Sunday, September 23Welcome khabarica24 Online

আরব আমিরাতে দৈনিক যুগান্তর এর ১৮ বছর পদার্পণ উপলক্ষে “দেশ গঠনে মিডিয়ার ভূমিকা শীর্ষক”আলোচনা সভা ও কবিতা পাঠ অনুষ্ঠান

IMG-20170204-WA0121

আরব আমিরাত থেকে মোহাম্মদ মনির উদ্দিন মান্না:-
 বাংলাদেশের সাহিত্য  প্রবাসীদের সংগঠন দৈনিক যুগান্তর স্বজন সমাবেশ,আরব আমিরাত শাখা  উদ্যোগের গত  ৩রা ফ্রেরুয়ারী,রোজ-  শুক্রবার, ইউ. এ. ই  বিকাল ২ ঘটিকা,আরব আমিরাত  আল আইন,  হিলি সানাইয়া, আরবি রেষ্টুরেন্টে,জাতীয় কবিতা মঞ্চ ও দৈনিক যুগান্তর স্বজন সমাবেশ,আরব আমিরাত শাখার সভাপতি, বিশিষ্ট কবি ও কলামিস্ট মোহাম্মদ মুসা সভাপতিত্বে এবংকবি নজরুল সাহিত্য পরিষদ , আরব আমিরাত শাখার সভাপতি  ও দৈনিক যুগান্তর স্বজন সমাবেশ, আআরব আমিরাত শাখার সাধারণ সম্পাদক, কবি ও সাংবাদিক মোহাম্মদ মনির উদ্দিন মান্নার সঞ্চালনায়, দৈনিক যুগান্তর১৮তম  প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন এক  আনন্দঘন পরিবেশ ও বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে  দৈনিক যুগান্তর১৮তম  প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন  করা হয়।
দৈনিক যুগান্তর এর ১৮ বছরে পদার্পন উপলক্ষে “দেশ গঠনে মিডিয়ার ভূমিকা শীর্ষক”আলোচনা সভা ও কবিতা পাঠ অনুষ্ঠান টেলি কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুভ  উদ্বোধন  করবেন, বাংলাদেশে বিশিষ্ট কবি ও কথা -সাহিত্যিক,সাংবাদিক,বাংলা একাডেমি শিশু সাহিত্য পুরস্কার-২০১৭ প্রাপ্ত, লেখক রাশেদ রউফ।
অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে অথিতি কে কে ফুল দিয়ে মঞ্চে স্বাগত জানান জাতীয় কবিতা মঞ্চও দৈনিক যুগান্তর স্বজন সমাবেশ,আরব আমিরাত শাখা,সাধারণ সম্পাদকও কবি নজরুল সাহিত্য পরিষদ,  আরব আমিরাত শাখা সভাপতি, কবি ও সাংবাদিক মোহাম্মদ মনির উদ্দিন মান্না । স্বাগত বক্তব্যে তিনি বলেন,
বাংলাদেশের হৃদয়ে বেঁচে থাকবে অনন্ত কাল থেকে কালন্তরে  বাংলাদেশে এগিয়ে যাচ্ছে  সঙ্গে দৈনিক যুগান্তর এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবে। দৈনিক যুগান্তর স্বজন সমাবেশ,  সংযুক্ত আরব আমিরাত শাখা প্রবাসে পাঠক সমাজের ইচ্ছের প্রতিফলন ঘটাবে সুখে দুঃখে থাকবে সদা জাগ্রত অম্লান হবে  উদয়ের পথে জাগরণের বাতি ঘর।
শুভেচ্ছা বক্তব্যে রাখেন জাতীয় কবি মঞ্চ ও দৈনিক যুগান্তর স্বজন সমাবেশ, নির্বাহী  সভাপতি, কবি ও সাংবাদিক ওবাইদুল হক বক্তব্যে বলেন আমাদের প্রত্যাশা থাকবে বিগত  ১৭ বছরের অভিজ্ঞতাকে উপজীব্য করে আগামী দিনে সুন্দর ভবিষ্যৎ বিনির্মাণ এবং দেশে সুষম বণ্টন গণ অধিকার প্রতিষ্ঠার প্রচেষ্টায় মত প্রকাশের স্বাধীনতা অক্ষুণ্ণ রাখতে যুগান্তর  একটি যুগান্তকারী ভূমিকা রাখবে।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন আলহাজ্ব   মাজহার উল্ল্যাহ মিয়া বলেন সাংবাদিকরা জাতির বিবেক ও সমাজের দর্পণ। সংবাদপত্রে লেখনির মাধ্যমে সাংবাদিকরা জাতিকে সঠিক দিক নির্দেশনা প্রদান করে থাকে। সমাজের ইতিবাচক পরিবর্তনে সংবাদপত্র বলিষ্ট ভুমিকা পালন করে থাকে। সংবাদ কর্মীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সমাজের তথা দেশের অসংগতিগুলো নিখুঁতভাবে তুলে ধরে। সাংবাদিকদের লেখনির কারণে আমরা ঘরে বসেই সকল প্রকার তথ্য জানতে পারছি। সাংবাদিকদের ক্ষুরধার লেখনির কারণে দূর্ণীতিবাজরা দূর্নীতি করে পার পায়না। বস্ত্তনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের ফলে জাতি উপকৃত হয় আবার মিথ্যা তথ্য সম্বলিত সংবাদ পরিবেশিত হলে জাতি ক্ষতিগ্রস্থ হয়। ব্যক্তি আক্রোশের বশিবত হয়ে সংবাদ পরিবেশন করা ঠিক  নয়। সাংবাদিকদের কাছ থেকে জাতি এটা আশা করে না। সংবাদ পরিবেশনের ক্ষেত্রে দৈনিক যুগান্তর গত১৭ টি বছরে যা অর্জন করেছে তা সত্যই প্রশংসার দাবী রাখে।
