বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ৩০ বৈশাখ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

আমলকীর যতগুলো গুণ

8520_amloki

সংস্কৃত বুদ্ধিষ্ট ঐতিহ্যে বুদ্ধ সংঘকে দেয়া ভারতীয় সম্রাট  আশোকের প্রধান উপহার ছিল আমলকী। এই আমলকী নিয়ে চালু আছে প্রবাদও। আমলকী আমাদের মানবদেহের জন্য আমলকীর উপকারী দিকের শেষ নেই। আমাদের  দেশে অতি পরিচিত, সহজলভ্য টক ও কষটা স্বাদের এই ফল কম-বেশি প্রায় সবজায়গাতেই জন্মে।
আমলকী গাছের বৈজ্ঞানিক নাম Phyllanthus emblica এবং আমলকী শব্দটি সংস্কৃত ‘অমলিকা’ থেকে উদ্ভূত। এতে ভিটামিন-সি’র আধিক্যর কারণে বলা হয় কিং অব ভিটামিন সি। সহজলভ্য এই ফল আমাদের মানবদেহের জন্য কতটা জরুরি আর উপকারী তার কিছু অংশ নিচে তুলে ধরা হলো-
১. ভিটামিন-সি থাকায় নিয়মিত ২-১টি করে আমলকী খেলে ভিটামিন-সি’র অভাবজনিত রোগ থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। আমাদের দেহের  রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতাও বৃদ্ধি পায়।
২. চুলের টনিক হিসেবে আমলকী খুবই কাজের। আর তাই আধুনিক সময়ে এসে চুলের শ্যাম্পু উৎপাদনে আমলকীর গুরুত্বও অনেক।

৩. চুলের দ্রুত বর্ধনে রয়েছে আমলকীর বিশেষ এক ক্ষমতা। খুশকিমুক্ত ও কম বয়সে চুল পাকা রোধে আমাদের আমলকী খাওয়া প্রয়োজন।
৪. পেটের আলসার প্রতিরোধে আমলকী বেশ উপকারী।
৫. স্কার্ভি, মেয়েদের লিউকরিয়া, অর্শ্ব প্রভৃতি রোগ প্রতিরোধে আমলকী উপকারী।
৬. আমলকীর রস কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে পাইলস রোগ থেকে মুক্তি দেয়
৭. আমলকী তৃষ্ণা মেটাতে সাহায্য করে , ঘন ঘন প্রস্রাব থেকে রক্ষা করে।
৮. পেটের পীড়া , সর্দি কাশি দূরীকরণে আমলকী অত্যন্ত উপকারী
৯. বিভিন্ন ধরনের তেল তৈরিতে আমলকী ব্যবহার করা হয়। মাথা ঠাণ্ডা রাখতে আমলকীর তেল বেশ উপকারী।
১০. আমলকী আয়রনে ভরপুর। তাই শরীরে নতুন রক্ত তৈরিতে আমলকী খাওয়া প্রয়োজন।
১১. আমলকী রক্তে সুগারের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রেখে ডায়াবেটিস রোধে সহায়তা করে।
১২. হার্টকে সুস্থ রাখাসহ ফুসফুসকে করে আরও শক্তিশালী।
১৩. রক্তে লোহিত রক্তকণিকার সংখ্যা বৃদ্ধি করে। আমাদের দাঁতকে ভাল রাখে।
১৪. আমলকীর রস দৃষ্টি শক্তি ভাল রাখে, চোখের ছানি প্রতিরোধে অত্যন্ত উপকারী।
১৫. এক গ্লাস দুধ বা পানির সঙ্গে আমলকীর গুঁড়া আর চিনি মিশিয়ে দিনে দু’বার পান করলে পেটের অ্যাসিডিটি সহনীয় পর্যায়ে থাকে

সতর্কতা: কিডনি রোগীদের খেতে বাধা আছে। তবে ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী খেতে পারবেন।
প্রতি ১০০ গ্রাম আমলকীতে আছেÑ জলীয় অংশ ৯১.৪, মোট খনিজ ০.৭, আঁশ ৩.৪, খাদ্যশক্তি ১৯, আমিষ ০.৯, চর্বি ০.১, শর্করা ৩.৫, ক্যালসিয়াম ৩৪ মি., লৌহ ১.২,  ক্যারোটিন ০, ভিটামিন বি-১ ০.০২,
ভিটামিন ০.০৪, ভিটামিন-সি ৪৬৩।
সহজলভ্য এই আমলকী ফলের গাছ বিভিন্ন ভাষায় বিভিন্ন নামে পরিচিত
সংস্কৃতি- আমালিকা
মাইথিলি- ধাত্রিক
হিন্দি- আমলা
উর্দু- আওলা
গুজরাটি- আমলা
গারো ভাষায়- আম্বরি
কোনকানি- আভালো
মিজো- সুনলু
বাংলা- আমলকী
আসাম- আমলখি
মালয়লাম- নেল্লিকা
মনিপুরী- হেইক্রু
তেলেগু- রাসি উসিরি
সিনহালা- নেল্লি
থাই- মা খাম পম
মালয়-মেলাকা
চাইনিজ- আনমল
তিব্বতিয়ান- স্কিউরুরা
আমলকী গাছের উচ্চতা ৮-১০ মিটার পর্যন্ত হতে পারে। পত্রঝরা প্রকৃতির। হালকা সবুজ পাতা ১-২ ইঞ্চি পর্যন্ত লম্বা হয়।  হালকা সবুজ স্ত্রী ও পুরুষফুল একই গাছে ধরে। ফল হালকা সবুজ বা হলুদ ও গোলাকৃতি ব্যাস ১/২ ইঞ্চির কম বেশি হয়। গাছে ৪/৫ বছর বয়স থেকেই ফল দেয়। বংশবিস্তার হয় বীজের মাধ্যমে।

Leave a Reply