ার জন্য ল্যাব এন্ট্রি, প্যাথলজি পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য সর্বাধুনিক মেশিনসমৃদ্ধ প্যাথলজি ল্যাব, নারী ও পুরুষ উভয়ের জন্য আলাদা আলাদা স্যাম্পল কালেকশান ইউনিট, নারী ও পুরুষের আলাদা টয়লেট ও ওয়াশরুম, রিপোর্ট নেয়ার জন্য আলাদা রিপোর্ট ডেলিভারি কাউন্টার, ইমার্জেন্সি রোগীর ভর্তির জন্য ইমার্জেন্সি এডমিশান ডেস্ক এবং ইমার্জেন্সি ইউনিট। আউটডোর ফার্মেসি এবং ইমার্জেন্সি ইউনিটে মোট ২০টি বেডসহ ইমার্জেন্সি অপারেশান থিয়েটার এর সুবিধা চালু থাকবে। যা বাংলাদেশের অন্যকোন হাসপাতালে থাকবে না । এছাড়া বেসমেন্ট ১০ ও বেসমেন্ট ২০ তে প্রায় ১০০০টি প্রাইভেট কার পার্কিং সুবিধা। বিদ্যুৎ চলে গেলে ১৬০০ কেভিএ এর চারটি জেনারেটর এর ইনস্ট্যান্ট বিদ্যুৎ সুবিধার ব্যবস্থা থাকবে। সর্বাধুনিক মেশিনসমৃদ্ধ আল্ট্রাসনোগ্রাফি, ইসিজি, ইকোকার্ডিওগ্রাফি, ইটিটি, ইউরোফ্লোমেট্রি, এন্ডোসকপি, কোলনস্কপি, এমআরআই, এক্স-রে, সিটিস্ক্যান, বিএমডি সুবিধা। বিশ্বের আধুনিক কোম্পানির তৈরি মেশিন দিয়েএফ,আই, কে,হাসপাতালের সকল পরীক্ষা-নিরীক্ষা ব্যবস্থা করা হবে। এফ,আই, কে,হাসপাতালে থাকবে নারী ও পুরুষ উভয়ের জন্য আলাদা-আলাদা নামাজের জন্য মসজিদ, চেয়ারম্যান, ম্যানেজিং ডিরেক্টর, মেডিকেল ডিরেক্টরসহ জেনারেল স্টাফদের জন্য ব্লক,বোর্ড সেমিনার রুম ও হাসপাতাল একাউন্টস ব্লক। এছাড়া একাউন্টস ইন্টিগ্রেটেড হাসপাতাল ম্যানেজমেন্ট সফটওয়ার নিখুঁতভাবে পরিচালনা ও ইন্টারকানেকটিভিটি এর জন্য সর্বাধুনিক নেটয়ার্কিং সিস্টেম অত্যাধুনিক কম্পিউটারসহ সিসিটিভি মনিটরিং সিস্টেম যা প্রতিটি রোগীর নিরাপত্তাব্যবস্থা সার্বক্ষণিক সুনিশ্চিত করা হবে। কম খরচে অপারেশানের জন্য আধুনিক ১৬টি অপারেশান থিয়েটার সমৃদ্ধ অপারেশান থিয়েটার ইউনিট। এই ইউনিটে রোগীদের জন্য থাকবে আলাদা নিউরোসার্জারি অপারেশান থিয়েটার, ইএনটি অপারেশান থিয়েটার, জেনারেল সার্জারি অপারেশান থিয়েটার, সেপসিস অপারেশান থিয়েটার, ইউরোলোজি অপারেশান থিয়েটার, অর্থোপেডিক অপারেশান থিয়েটার, ল্যাপারোস্কোপি অপারেশান থিয়েটার, গাইনি ও অবস অপারেশান থিয়েটার। এছাড়াও আছে প্রি অপারেটিভ, পোস্ট অপারেটিভ, লেবার রুমের সুবিধা।
৫০টি আধুনিক বেড ও মেশিনারিসমৃদ্ধ কিডনি রোগীদের জন্য ডায়ালাইসিস সুবিধা, জটিল হৃদরোগীদের জন্য ১০০ বেডের সিসিইউ ও আইসিইউ এবং এইচডিইউ সুবিধা, নবজাতকদের জন্য৫০ বেডের এনআইসিইউ সুবিধা।
হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা নেয়া রোগীদের সুবিধা জন্য প্রায় ১২০০টি কেবিন ও বেডের সুবিধা থাকবে এই দুই ফ্লোরে। ভি.আই.পি কেবিন থেকে শুরু করে গরীব রোগীর জন্য থাকবে সমপর্যায়ের সেবার আন্তর্জাতিক মানের জেনারেল বেড সুবিধা। এছাড়া সার্বক্ষণিক ডাক্তার ও নার্সরা থাকার জন্য ডাক্তার স্টেশান ও নার্স স্টেশান থাকবে প্রতিটি ফ্লোরে। আকর্ষণীয় ও মনোরম পরিবেশে খাওয়া-দাওয়ার জন্য এই ফ্লোরে রয়েছে ২৪ ঘণ্টা রেস্টুরেন্ট সুবিধা। এই রেস্টুরেন্ট শুধু হাসপাতাল স্টাফ এবং রোগীরা ছাড়াও বাহিরের অতিথিদের জন্য থাকবে সুব্যবস্থা। দেশ-বিদেশ থেকে আগত ডাক্তার ও কনসালটেন্টদের জন্য রেস্টরুম ও খাওয়া-দাওয়ার জন্য সুব্যবস্থা। ওয়াশিং প্ল্যান্ট, সেন্ট্রাল স্টোর এবং সুবিশাল কনফারেন্স রুমের ব্যবস্থা থাকবে। রোগীদের জন্য ৪০জন ধারণক্ষমতা সম্পন্ন চারটি লিফট, ১০ জন ধারণক্ষমতা সম্পন্ন ২টি লিফট, কনসালটেন্টদের জন্য একটি লিফট এবং মালামাল পরিবহনের জন্য একটি কার্গো লিফটসহ মোট ৮টি লিফটের সুবিধা। সেন্ট্রাল এসি