সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

আবারও চিলির প্রেসিডেন্ট মিশেল ব্যাচেলেট

0388

চিলির প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট হওয়ার কৃতিত্ব অর্জনকারী বামদলের মিশেল ব্যাচেলেট রোববারের ভোটে আবারও বিজয়ী হয়েছেন। এক সময়ে ডানপন্থী দলের নির্মম নির্যাতনের শিকারও হন ব্যাচেলেট। ৬২ শতাংশেরও বেশি ভোট পেয়ে বিজয়ী ব্যাচেলেট দেশটির দ্বিতীয় মেয়াদে প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন। এর আগে তিনি ২০০৬ সালে চিলির প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। ২০১০ সালে ক্ষমতা থেকে বিদায় নেয়ার কালে তার জনসমর্থন ছিল ৮৪ শতাংশ। ইউএন উইমেন-এর নেতৃত্বদানকারী ব্যাচেলেট (৬২) চলতি বছর দেশে ফেরেন। তিনি বলেন, ‘আমরা জেনেছি এখানে এখনও অনেক কিছু করার আছে।’ ৮১ শতাংশেরও বেশি ভোট গণনা শেষে নির্বাচন বোর্ড জানায়, ব্যাচেলেট ৬২ দশমিক ৪০ শতাংশ ভোট পেয়ে নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছেন। অপরদিকে তার প্রতিদ্বন্দ্বী এভিলিন ম্যাথেই (৬০) পেয়েছেন ৩৭ দশমিক ৫০ শতাংশ ভোট। বিশ্লেষকরা বলছেন, বিপুল ভোটের বিজয় ব্যাচেলেটকে তার কাক্সিক্ষত সংস্কার করার সুযোগ করে দিল। এসব সংস্কারের মধ্যে কর বাড়ানো, উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাকে অবৈতনিক ও গর্ভপাত বৈধকরণ অন্যতম। ব্যাচেলেট ১৯৫১ সালের সেপ্টেম্বরে সান্তিয়াগোতে জন্ম নেন। তার বাবা আলবার্তো ব্যাচেলেট ছিলেন বিমান বাহিনীর কর্মকর্তা এবং মা প্রত্নতত্ত্ববিদ। ব্যাচেলেট কিশোরকালেই সোস্যালিস্ট ইয়থে যোগ দেন। তার বাবা পদোন্নতি পেয়ে জেনারেল হন এবং নির্বাচিত বামপন্থী প্রেসিডেন্ট সালভাদর আলেন্দের ঘনিষ্ঠ উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করেন। সামরিক বাহিনীর ডানপন্থী কর্মকর্তারা ১৯৭৩ সালের সেপ্টেম্বরে অভ্যুত্থান ঘটিয়ে আলেন্দেকে হত্যা করেন। তাদের সন্দেহের তালিকায় আলবার্তো থাকায় তাকেও গ্রেফতার করা হয়। এক সামরিক স্কুলে আটক রেখে তার ওপর নির্মম অত্যাচার চালানো হয়। মুক্তি পাওয়ার ৬ মাসের মধ্যে আলবার্তো মারা যান।

Leave a Reply