শনিবার, ৪ জুলাই ২০২০, ২০ আষাঢ় ১৪২৭খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

ওসি মজিবুর রহমানের উদ্যোগ মহাসড়কে ডাকাতি প্রতিরোধে স্ট্রিট লাইট ও সোলার

কামরুল হাসান :: মীরসরাইয়ে করোনার এই দুঃসময়ে সকল চ্যালেঞ্জকে মোকাবেলা করে কখনো সকাল কখনো ভরদুপুর কখনো বিকাল কিংবা গভীর রাতেই ছুটে চলছেন প্রশাসনিক দায়িত্ব পালনে নিরবধি। মীরসরাই থানায় যোগদান করার পর হতেই নতুন নতুন সিদ্ধান্ত এবং সেবা চালু করে মীরসরাইবাসীর অন্তরে স্থান করে নিয়েছেন মিরসরাই থানার অফিসার ইনচার্জ জনাব মজিবুর রহমান পিপিএম।
এবার ডাকাতি প্রতিরোধে ভিন্ন উদ্যোগে মাঠে ওসি মীরসরাই মজিবুর রহমান। চুরি ডাকাতি প্রতিরোধে থানা এলাকার মহাসড়কের ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় সোলার লাইট এবং স্ট্রীট লাইট স্থাপন করেছেন মীরসরাই থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মুজিবুর রহমান পিপিএম। এতে করে মহাসড়কে গাড়ি চালক এবং পথচারীদের মধ্যে অনেকটা স্বস্তি ফিরে এসেছে বলে জানা যায়।
উক্ত পথ দিয়ে আসা এক ট্রাক ড্রাইভার সাথে কথা বলে জানা যায়,আমরা এখন খুবই আনন্দিত এবং ভয়হীন। মহাসড়কের ঝুঁকিপূর্ণ এমন জায়গায় সোলার লাইট এবং স্ট্রীট লাইট স্থাপন করে এমন মহতী একটা উদ্যোগ গ্রহণ করার জন্য মীরসরাই থানা পুলিশ কে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই। অস্বস্তিকর এই জায়গার মধ্যে প্রাণের সঞ্চার করে দিয়েছে মীরসরাই থানা পুলিশ। আমরা এখন নিরাপদে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক দিয়ে যাতায়াত করতে পারছি।সম্পূর্ণ নির্ভয়ে পুলিশি তৎপরতায় আমরা সবসময়ই নিরাপদে রয়েছি।
সোলার লাইট স্থাপন এবং ডাকাতি প্রতিরোধে মীরসরাই থানার অফিসার ইনচার্জ মজিবুর রহমান বলেন, থানা এলাকায় ডাকাতি এবং মাদক নির্মূলে মীরসরাই থানা পুলিশ বদ্ধপরিকর সম্পূর্ণ জিরো টলারেন্স।চট্টগ্রাম জেলার মানবিক পুলিশ সুপার এসএম রশিদুল হক স্যারের নির্দেশনায় আমরা প্রতিদিনই মাদক বিরোধী অভিযান এবং চুরি-ডাকাতি বিরোধী অভিযান অব্যাহত রেখেছি।ইতিমধ্যে আমরা মহাসড়কে ডাকাতি প্রতিরোধে নয়দুয়ারিয়া এলাকায় মহাসড়কে প্রায় এক কিলোমিটার পর্যন্ত সোলার লাইট এবং হাই ভোল্টেজ পাওয়ার লাইট স্থাপন করেছি।পাশাপাশি সারা রাত মহাসড়কে থানা পুলিশ এবং হাইওয়ে পুলিশের যৌথ সমন্বয়ে জোরালো টহল অব্যাহত রেখেছি।আমরা চাই মহাসড়কে ডাকাতি এবং মাদক চোরাকারবারীদের আনাগোনা সম্পূর্ণভাবে নির্মূল হোক।তাই আমি সকলের সহযোগিতা কামনা করছি।
তিনি আরো জানান, জেলা পুলিশ সুপার স্যারের নির্দেশনা মোতাবেক মীরসরাই থানা এলাকায় নিয়মিত মাদক বিরোধী চলমান অভিযান আরো জোরদার করা হবে।মাদক ক্রয় এবং বিক্রয়ের সাথে জড়িত উভয়কে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।মাদকের ব্যাপারে কাউকে কোনো ধরনের ছাড় দেওয়া হবে না। মাদক এবং ডাকাতি নির্মূল করার জন্য মীরসরাইয়ের সর্বস্তরের জনসাধারণ এবং জনপ্রতিনিধিদের সর্বাত্মক সহযোগিতা করছি।