বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ৩০ বৈশাখ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

দুবাইয়ে ভক্ত-সমর্থকদের উচ্ছ্বাসে টি-২০ বিশ্বকাপ

কামরুল হাসান জনি, দুবাই :
2-20

বাংলাদেশের মাটিতে অনুষ্ঠিত এবারের টি-২০ বিশ্বকাপ নিয়ে প্রবাসী ভক্ত-সমর্থকদের আগ্রহ ছিলো দ্বিগুণ।  আয়োজক ও স্বাগতিক দেশ হিসেবে প্রবাসী বাংলাদেশিদের মাঝে ছিলো অন্যরকম আনন্দ। এমনকি প্রবাসী বাংলাদেশিরা ক্রিকেটারদের উৎসাহ প্রদানের জন্য ঘরোয়া আয়োজন করেছিলেন  ‘ চর ছক্কা হৈ হৈ… বল গড়াইয়া গেলো কই ’ গানের ফ্ল্যাশ মব।

এবারের টি-২০ এর সফল আয়োজনে বাংলাদেশকে অন্যরকম ভাবেই চিনেছে বিশ্ববাসী। আয়োজনের দিক থেকে শতভাগ সফল হয়েছে বাংলাদেশ এমন মন্তব্যও করছেন ক্রিকেট প্রেমীরা।টি-২০ এর এবারের আসরে সংযুক্ত আরব আমিরাত অংশ গ্রহণ করায় বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান আর শ্রীলঙ্কান প্রবাসী ছাড়াও আমিরাত অধিবাসীদের মধ্যেও ব্যাপক ভাবে ক্রিকেট উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। শুরু থেকেই প্রবাসীদের মাঝে যেমন ছিলো উচ্ছ্বাস আর উল্লাস তেমনি ফাইনালে উর্ত্তীণ হওয়া ভারত-শ্রীলঙ্কার খেলায়ও ছিলো দর্শকদের তুমুল উত্তেজনা।

দুবাইয়ের ছোট-বড় সব মার্কেট গুলোতেই ছিলো ক্রিকেট দর্শকদের ভিড়। এমনকি ছোট ছোট দোকান, রেষ্টুরেন্ট ও ব্যাচলর রুম গুলোতে ভিড় করেছেন ক্রিকেট জ্বরে আক্রান্ত ভক্তরা। বাংলাদেশ ও পাকিস্তান ফাইনালে না আসতে পারলেও ক্রিকেটের অন্য দুই শক্তিধর ভারত ও শ্রীলঙ্কার ফাইনাল খেলা নিয়ে উত্তেজনাটাই যেন স্বাভাবিক ছিলো ক্রিকেটের চিরশত্রু খ্যাত ভারত-পাকিস্তান এর দর্শকদের মাঝে। ব্যাটে বলে আসা রান আর চার-ছক্কার উত্তেজনায় মেতে থাকলেও পাকিস্তানী ভক্ত-দর্শকদের সম্পূর্ণ সমর্থন ছিলো শ্রীলঙ্কার পক্ষে। আর নিজেদের ক্রিকেট দলের প্রতি পূর্ণ বিশ্বাস রেখে সমর্থন দিয়েছেন ভারতীয়রা। তবে ভিন্নতা ছিলো প্রবাসী বাংলাদেশীদের। কেউ ভারত আর কেউ শ্রীলঙ্কাকে সমর্থন করে খেলা উপভোগ করেন।

কুমারা সাঙ্গাকারার অর্ধশত ও ১৩ বল বাকি থাকতে টি-২০ এবারের আসরে সবচেয়ে ফেভারেট দল ভারতকে হারিয়ে যখন চ্যাম্পিয়ান হওয়ার স্বাদ নিলো শ্রীলঙ্কা, তখনই ভিন্ন ভিন্ন ভাবেই ক্রিকেট ভক্তরা অভিনন্দন জানালো শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট দলকে। সেই সাথে সফল আয়োজক হিসেবে বাংলাদেশের সাফল্যের কথাও বলতে ভুল করেননি প্রবাসী ক্রিকেট প্রেমীরা।