Tuesday, September 25Welcome khabarica24 Online

ঢাকা বইমেলায় মোড়ক উম্মোচন হলো ‘ দুঃখের ফেরিওয়ালা’ : দুই বাংলায় সফলভাবে সমাদৃত

::মাহবুব পলাশ ::
মহান স্রষ্ঠার অশেষ কৃপায় কলকাতার পর বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারী) ঢাকা বইমেলায় আমার লিখা ‘ দুঃখের ফেরিওয়ালা ’ এর মোড়ক উম্মোচন হলো। নিজের দেশের অনেক গুণীজনের মুখে আমার বইয়ের আলোচনামুখর উম্মোচনে আমি সত্যিই অনুপ্রাণিত। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানস্থ বইমেলার মোড়ক উম্মোচন মঞ্চে বিকাল ৫টায় মোড়ক উম্মোচন করেন দেশের প্রখ্যাত শিশু সাহিত্যিক রফিকুল হক দাদু ভাই। এসময় তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন মাহবুব পলাশ’কে নিয়ে কবি নির্মলেন্দু গুণ ও প্রয়াত কবি সমূদ্র গুপ্ত এর উক্তি এবং তার কবিতায় প্রেম- বিরহের আধিক্যতা লক্ষ্যনীয়। এছাড়া শব্দের গাঁথুনিতে কষ্ট ও দুঃখের সরব প্রস্ফুটন পাঠকদের ভিন্নতর বিরহ স্বাধ দিতে সক্ষম। তিনি বলেন এই সংবাদকর্মী নিজেকে দুঃখের ফেরিওয়ালা হিসেবে উপস্থাপনে বইয়ের নামকরণ যথার্থ। তবে গ্রন্থ এবং কবিতার মান অনুযায়ী প্রচ্ছদ দূর্বলতা ও মূদ্রণ ক্রুটির কথা ও অনুযোগ করেন তিনি। কবি ও অভিনেতা সোহেল রশিদ এর সঞ্চালনায় এসময় আরো বক্তব্য রাখেন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শব্দ সৈনিক মনোরঞ্জন ঘোষাল, মহাকবি কাইয়ুম নিজামী, দৈনিক যুগান্তরের সহ সম্পাদক হিমেল চৌধুরী ও দৈনিক ভোরের কাগজ এর সম্পাদকীয় সহকারি ছালেক নাছির উদ্দিন। অনুভূতি ব্যক্ত করেন কবি মাহবুব পলাশ। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন গ্রন্থের প্রকাশক শিল্পী ও সাংবাদিক রণজিত ধর, কবি ফারজানা ইসলাম, কবি ও সাংবাদিক রাজিব মজুমদার, নাট্যাভিনেতা জুয়েল কাজল, জান্নাতুল ফেরদৌস ফেন্সী, সাংবাদিক আমিনুল হক, শরিফ উদ্দিন শিবলু, আব্দুল মান্নান রানা, সানোয়ার ইসলাম রনি, তৌহিদুল ইসলাম, মিসেস কাজল, মাহফুজা খান সোমা, সুমি, বিউটি প্রমুখ ব্যক্তিবর্গ। অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে এসে যোগ দেন মীরসরাইয়ের আরেক গুণীজন মীরসরাইয়ের ইতিহাস ও সংস্কৃতি গ্রন্থের প্রণেতা গবেষক আহমদ মমতাজ।
কবি মাহবুব পলাশ তার অনুভূতি ব্যক্ত করাকালীন বলেন কলকাতায় দুঃখের ফেরিওয়ালা’র আনন্দ মুখর মোড়ক উম্মোচন হবার পর ঢাকায় ও এতোটা সমৃদ্ধ মোড়ক উম্মোচনে আমি আবিভূত। বিশেষ করে সমাদৃত গুণীজনগনের দোয়া ও আশীর্বাদ নিয়ে কবিতার সাথে আমার এই যাত্রা যেন নিজের মধ্যে নতুন দীগন্তের উম্মোচন ঘটালো। আমি সত্যিই সকলের ভালবাসা ও স্নেহ এর কাছে অনেক বেশী কৃতজ্ঞ।
উল্লেখ্য যে বইটি পাওয়া যাচ্ছে ঢাকার তৃপ্তি প্রকাশ কুঠি ( ষ্টল নং ১২৭/১২৮), কলকাতা : অরণ্যময় প্রকাশনী ( ৩৭৫ নং ষ্টল) ও লিটল ম্যাগাজিন প্যাভিলিয়ন এর একালের ধূমকেতু ( ১৬৬ নং টেবিল)।