Friday, September 21Welcome khabarica24 Online

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

 ঢাকার একটি  নিউজ পোর্টাল নাম ‘অপরাধ বিচিত্রা’। যে পোর্টালে গত ২৮শে মে সকাল ৯টা ৫৪ মিনিটের সময় প্রকাশ করে “চট্টগ্রামের ইয়াবা গডফাদার বাবর প্রশাসনের ধরা-ছোঁয়ার বাইরে”। উপরে উল্লেখিত শিরোনামে প্রকাশিত এমন সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় যুব লীগের উপ- অর্থ বিষয়ক সম্পাদক হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর। এক প্রতিবাদ লিপিতে তিনি বলেন, প্রকাশিত সংবাদে আমাকে ইয়াবা গডফাদার বলা হয়েছে। যার কোন ভিত্তি নেই এবং নেই কোন তথ্য প্রমাণ ও। বস্তুনিষ্ট নয় বরং মনগড়া একটি সংবাদ এটি। কেননা চট্টগ্রামেরর কোন প্রশাসনের কাছে আমি যে মাদক বিক্রেতা সে রকম কোন অভিযোগ নেই। অথচ সংবাদে যেসব উদ্ভট আর ভুয়া তথ্য দিয়ে উদ্দেশ্য প্রনোদিতভাবে কোন মাধ্যমে প্ররোচনায় লিপ্ত হয়ে আমার দীর্ঘ দিনের রাজনীতির সুনাম ক্ষুন্ন করার কুমানসে এ সংবাদটি প্রকাশ করেছে বলে আমি মনে করি। যে সংবাদ প্রচার করা হয়েছে। তা সম্পুর্ণ ভুয়া ও সম্পুর্ণটি অপপ্রচার ছাড়া আর কিছু নয়। আমি দীর্ঘদিন রাজনীতি করার পাশপাশি অত্যন্ত সুনামের সাথে চট্টগ্রামে নিজের ব্যবসা বানিজ্যও পরিচালনা করে আসতেছি। কিন্তু দেশের প্রথম সারির পোর্টাল কিংবা পাঠক সমাদৃত ও নয়। অথচ সরকারি নিবন্ধনবিহীন একটি নাম সর্বস্ব পোর্টালে এমন আজগবি খবরে কাউকে বিভ্রান্তি না হতে অনুরোধ জানাচ্ছি। কেননা ইহা সম্পূর্ন মিথ্যা বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। আমাকে সমাজে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য এ ধরনের ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে বলে আমি মনে করি। বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, আওয়ামী লীগের একটি ঐতিহ্যবাহী সহযোগী সংগঠন। যেখানে রয়েছে যুব সমাজের অধিকার রক্ষা ছাড়াও শিক্ষা শান্তি প্রগতির ধারা ও সর্বদা বিরাজমান। যে সংগঠন দেশ গঠনেও বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখছেন। কিছুতেই মাদক, সন্ত্রাস আর অস্ত্রবাজে আওয়ামী যুবলীগ বিশ্বাস করেনা। অতীতে আমি ছাত্রলীগ, আওয়ামী যুবলীগ ও নানা সামাজিক সংগঠনের সাথে জড়িত ছিলাম। এবং শান্তিপূর্নভাবে নানা কর্মসূচি পালনে বলিষ্ঠ ভূমিকা রেখেছি। তা দেখে আমার প্রতিপক্ষেরা এমন ভুয়া সংবাদ প্রচারে জড়িত থাকতে পারে বলে আমি মনে করি। প্রকৃতপক্ষে সংবাদে যে সমস্ত তথ্য উপস্থাপন করা হয়েছে।তার সবকটি বানোয়াট আর কাল্পনিক রঙ্গে সাজানো একটি নিউজ বোম। আর হাস্যকর তথ্য বিভ্রাট। এমন অবস্থায় এ ধরনের কাল্পনিক সংবাদ নিছক তামাশা বৈ আর সর্বৈব মিথ্যা উদ্দেশ্য প্রনোদিত অপ্রচারমূলত। সংবাদটি আমাকে সামাজিক, পারিবারিক ও পেশাগতভাবে হেয়প্রতিপন্ন করেছে। আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। কাজেই আমি দ্বর্থ্যহীনভাবে বলতে চাই, প্রকাশিত ওই রিপোর্টের সঙ্গে আমার কোনো সম্পৃক্ততা নেই। এমনকি চ্যালেঞ্জ করে বলতে পারি এসব অনৈতিক কাজে আমি জড়িত না। শংশ্লিষ্ট প্রশাসন ও বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থাসহ সকলকে এমন অনুমোদনহীন ভুইফোঁড় সংবাদ প্রচারকারী পোর্টালের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ জানাচ্ছি। প্রতিবাদকারী: হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর চট্টগ্রাম।-(প্রেস বিজ্ঞপ্তি)