শনিবার, ১৩ আগস্ট ২০২২, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

কারাগার সংস্কার করে রাখতে বললেন রিজভী

rezvi_211876
দেশের কারাগারগুলোকে সংস্কার করে রাখতে ক্ষমতাসীনদের প্রতি ইঙ্গিত দিয়েছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। বুধবার দুপুরে গণমাধ্যমে পাঠানো বিএনপির সহ-দফতর সম্পাদক আব্দুল লতিফ জনি স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, নুরেমবার্গ ট্রায়ালের মতো বাংলাদেশের মাটিতেও যে দেশের নাৎসি সহযোগীদের বিচার হবে। সুতরাং এখন থেকেই কারাগারগুলো সংস্কার করে রাখলে ভালো হয়।সম্প্রতি বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে নাশকতার একাধিক মামলা এবং তাকে গ্রেফতারের বিষয়ে সরকারের মন্ত্রী-এমপিদের আলোচনার পর রিজভী বলেন, বেগম জিয়ার বিরুদ্ধে মামলা ও তাকে গ্রেফতারের ষড়যন্ত্র বন্ধ না হলে, মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে প্রসারিত না করলে বিরোধী দল লড়াই ব্যতিরেকে নতিস্বীকার করবে না।চলমান আন্দোলন ঠেকাতে বিরোধী দল দমনে আইনশৃ্ঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ‘নির্মূলযুদ্ধে’ নেমেছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব বলেন, বাংলাদেশকে একটি ভঙ্গুর রাষ্ট্রে পরিণত করার জন্য যা যা করা দরকার তার সব কিছুই করেছে অবৈধ সরকার। তিনি বলেন, দেশব্যাপী ক্রসফায়ার আর বন্দুকযুদ্ধের মনগড়া কাহিনী তৈরি করে আন্দোলনরত তরুণ নেতাকর্মীদের মায়ের কোল থেকে ছিনিয়ে নিয়ে এরাই হত্যা করেছে। রক্তের ঘ্রাণ নেওয়াটাই যেন তাদের একমাত্র দায়িত্ব, মানুষের জানমালের নিরাপত্তা নয়।

 রিজভী অভিযোগ করেন, রাজপথে মানুষের ধেয়ে আসা স্রোতকে আটকাতে না পেরে পেট্রোলবোমা ছুড়ে মানুষকে পুড়িয়ে মারার এক অমানবীয় নাশকতার মরণখেলায় তারা মেতে উঠেছে। এই খেলার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে জনগণের মনকে আন্দোলন থেকে অন্যদিকে সরানো এবং এর দায় বিরোধী দলের ওপর চাপানো।খালেদা জিয়াকে নিয়ে তথ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের সমালোচনা করে রিজভী আহমেদ বলেন, বেগম জিয়াকে গ্রেফতার ও বিচারের অহর্নিশ হুমকি দিয়ে হাসানুল হক ইনুরা দেশকে নিয়ে যেতে চাচ্ছেন চরম সংঘাতের দিকে। বিদ্যমান সঙ্কটকে তারা আরও বেশী ঘনীভূত করতে চাচ্ছেন।