Thursday, November 15Welcome khabarica24 Online

বিএনপিতে খালেদা-তারেকের প্রতিদ্বন্দ্বী নেই

509d300390994207bb18bec3032c3f12-kahaleda

খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানখালেদা জিয়া ও তাঁর ছেলে তারেক রহমান আবারও বিএনপির চেয়ারপারসন ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন। দলের শীর্ষ এই দুই পদে মা, ছেলের কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী পাওয়া যায়নি। এ দুটি পদে খালেদা ও তারেকের পক্ষেই শুধু মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করা হয়েছে। তাঁরা এখনো যথাক্রমে দলের চেয়ারপারসন ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যানের দায়িত্বে আছেন।বিএনপির ষষ্ঠ কাউন্সিল সামনে রেখে আজ বুধবার চেয়ারম্যান ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনের মনোনয়নপত্র বিতরণ করা হয়। রিটার্নিং কর্মকর্তা বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র বিতরণ করেন। বেলা পৌনে ১১টার দিকে বিএনপির চেয়ারপারসন পদে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন বর্তমান চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তাঁর পক্ষে এজেন্ট বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী মনোনয়নপত্র নেন। বেলা সাড়ে তিনটার দিকে সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান পদে তারেক রহমানের জন্য মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করা হয়। বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মো. শাহাজাহান তারেক রহমানের এজেন্ট হিসেবে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন।মনোনয়নপত্র সংগ্রহের নির্ধারিত সময় শেষে রিটার্নিং কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম খান সাংবাদিকদের বলেন, বিএনপির চেয়ারপারসন পদে খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান পদে তারেক রহমানের পক্ষে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করা হয়েছে। তাঁরা অপেক্ষা করেছিলেন, আর কেউ নেয় কি না। কিন্তু আর কেউ মনোনয়নপত্র নেননি। কিন্তু এখনই খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান নির্বাচিত হয়ে যাননি। এ জন্য যাচাই, বাছাই ও মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ সময় ৬ মার্চ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।চেয়ারপারসন ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনের জন্য ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, ২ মার্চ সকাল ১০টা থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত মনোনয়নপত্র সংগ্রহ, ৪ মার্চ মনোনয়নপত্র জমা, ৫ মার্চ যাচাই-বাছাই ও ৬ মার্চ সকাল ১০টা থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করা যাবে। ১৯ মার্চ হবে নির্বাচন। ওই দিনই বিএনপির জাতীয় কাউন্সিল।বিএনপির গঠনতন্ত্রে বলা আছে, জাতীয় কাউন্সিলের সদস্যদের সরাসরি ভোটে সাধারণ সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে তিন বছরের জন্য দলের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন।আর সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচনের বিষয়টি গত ১০ ফেব্রুয়ারি দলের স্থায়ী কমিটির সভায় অনুমোদন দেওয়া হয়। এ জন্য ওই দিন দলের গঠনতন্ত্র সংশোধন করার প্রয়োজনীয় অনুমোদন দেন খালেদা জিয়া।বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের স্ত্রী খালেদা জিয়া ১৯৮৪ সাল থেকেই দলটির চেয়ারপারসনের দায়িত্বে আছেন। আর ছয় বছর আগে ২০০৯ সালের ডিসেম্বরে দলের সর্বশেষ কাউন্সিলে সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান পদ তৈরি করে তাতে খালেদা জিয়ার বড় ছেলে তারেক রহমানকে বসানো হয়।