Sunday, September 23Welcome khabarica24 Online

বর্ণাঢ্য আয়োজনে চট্টগ্রাম জেলা ডিজিটাল সেন্টার উদ্যোক্তা ফোরামের বার্ষিক আনন্দ ভ্রমণ সম্পন্ন.

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ চট্টগ্রাম জেলা ডিজিটাল সেন্টার উদ্যোক্তা ফোরামের উদ্যোগে উদ্যোক্তাদের বার্ষিক আনন্দ ভ্রমন সম্পন্ন হয়েছে। গত ২ ফেব্রুয়ারী চট্টগ্রামের সীতাকুন্ড উপজেলার বাঁশবাড়ীয়া সমুদ্র সৈকতে প্রথমবারের মতো এই আনন্দ ভ্রমণ অনুষ্ঠিত হয়।
আনন্দ ভ্রমনে অংশগ্রহণ করেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) হাবিবুর রহমান, সীতাকুন্ড উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজমুল ইসলাম ভূইয়া, সীতাকুন্ড উপজেলা নির্বাচন অফিসার পরান্টু চাকমা, বাঁশবাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শওকত আলী জাহাঙ্গীর, চট্টগ্রাম জেলা উদ্যোক্তা ফোরামের সভাপতি মো: ফারুক, সাধারণ সম্পাদক জাহেদ হোসেন। এছাড়াও আনন্দ ভ্রমণে চট্টগ্রাম জেলার ১০০ জনের অধিক উদ্যোক্তা অংশগ্রহণ করেন।
আনন্দ ভ্রমণে নারী ও পুরুষ উদ্যোক্তাদের নিয়ে বিভিন্ন খেলাধুলার আয়োজন করা হয় এবং বিজয়ীদের মাঝে আকর্ষনীয় পুরষ্কার বিতরণ করা হয়।
দুপুরের খাবারের পরে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা এবং দক্ষিণ জেলার উদ্যোক্তাদের নিয়ে প্রিতি ফুটবল ম্যাচের আয়োজন করা হয়। ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হয়।
বিকেলে উদ্যোক্তাদের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।
অনুষ্ঠানের শেষে লাকী কুপন বিজয়ী বিশ জন উদ্যোক্তার মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করা হয়। বিজয়ীদের হাতে পুরষ্কার তুলে দেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) হাবিবুর রহমান ও বাঁশবাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শওকত আলী জাহাঙ্গীর।
ফোরামের সভাপতি মো: ফারুক বলেন, উদ্যোক্তাদের উপস্থিতি আমাদের মুগ্ধ করেছে। সকলের সহযোগিতা পেলে এমন আয়োজন আমরা প্রতি বছর করতে পারবো। তিনি অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। আর আনন্দ ভ্রমণে অংশগ্রহণকারী সকল উদ্যোক্তাদের ধন্যবাদ জানান।
ফোরামের সাধারণ সম্পাদক জাহেদ হোসেন বলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) স্যারের আন্তরিকতা আর সহযোগিতা না ফেলে আমরা এত বড় আয়োজন কখনোই করতে পারতাম না। স্যারের পরামর্শেই মূলত আমরা এই উদ্যোগ গ্রহণ করি। আমাদের সার্বক্ষনিক সহযোগীতা ও কাজের মানসিকতা যোগিয়েছেন স্যার। স্যারকে উদ্যোক্তাদের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানাই। আর ভবিষ্যতেও আমাদের জন্য স্যারের সহযোগিতা আব্যাহত থাকবে বলে আশাকরি। পাশাপাশি আনন্দ ভ্রমনে অংশগ্রহণকারী সকল উদ্যোক্তা ও অতিথিদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি।
সমাপনি বক্তব্যে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক বলেন, চট্টগ্রাম জেলা উদ্যোক্তা ফোরামের এমন আয়োজনে সত্যিই আমরা আনন্দিত। এত সুন্দর মনোরম পরিবেশে এমন একটি আয়োজন এর আগে আর কেউ করতে পারেনি। তাই এমন আয়োজনের জন্য উদ্যোক্তাদের ধন্যবাদ জানাই। তিনি আনন্দ ভ্রমনের কাছে সার্বিক সহযোগীতা করার জন্য বাঁশবাড়ীয়া ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তা
মোহাম্মদ সালাহ উদ্দিন রুবেলকেও ধন্যবাদ জানান ও সব সময় উদ্যোক্তাদের মিলেমিশে কাজ করার জন্য অনুরোধ করেন।