বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ৩০ বৈশাখ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

জিতলেই দ্বিতীয় রাউন্ডে ব্রাজিল

28271_f2

এবারের বিশ্বকাপে পোস্টারবয়-এর মর্যাদাটা ব্রাজিল স্ট্রাইকার নেইমারের। আর তা যে অহেতুক বাড়াবাড়ি নয়, প্রথম ম্যাচে জোড়া গোলে তার সাক্ষ্য দেন তিনি নিজেই। নেইমারকে নিয়ে যত চিন্তা প্রতিপক্ষ মেক্সিকো অধিনায়ক রাফায়েল মার্কেসেরও। ফোরতালেজা’য় রাতে মোকাবিলায় নামছে স্বাগতিক ব্রাজিল ও উত্তর আমেরিকার দেশ মেক্সিকো। ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচটি মাঠে গড়াবে রাত ১টায়। প্রথম ম্যাচে জয় পাওয়ায় বাড়তি চাপ নেই আজ দু’দলেরই। তবে আজ জয় পেলেই দ্বিতীয় রাউন্ডের টিকিট অনেকটা নিশ্চিত। উদ্বোধনী ম্যাচে নেইমারের জোড়া গোলে ক্রোয়েশিয়াকে ৩-১ ব্যবধানে হারিয়ে এবারের মিশন শুরু করে ব্রাজিল। নিজেদের প্রথম ম্যাচে মেক্সিকো ১-০ গোলে হারায় আফ্রিকার সিংহ ক্যামেরুনকে। আর দ্বিতীয় ম্যাচে ব্রাজিলকে মোকাবিলার আগে মেক্সিকো অধিনায়ক এফসি বার্সেলোনার সাবেক তারকা রাফায়েল মার্কেস বলেন, নেইমারকে খেলতে দেয়া যাবে না। আজ মাঠে তাকে খেলার জন্য বড় জায়গা ছাড়বো না আমরা। আমরা জানি নেইমার অস্কার হাল্কদের ঠেকাতে হলে আমাদের খেলায় গতি বাড়াতে হবে। একজনের পেছনে লাগতে হবে দু’জনকে। প্রতিবেশী মহাদেশের দুই প্রতিদ্বন্দ্বী দেশ ব্রাজিল-মেক্সিকোর ফুটবল লড়াইয়ের ইতিহাসটা পুরনো। এতে জয়ের পাল্লা ভারি পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিলেরই। এ পর্যন্ত ৩৯ বার পরস্পর মোকাবিলায় নেমেছে ব্রাজিল-মেক্সিকো। এতে ব্রাজিল জয় দেখেছে ২৩ বার। ৬ ড্রয়ের বিপরীতে মেক্সিকোর এতে ১০ জয়। তবে গত এক যুগের পরিসংখ্যানে হেভিওয়েট দল ব্রাজিলের বিপক্ষে দাপটের ইতিহাস মেক্সিকোর। ১৯৯৯ থেকে এ পর্যন্ত ১৩ বারের মোকাবিলায় ব্রাজিলের চার জয়ের বিপরীতে মেক্সিকো জয় পেয়েছে ৭ বার। এতে দুই ম্যাচ ড্র। আজ ব্রাজিল দলে খেলা অনিশ্চিত ফরোয়ার্ড হাল্কের। রোববার দলের অনুশীলনে গোড়ালিতে চোট পেয়েছেন এ ব্রাজিল স্ট্রাইকার। ব্রাজিল কোচ লুইস ফিলিপে স্কলারির দলে এ জায়গায় জায়গা পেতে পারেন ইংলিশ দল চেলসির মাঝমাঠের তারকা রামিরেস। তবে এ জায়গায় সুযোগ হতে পারে তরুণ তারকা বার্নাডেরও। ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে বদলি হিসেবে মাঠে নেমে আলাদা চোখে পড়ে বার্নার্ডের নৈপুণ্যও। তবে ইনজুরিমুক্ত দল নিয়ে আপাতত চিন্তামুক্ত মেক্সিকো কোচ মিগুয়েল হেরেরা। তবে হাভিয়ের হার্নানদেজকে আজও বেঞ্চে দেখাতে পারেন ভক্তরা। ইংলিশ দল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের এ স্ট্রাইকার এর আগে সুযোগ পাননি ক্যামেরুনের বিপক্ষে আসরে মেক্সিকোর প্রথম ম্যাচে। আজ দু’দলের প্রধান লড়াইটা দেখা যাবে মাঝমাঠেই। প্রথম ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে মাঝমাঠে প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়দের ভোগান্তিতে রাখছিলেন লুইস গুস্তাভো ও পাউলিনহো। আর ক্যামেরুনের বিপক্ষে মেক্সিকোর মাঝমাঠে দুর্বার নৈপুণ্য দেখান ভাসকেজ, লাইউনরা।
সম্ভাব্য একাদশ
ব্রাজিল: সিজার (গোলরক্ষক), আলভেস, সিলভা, লুইজ, মার্সেলো, পাউলিনহো, গুস্তাভো, রামিরেস, অস্কার, নেইমার ও ফ্রেড।
মেক্সিকো: ওচোয়া (গোলরক্ষক), রদ্রিগেজ, মার্কেস, হেরেরা, লাইউন, দস সান্তোস, মরেনো, গার্দাদো, পেরালতা, আগিলার ভাসকেস।

সর্বশেষ নৈপুণ্যচিত্র
১২ই জুন ২০১৪: ব্রাজিল ৩-১ ক্রোয়েশিয়া
৬ই জুন ২০১৪: ব্রাজিল ১-০ সার্বিয়া
৩রা জুন ২০১৪: ব্রাজিল ৪-০ পানামা
৫ই মার্চ ২০১৪: ব্রাজিল ৫-০ দ. আফ্রিকা
২০শে নভে: ২০১৩: ব্রাজিল ২-১ চিলি
১৩ই জুন ২০১৪: মেক্সিকো ১-০ ক্যামেরুন
৭ই জুন ২০১৪: মেক্সিকো ০-১ পর্তুগাল
৪ঠা জুন ২০১৪: মেক্সিকো ০-১ বসনিয়া
৩১ মে ২০১৪: মেক্সিকো ৩-১ ইকুয়েডর
২৯ মে ২০১৪: মেক্সিকো ৩-০ ইসরাইল।