সিস্টেম, নিজস্ব অক্সিজেন প্ল্যান্ট, ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট, আরও প্ল্যান্টসহ পরিবেশবান্ধব অনেক সুযোগ-সুবিধা। হাসপাতালের কার্যক্রম নিখুঁতভাবে পরিচালনার জন্য মাইসফট লিমিটেড ইন্টিগ্রেটেড একাউন্টস সুবিধাসহ হাসপাতাল ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার নেয়া হবে। হাসপাতালের সফটওয়্যার ও বিভাগগুলোর মধ্যে ইন্টারকানেকটিভি, আইপি ক্যামেরার মাধ্যমে নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য ১০০ কোটি টাকা ব্যায়ে সিসকো সিস্টেমের সার্ভার রুম স্থাপন করা হবে। প্রায় ৮০০টি আইপি ক্যামেরার মাধ্যমে রোগী প্রবেশ থেকে শুরু করে বাহির হওয়া পর্যন্ত গতিবিধি লক্ষ্য রাখা হবে। আগুন লাগলে জরুরি ব্যবস্থা হিসেবে সেন্টাল ফায়ার এলার্ম, ফায়ার ফাইটিং সিস্টেম এবং গ্যাস এলার্মের ব্যবস্থা থাকবে।
এছাড়া জরুরি অবস্থায় ঘোষণার জন্য সেন্ট্রাল পিএ সিস্টেম সুবিধা আছে প্রতিটি ফ্লোরে।এফ আই কে হাসপাতাল এর বোর্ড অব ডাইরেক্টরসের সভায় ব্যবসায়িক কার্যক্রম পর্যালোচনায় অর্জিত সাফল্য ও অগ্রগতিতে সন্তোষ প্রকাশ করে বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ ব্যবসায়িক ও নীতিনির্ধারণী সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এ ছাড়া বিনিয়োগ সম্প্রসারণ করে দেশের শিল্পোন্নয়ন ও কর্মসংস্থান বৃদ্ধির মাধ্যমে জাতীয় অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনের জন্য দিকনির্দেশনা দেয়া হয়। ম্যানেজিং ডাইরেক্টর ও প্রধান নির্বাহী জনাব ফখরুল ইসলাম খান সি আই পি বলেন -আমার পিতা প্রয়াত হাজী শাহ আলম ও আমার মমতাময়ী মা সখিনা বেগমের একটি হাসপাতালের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন ছিল, সেটি বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছি। তিনি বলেন এই স্বপ্ন পূরনে আমি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বীর মুক্তি যোদ্ধা,বাংলাদেশ সরকারের গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রনালয়ের সাবেক মন্ত্রী, আওয়ামী লীগের সর্বোচ্চ নীতি-নির্ধারণী পদ প্রেসিডিয়াম সদস্য, চট্টগ্রাম – ১ (মীরসরাই) জাতীয় সংসদের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন মহোদয় সহ বর্তমান সরকারের সকল এমপি, মন্ত্রী ও প্রশাসনের সকল ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার সার্বিক সহযোগিতা কামনা করছি। আমার এলাকার সকল সাধারণ মানুষের দোয়া কামনা করছি। এফ আই কে হাসপাতাল এর বোর্ড অব ডাইরেক্টরসের সভা গত ১৪ সেপ্টেম্বর,সোমবার রাত ১০ টা, আবুধাবি একটি অভিজাত হোটেলে কনফারেন্স রুমে অনুষ্ঠিত হয়।এই সময় উপস্থিত ছিলেন এফ আই কে হাসপাতালের ম্যানেজিং ডাইরেক্টর ও প্রধান নির্বাহী জনাব ফখরুল ইসলাম খান সি আই পি, সুনামধন্য তিন জন ডাঃটেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে অংশ গ্রহণ করেন ডাঃকামাল উদ্দীন, ডাঃআজিজ উল্ল্যাহ, ডাঃ নাসরিন বেগম।আরো উপস্থিত ছিলেন মাওলানা এনামুল হক নিজামী, মাওলানা এনামুল হোসেন, কথা সাহিত্যিক মুহাম্মদ মুসা, ব্যাংকার মোহাম্মদ জাফর উদ্দিন ভূঁইয়া, মোহাম্মদ আক্তারউদ্দিন পারভেজ, সাংবাদিক মনিরউদ্দিন মান্না, তরুণ কবি আরাফাতুই ইসলাম চৌধুরী, মোহাম্মদ নাসের,লেখক রাজু আহম্মেদ, ইঞ্জিনিয়ার সোহেল আহম্মদ, বাবু দীপক চন্দ্র দাস, ইসলামি চিন্তাবিদ ইমরান হোসাইন,ইমাম হোসেন , বোরহান উদ্দীন, মোহাম্মদ আবু হাসনাথ হোসেন জাহেদ প্রমুখ। পরে সকলের জন্য দোয়া মোনাজাত করা হয়।