শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

বেশিরভাগ শিশুকে মাথায় গুলি করা হয়েছে

image_164102.peshwarschool

 

পাকিস্তানের পেশোয়ার শহরে আর্মি পাবলিক স্কুলের উগ্রবাদী তালেবান সন্ত্রাসীরা বেশিরভাগ শিশু-কিশোরকে মাথায় গুলি করে হত্যা করেছে। সন্ত্রাসীরা শিশু-কিশোরদের ওপর গুলি চালিয়েছে একদম পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ থেকে। এ তথ্য দিয়েছেন স্কুলের বেঁচে যাওয়া শিক্ষার্থীরা এবং প্রাদেশিক তথ্য মন্ত্রী মুশতাক আহমেদ গণি।গতকালের ওই ঘটনায় নিহত ১৪১ জনের মধ্যে স্কুলের শিক্ষার্থী অন্তত ১৩২ জন। এছাড়া, আহত হয়েছে শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী যার মধ্যে ২৫ জনের অবস্থা গুরুতর।বেঁচে যাওয়া শিক্ষার্থীরা জানিয়েছে, সন্ত্রাসীরা বাউন্ডারি দেয়াল টপকে স্কুলের ভেতরে ঢুকে পড়ে এবং এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে থাকে। এসময় বহুসংখ্যক ছাত্র-ছাত্রী স্কুল অডিটোরিয়ামে জড়ো হয়েছিল প্রাথমিক চিকিৎসার প্রশিক্ষণ নিতে। সে কারণে হতাহতের ঘটনা বেশি ঘটেছে।এদিকে, পাকিস্তানের আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর বা আইএসপিআর’র মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আসিম বাজওয়া বলেছেন, সন্ত্রাসীরা পণবন্দী করার উদ্দেশ্যে গতকাল ওই হামলা চালায় নি বরং তারা চেয়েছিল যত বেশি পারা যায় হত্যাকাণ্ড চালাবে। তিনি বলেন, সন্ত্রাসীদের হত্যাযজ্ঞ দেখে মনে হয়েছে তারা হত্যাকাণ্ডের উদ্দেশ্যে হামলা চালায় এবং তারা তাই করেছে। গতরাতে গণমাধ্যমকে ব্রিফ করার সময় জেনারেল আসিম বাজওয়া এসব কথা বলেন। – সূত্র : আইআরআইবি