Tuesday, July 23Welcome khabarica24 Online

‘ইংরেজি জানা প্রয়োজন, ইংরেজ হওয়া নয়’

bbb

ইরফান খান অভিনীত হিন্দি ছবি মুক্তি অপেক্ষায় সেন্সর বোর্ডের নজরে এবার সাকেত চৌধুরি পরিচালিত ছবিটি৷ আর ছবি সম্পর্কিত সেই বিতর্কটিই ইরফান পরিষ্কার করে দিয়ে গেলেন, কলকাতায় ছবির প্রচারে এসে৷

ছবিতে বাবার ভূমিকায় অভিনয় করছেন ইরফানকে৷ একেবারেই ছা-পোষা জীবন যাপনে অভ্যস্ত ইরফানকে আগাগোড়াই হিন্দিতে কথা বলতে দেখা যাবে এই ছবিতে৷ কারণ হিন্দি ছবির ছবির এই চরিত্র হিন্দিতে কথা বলতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করে৷ যদিও ইরফান ছবির প্রচারের মাঝেই জানান যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এখন হিন্দি, বাংলা, ইংলিশ…এই ভাষাগুলিতে সাবলীল হওয়া প্রয়োজন৷

সত্নানের ভবিষ্যৎ নিয়ে বর্তমানের সমাজে দাঁড়িয়ে সন্তানের ভবিষ্যৎ গড়ার জন্য কোন মাধ্যম সঠিক? এই বিষয়ে ইরফান বলেন, আমার ব্যক্তিগতভাবে মনে হয় আজকের যুগে দাঁড়িয়ে ইংরেজি বলতে পারাটা খুবই জরুরি হয়ে দাঁড়াচ্ছে। কমিউনিকেশনের জন্য ইংরেজি সত্যি এখন অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। কিন্তু তা বলে নিজের শিকড়কে কখনও ভুলে যাওয়া উচিৎ নয়। কারন সেটিও আপনার কমিউনিকেশনের একটি পথ। ইংরেজি স্কুলই কি গড়ে দিচ্ছে বাচ্চাদের ভাগ্য? এই প্রসঙ্গে ইরফানের ব্যখ্যা, আগে কি কোনদিন কেউ হিন্দি মাধ্যমে পড়ে কোন উচ্চ পদে চাকরি করেনি , না কোনওদিন কোন ভবিষ্যৎ গড়ে ওঠেনি? তাই এই ধারনা ভুল যে শুধুমাত্র হিন্দি মাধ্যমে বাচ্চাকে পড়ালেই সে যোগ্য হয়ে উঠবে।

এই ছবির বিষয় চেনা৷ অনেকের মতে পরিচালক শিবপ্রসাদ এবং নন্দিতার রামধনু ছবির সঙ্গে মিল রয়েছে হিন্দি মিডিয়াম ছবিটির৷ তবে বিতর্ক বাদ দিতে তা যেন পিছু ছাড়ে না অনেক সময়৷ এই যেমন সেন্সর বোর্ডের কথাটাই ধরুন৷ ছবির সঙ্গে বাস্তবের কোনও মিল নেই এমনই ডিসক্লেমার দিতে বলা হয় হিন্দি মিডিয়াম ছবিটি শুরুর আগে৷ কিন্তু ইরফানের মতে, যদি এই বিষয়ে বিতর্ক হয় তাহলে বিতর্ক হোক, কারণ এই ছবি সম্পূর্ণ ভাবেই বাস্তববাদী এবং সব চরিত্রই বাস্তবের ঘটনা থেকে দেখেই বানানো হয়েছে।