বুধবার, ৩ আগস্ট ২০২২, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৯খবরিকা অনলাইনে আপনাকে স্বাগতম।

অবিরাম হরতাল-অবরোধের হুমকি বিএনপির

salauddin_213976
বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদ বলেছেন, এখন পর্যন্ত খালেদা জিয়ার কার্যালয়ে ইন্টারনেট, টেলিফোন, ক্যাবল নেটওয়ার্ক পূনঃস্থাপন করা হয়নি। অবিলম্বে এ সমস্ত সংযোগ পূনঃস্থাপন না করা হলে দেশবাসীকে সঙ্গে নিয়ে অবিরাম হরতাল ও অবরোধ অব্যাহত রাখা হবে।রোববার বিকেলে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ একথা বলেন।খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কার্যালয়ে ইন্টারনেট, টেলিফোন ও ক্যাবল নেটওয়ার্কের পুন:সংযোগ না দেয়ায় অবিরাম হরতাল-অবরোধের হুমকি দিলো বিএনপি।অবরোধের পাশপাশি বিএনপি নেতৃত্বাধীন জোটের ডাকা ৭২ ঘন্টার হরতাল সফল করার আহ্বান জানিয়ে সালাহ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘অবৈধ সরকারের পদত্যাগ এবং অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের ব্যবস্থা না হওয়া পর্যন্ত অবিরাম সংগ্রাম অব্যাহত থাকবে।

 বিবৃতিতে তিনি বলেন, দেশ এখন গণতন্ত্রের পরিবর্তে প্রধানমন্ত্রীর ‘মনোতন্ত্র এবং ইচ্ছাতন্ত্রে’ প্রবেশ করেছে।‘ইচ্ছামত গুলি করে আন্দোলনকারীদের হত্যার লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে দলীয়করণকৃত আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে এবং দায়িত্ব কাঁধে নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নিজে। জাতিসংঘসহ বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থা ও সংগঠনসমূহের উদ্বিগ্নতা সত্ত্বেও সরকার প্রতিনিয়ত ক্রসফায়ারের মাধ্যমে বিরোধী রাজনৈতিক নেতা-কর্মীদের পাইকারী হারে হত্যা করছে।
 ক্ষমতাসীনদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, তারা খালেদা জিয়াকে ভাতে মারার, পানিতে মারার-ঘোষনা দিয়েছেন। এ যেন গণতন্ত্রকামী সংগ্রামী জনগণের বিরুদ্ধে বিজাতীয় শত্রুদের আস্ফালন। জনগণের ন্যায়সঙ্গত দাবি আদায়ের সংগ্রামে তিনি (খালেদা জিয়া) দেশ ও জাতীর স্বার্থে সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করতে প্রস্তুত।
 শুক্রবার রাত পৌনে তিনটার দিকে খালেদা জিয়ার কার্যালয়ের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয় ঢাকা বিদ্যুৎ সরবরাহ প্রতিষ্ঠান ডেসকো।
 শনিবার রাত ১০টা ১২ মিনিটে খালেদার কার্যালয়ে বিদ্যুতের পূনঃসংযোগ দেওয়া হলেও ক্যাবল সংযোগ ও ইন্টারনেটের ব্রডব্যান্ড এবং টেলিফোন সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।