IMG-20170204-WA0109
অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন সিরাজদ্দৌলা মামুন বলেন
দৈনিক  যুগান্তরের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনে আমি পত্রিকাটিতে কর্মরত সবার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু  সর্বাঙ্গীণ সাফল্য কামনা করি। আমি বিশ্বাস করি, যুগান্তর এতদিন যে ধারায় চলেছে, আগামী দিনে সেই ধারা আরও প্রাঞ্জল ও শক্তিশালী হোক  আমি যুগান্তরের অব্যাহত ভাবে  উত্তরোত্তর শ্রীবৃদ্ধি কামনা করি।
বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাহিত্যিক ডাঃ শামসুর রহমান বলেন দৈনিক যুগান্তর সাংবাদিকতার বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন ।দৈনিক যুগান্তর অনলাইনে ও
পত্রিকা ও অনলাইনে সারা বিশ্বকে হাতের মুঠায় নিয়ে এসেছে । মুহুত্বেই সারা বিশ্ব, দেশ, জেলা, উপজেলার খবর মোবাইলের মাধ্যমে পাওয়া যাচ্ছে । প্রতিটি জনপ্রিয় পত্রিকা তাদের অনলাইন ভার্সন প্রচার করছে ।আমি মনে করি তাদের মধ্যে দৈনিক যুগান্তর উপরে।  বস্তুনিষ্ঠ  সংবাদ পরিবেশনের সকল সাংবাদিকদের আহব্বান জানান।
বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন  এম, এ, খায়ের নিজামী বলেন দৈনিক যুগান্তর বলিষ্ঠতা ও নিরপেক্ষতার সঙ্গে জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ সব সংবাদ, ফিচার এবং সম্পাদকীয় বিশ্লেষণ প্রকাশ করে চলেছে। পত্রিকাটি অনেক পথ পাড়ি দিয়ে আজ এ জায়গায় এসে দাঁড়িয়েছে। শুরু থেকেই পত্রিকাটি বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনে বলিষ্ঠ ভূমিকা পালন করে আসছে।
বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেনবিশেষ অথিতি আলহাজ্ব মাওলানা  সাইফুল ইসলাম(ইয়াহইয়া)বলেন
 দৈনিক যুগান্তর একটি মননশীল পত্রিকা হিসেবে সর্বশ্রেণীর পাঠকের চাহিদা মেটাতে যে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে তা সত্যিই প্রশংসনীয়।  দেশের প্রধান জাতীয় দৈনিকগুলোর একটি যুগান্তর। সার্বজনীন  নিরপেক্ষ পত্রিকা হিসেবে যুগান্তর অনেক দিন ধরে জাতির সেবা করে আসছে।দৈনিক যুগান্তরকে জন্মলগ্ন থেকে এ পর্যন্ত দীর্ঘপথ পরিক্রমা ও এর অবদানের কথা বর্ণনা করে আগামী দিনেও এর স্বকীয়তা বজায় থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম বাবু বলেন প্রতিভাবান কর্মকর্তা এবং সাংবাদিকসহ দৈনিক যুগান্তর  দেশের এবং দেশের বাইরে আরব আমিরাত স্বজন সমাবেশ ইউনিট এর সকল সদস্যবৃন্ধ  ও সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি রইল আমার আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।
বিশেষ অতিথি হিসেবে  কবি জানে আলম জাহাঙ্গীর বলেন সত্য প্রকাশের প্রত্যয় নিয়ে এবং পাঠকের চাহিদা প্রকাশে অঙ্গীকারাবদ্ধ মিডিয়া তালিকাভুক্ত শীর্ষ পত্রিকা দৈনিক যুগান্তর  পত্রিকা এগিয়ে চলুক দুরন্ত গতিতে।
বিশেষ অতিথি হিসেবে মোহাম্মদ তারেকুল ইসলাম চৌধুরী রুবেল বলেন দৈনিক যুগান্তর সকল অপশক্তির বিরুদ্ধে তার সহসী ভূমিকা ধরে রাখবে বলে আশা প্রকাশ করেন।
অনুষ্ঠানে আরো উপস্হিত ছিলেন  মোহাম্মদ হোসেন, মোহাম্মদ জহির উদ্দিন শিপন, মোহাম্মদ নুরুল ইসলাম, মোহাম্মদ মেজবাউল, আব্দুল্লাহ আল মামুন, আরমান হোসেন, মোহাম্মদ হাসান, নাজমুল, হায়দার, সোহেল, আনোয়ার, জুয়েল প্রমূখ।
অনুষ্ঠানে কবিতা আবৃত্তি করেন কবি মুহাম্মদ মুসা, কবি জানে আলম জাহাঙ্গীর,কবি ওবাইদুল হক,  কবি মোহাম্মদ মনির উদ্দিন মান্না, মোহাম্মদ ইসমাইল ।
অনুষ্ঠান শেষে উপস্থিত সকলকে মুখরোচক খাবারের মাধ্যমে আপ্যায়ন করা হয়।