মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৭ আশ্বিন ১৪২৭খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

এলাকাবাসীর প্রতিবাদে অবশেষে বাতিল হলো করেরহাটের স্কুলমাঠে মার্কেট নির্মান


নিজস্ব প্রতিনিধি :: মীরসরাই উপজেলার করেরহাট কেএম উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে মার্কেট নির্মানের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করায় এলাকার কিছু প্রতিবাদি প্রাক্তন ছাত্র ‘মাঠ চাই’ দাবীতে আন্দোলন ঘোষনা করে। ১ সেপ্টেম্বর ( মঙ্গলবার) সকাল ১০ টা থেকে প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয় মাঠে অবস্থান করে মানববন্ধন এর আয়োজন করে। এক পর্যায়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রুহুল আমিন বিদ্যালয়ে সরেজমিনে আসেন। উক্ত বিষয় নিয়ে আন্দোলনকারীগন, বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও প্রশাসন এর যৌথ সমন্বয়ে অনুষ্টিত আলোচনায় বিদ্যালয়ের নির্মানের জন্য ঘোষিত মার্কেট নির্মানের ঘোষনা বাতিল করেন বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি শাখাওয়াত উল্লাহ রিপন। এসময় সকলের মধ্যে মতবিরোধ ভুলে মাঠ রক্ষাকে প্রাধান্য দিয়ে বিদ্যালয়ের উন্নয়নে সহযোগিতার প্রত্যয় ব্যক্ত করে আরো বক্তব্য রাখেন স্থানীয় করেরহাট ইউপি চেয়ারম্যাান এনায়েত হোসেন নয়ন, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সুলতান গিয়াস উদ্দিন জসিম, সাধারন সম্পাদক শেখ সেলিম, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক আবুল হোসেন, প্রাক্তন ছাত্র অহিদুন্নবী শোভন প্রমুখ। আবার বিদ্যালয়ে নির্মানাধিন একটি সরকারি ভবনের স্থানের বিষয়ে ও আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের পক্ষে আলাউদ্দিন আলো ও আমিনুল হক সজিব এবং বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সমন্বয়ে একটি সমন্বয় কমিটি গঠন করা হয়। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার হুমায়ুন কবির কে আহ্বায়ক করে, দুইজন প্রাক্তন শিক্ষার্থী প্রতিনিধি সহ এলাকার রাজনৈতিক ও সামাজিক ব্যক্তিবর্গ এবং প্রশাসনের সহযোগিতায় এই সংকট নিরসনের উদ্যোগ ও নেয়া হয়।
উল্লেখ্য যে, কয়েকদিন পূর্বে উক্ত বিদ্যালয় মাঠে বানিজ্যিক মার্কেট নির্মানের ঘোষনা দিয়ে নোটিশ দিয়েছিলেন প্রধান শিক্ষক বাহাউদ্দিন ভূঞা। শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে প্রেক্ষিতে তিনি ও তাঁর উক্ত বিজ্ঞপ্তি প্রত্যাহার করে নেন বলে জানান। আবার বিদ্যালয় সভাপতি শাখাওয়াত উল্লাহ রিপন ভবিষ্যতে উক্ত বিদ্যালয়কে কলেজে রুপান্তরিত করার পরিকল্পনা থেকেই নতুন রুপে পাঠ ক্যাম্পাস পরিকল্পনার কথা জানান। তবে তা মাঠ রক্ষা করার আগে নয়।
এই বিষয়ে করেরহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এনায়েত হোসেন নয়ন বলেন,আমাদের প্রিয় অভিবাবক, সাবেক সফল মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি স্কুলের জন্য একটি বহুতল ভবন বরাদ্ধ দিয়েছেন। শিক্ষার্থী, প্রাক্তন শিক্ষার্থী, এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে উনার প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ। আমরা চাই শিক্ষার্থীদের জন্য ভবন নির্মাণ হোক। কিন্তু বিদ্যালয়ের মাঠ নষ্ট করে বাণিজ্যিক মার্কেট নির্মাণ করার প্রয়োজন নেই। মার্কেট নির্মাণ করতে হলে বিদ্যালয়ের মাঠের ব্যবস্থা করে তারপর করতে হবে।